ঘরে বন্দী হয়েই কি কাটাতে হবে জীবন!

করোনা আসার পূর্বের জীবনে ফেরা আপাতত আর সম্ভব নয়। বিশ্ব জুড়ে কোভিড-১৯ নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যেই এই বিষয়ে চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা একমত। তাঁরা বলছেন, কয়েক মাস পরে যদিও কমে যায় সংক্রমণ, তা হলেও ফেরত আসবে কবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। ‘ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ’ এর (আইসিএমার) বিজ্ঞানীদের পরামর্শ যে, আগামী কয়েক বছর কোভিড-১৯-কে জীবনের অংশ মনে করেই চলা প্রয়োজন। লকডাউন থাকুক বা উঠে যাক তার সাথে এই কথার হেরফের হবেনা।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে করোনার তাণ্ডব! লাফিয়ে বাড়লো মৃতের সংখ্যা

বিজ্ঞানীদের মতে, ভাইরাসের পরিবেশ টিকে থাকাটা তার মিউটেশনের উপরে নির্ভর করে। যদি দেখা যায় মিউটেশন আর হচ্ছেনা তেমন ভাবে, তবে সেই ভাইরাস তার ক্ষমতা হারায় আস্তে আস্তে।

‘ট্র্যানস্লেশনাল হেলথ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউট’- এর বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, কয়েক মাস পরে গোটা বিশ্বে আর কোথাও নতুন সংক্রমণ না হয়, যারা স্বল্প উপসর্গের বা উপসর্গহীন, তাঁরা এমনি সুস্থ হয়ে যান, আর যারা ক্রিটিক্যাল রোগী তাদের একাংশ মারা যান তবে তারপর যে জীবন শুরু হবে তা করোনা আসার পূর্বের জীবন হবেনা। সংস্থার ইমিউনোলজি অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর অমিত অবস্থীর কথায়, ‘সংক্রমণ থেমে যাওয়ার দু’বছর কমপক্ষে করোনার আসার আগের জীবন ভুলে যাওয়া শুধু তাই নয় করোনার সাথে আমাদের সহাবস্থান করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ জেনে নিন তৃতীয় লকডাউনে কি করতে পারবেন আর কি পারবেন না

Leave a Comment