Jio ভারতকে 2G মুক্ত করবে, ঘোষণা করলো মুকেশ আম্বানি

Mukesh Ambani

মুম্বইঃ আগামী বছরেই 5G লঞ্চ করতে প্রস্তুত রিলয়েন্স জিও। বুধবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-এর বার্ষিক সাধারণ সভায় রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-এর চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি ঘোষণা করলেন। এর সঙ্গে বিশ্বের সবচেয়ে বড় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা Google-এর সাথে যৌথভাবে সস্তায় 4G ও 5G স্মার্টফোন তৈরী করবে জিও জানালেন তিনি। মুকেশ আম্বানির কথায় এটাই ধরা যায় Jio-Google যৌথভাবে ভারতকে 2G মুক্ত করতে চায়।

আরও পড়ুনঃ GOOGLE এর বড় ঘোষণা! ভারতে ৭৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ, জানালেন পিচাই

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-এর চেয়ারম্যান বলেন যে, 5G যুগের দোরগোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছে ভারত। ভারতের ৩৫ কোটি মানুষ এখনও 2G ফোন ব্যবহার করেন। তাঁদের তো সস্তায় স্মার্টফোন দিতে হবে। Google ও Jio একসাথে মিলে একটি ভ্যালু ইঞ্জিনিয়ার্ড অপারেটিং সিস্টেমের এন্ট্রি-লেভেল 4G/5G স্মার্টফোন তৈরী করবে। Jio ও Google এক হয়ে ভারতকে 2G মুক্ত করতে বদ্ধপরিকর।

আরও পড়ুনঃ রেকর্ড গড়ল ভারত, এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের সূচনা হল

শেয়ারের দাম বাড়ায় রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ বাজার মূল্য ১১.৫ লক্ষ কোটি ছাড়াল

Mukesh Ambani

মুকেশ অম্বানি এখন ফুল ফর্মে। রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির বাজার মূল্য বেড়েছে। সোমবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের বাজার মূল্য ১১.৫ লক্ষ কোটি চাড়িয়ে গেল। এই বৃদ্ধির একটি কারণ হল এই কোম্পানির শেয়ারের মূল্য বৃদ্ধি।

বেশ কিছু দিন আগেই রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির জিও নিজেকে ঋণ মুক্ত করে দেখিয়ে ছিলেন। বছরের শুরু থেকেই বিদেশী লগ্নি আনার ফলে জিও এক লাভ জনক কোম্পানিতে পরিণত হয়েছিল। তার পরেই আবার বড় খবর এল রিলায়েন্সের তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ ২০ হাজার কর্মসংস্থান, উচ্চমাধ্যমিক পাশ হলেই মিলবে কাজের সুযোগ

এই মূল্য বৃদ্ধির পিছনে রয়েছে রিলায়েন্সের শেয়ার মুল্যের উপর ২.৫৫ শতাংশ বৃদ্ধি। যার ফলে পূর্বে বাজার মূল্য ছিল ২৬,১৫০.০৫ কোটি, যা সোমবার সকালে হয়ে যায় ১১,৫৯,৩১৮.৬০ কোটি টাকা।

শুধু তাই নয়, জুন মাসে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রি ভারতের প্রথম কোম্পানি যা ১১ লক্ষ কোটি টাকার বাজার মূল্যে উপস্থাপিত হয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ RELIANCE JIO -র মালিকানা স্বত্ব কিনতে আগ্রহী FACEBOOK

সময়ের আগেই বড় ঘোষণা রেকর্ড গড়ল জিও

Mukesh Ambani

দেশে লকডাউনের জেরে বড় বড় কোম্পানি গুলি প্রায় তলানিতে ঠেকেছে। সব কিছু শেষ হয়েছে বেশ কিছু কোম্পানির ক্ষেত্রে। কিন্তু অন্য দিকে নয়া ধামাক নিয়ে হাজির হয়েছে জিও। পর পর বড় বড় বিসনেস ডিল করেই চলেছে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রি। দেশের বিভিন্ন জায়গাতে এখনও লকডাউন পর্ব চলছে। আবার কিছু জায়গাতে চলছে আনলক পর্ব। তারই মাঝে ম্যাজিক দেখাচ্ছে জিও। বিশ্ব বাজারে নাম উঠে এসেছে রিলায়েন্স জিও-র। নিজের রেকর্ড গড়ছে, আবার নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙছে। এবার বড় খবর নিয়ে হাজির রিলায়েন্সের কর্ণধর মুকেশ আম্বানি।

আরও পড়ুনঃ শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন থেকে মিলল প্রচুর সোনা ও টাকা, উত্তেজনায় খড়গপুর

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রি চলতি বছরের শেষে ঋণমুক্ত হওয়ার কথা আগেই বলেছিল। তবে সেই সময়ের আগেই নিজেকে ঋণমুক্ত করে ফেলেছে রিলায়েন্স। সেই সুখবর নিজের মুখেই জানালেন মুকেশ আম্বানি। আর এই কাজ সম্ভব হলেছে জিও-র হাত ধরে।

চলতি বছরের করোনা ভাইরাসের মহামারীর মধ্যেই এই কামাল করে দেখাল মুকেশ আম্বানির কোম্পানি। জানা গিয়েছে, মাত্র ৫৮ দিনের মধ্যেই ১৬৮,৮১৮ কোটি টাকা বাজার থেকে তুলেছে জিও। শুধু এতে শেষ নয়, মোট ১১ টি ডিল থেকে মোট এসেছে ১১৫,৬৯৩,৯৫ টাকা। মাত্র ২ মাসের মধ্যেই এই সব সম্ভব করেছে জিও। সব থেকে বড় ডিল হয়েছে ফেসবুক কোম্পানির সাথে। তবে আরও বিদেশী লগ্নি টানতে পারে রিলায়েন্স জিও।

আরও পড়ুনঃ রিলায়েন্স শুরু করলো হোয়াটসঅ্যাপ ভিত্তিক অনলাইন শপিং পোর্টাল

জিও ৬,৫৯৮ কোটি টাকায় মার্কিন সংস্থ্যার কাছে শেয়ার বিক্রয় করতে চলেছে

reliance-jio-sells-1-34-shares-to-general-atnaltic-for-rs-6-5-crore

রিলায়েন্স জিও ভারতের সব থেকে বড় টেলিকম সংস্থ্যা। ভারতের বাজারে ৪ জি সার্ভিস নিয়ে এক যুগান্তকারী পরিবর্তন নিয়ে এসে ছিল। ২০১৬ সাল থেকে যাত্রা শুরু করে ছিল এই রিলায়েন্স জিও। বর্তমানে রিলায়েন্স, তার টেলিকম সংস্থ্যা জিও -এর শেয়ার বিক্রয় করে চলেছে। কিছুদিন আগে ফেসবুক প্রায় ১০ শতাংশের কাছাকাছি শেয়ার বিক্রি করে ছিল। সেই লেনদেন গত মাসেই পূর্ণ হয়ে গিয়েছিল।

আরও পড়ুনঃ

এই বার আবার সামনে এল জিও-এর আবার শেয়ার বিক্রয় করার কথা। এই বারে জিও তার ১.৩৪ শতাংশ শেয়ার আমেরিকার ইক্যুইটি ফার্ম জেনারেল আতলান্টিককে প্রায় ৬,৫৯৮ কোটি টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিল। এই মার্কিন কোম্পানি যে প্রথম তা নয়। এর আগে সিলভার লেক নামের এক আমেরিকান কোম্পানির কাছেও শেয়ার বিক্রি করে ছিল জিও। এছড়াও ফেসবুক, ভিসতা ইক্যুইটি ইত্যাদি ভারতের জিও-এর উপর অর্থ লগ্নি করেছে।

এই করোনা মহামারীর মধ্যেও ভারতের রিলায়েন্স জিও বিশ্বের সব থেকে বড় বড় লগ্নিকারীদের নিজের প্রতি আকর্ষন করে চলেছে। তারা ভারতের বাজারে লগ্নি করে চলেছে।

আরও পড়ুনঃ

ফেসবুকের পরে সিলভার লেক অর্থ বিনিয়োগ করলো জিও তে

big-amount-of-money-invested-by-silver-lake-in-jio

জিও এখন সোনায় সোহাগা। ফেসবুকের এক বিশাল অঙ্কের চুক্তির পর দু’সপ্তাহ পার হতে না হতেই আবার এক মার্কিন কোম্পানি এগিয়ে এল। এই বারে অর্থ বিনিয়োগ করলো আমেরিকার এক বেসরকারি সংস্থা ইক্যুয়িটি ফার্ম সিলভার লেক পার্টনার্স (SLP) । পরিমান টাও কম নয়, পুরো ৫,৬৫৫.৭৫ কোটি টাকা। এই পরিমান অর্থ বিনিয়োগ করে সিলভার লেক মুকেশ আম্বানির জিও তে ১.১৫ শতাংশ শেয়ার কিনে নিল।

জিও কোম্পানিতে এটি ছিল দ্বিতীয় বিনিয়োগ। এর আগে ফেসবুক এক বিশাল অর্থের বিনিয়োগে রিলায়েন্স জিও কোম্পানির প্রায় ৯.৯ শতাংশ শেয়ার কিনে নিয়ে ছিল। সেটি ছিল জিও তে প্রথম বিনিয়োগ, আর তার পরেই দ্বিতীয় বিনিয়োগ। নতুন দিগন্তের আশা দেখছে মুকেশ আম্বানি।

আরঃ পড়ুনঃ জেনে নিন তৃতীয় লকডাউনে কি করতে পারবেন আর কি পারবেন না

রিলায়েন্স শুরু করলো হোয়াটসঅ্যাপ ভিত্তিক অনলাইন শপিং পোর্টাল

jiomart and whatsapp

করোনা ভাইরাসের জেরে ভারতবাসী এখন ঘরবন্দি অবস্থায় দিন অতিবাহীত করছে। এরই মধ্যে রিলায়েন্স তাদের অনলাইন শপিং পোর্টালের উপর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। রিলায়েন্সের সাথে ফেসবুকের ৫.৭ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সম্পুর্ন হওয়ার তিন দিনের মাথায় মুকেশ আম্বানি শপিং পোর্টালের উপর কাজ শুরু করে দিয়ে ছিল।

বর্তমানে ভারতের মধ্যে ফেসবুকের একটি পন্য হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৪০ কোটি মানুষ। সেই ভারতের বাজারে জিওমার্ট, একটি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম নিয়ে আসছে রিলায়েন্স।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন স্বাস্থ্যকর্মীদের

এই জিওমার্ট অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট-এর মতো ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মগুলিকে টক্কর দিতে চলেছে বেশ কিছু দিনের মধ্যেই। ফেসবুক ও জিওমার্ট মিলে যাওয়াতে হোয়াটসঅ্যাপ হয়ে দাঁড়াবে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের যোগাযোগের প্রাথমিক মাধ্যম। ফলে ছোটো ব্যবসায়ীরা সহজে তাদের ব্যবসা চালাতে পারবে।

গ্রাহকদের তাদের জিওমার্ট অ্যাপে হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর প্রদান করতে হবে। যেকোনো দ্রব্য অর্ডার দেওয়ার পর একটি লিঙ্ক সরবরাহ করবে জিওমার্ট অ্যাপ। একবার অর্ডার দেওয়া সম্পন্ন হলে সেই তথ্য জিওমার্ট একটি মুদিখানা দোকানের সাথে ভাগ করে নেবে হোয়াটসঅ্যাপের সাহায্যে। তারপর ক্রেতা অর্ডার সম্মন্ধিয় সব তথ্য পেতে থাকবে তাঁর হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে। এই ভাবে চলবে জিওমার্ট।

আরও পড়ুনঃ করোনার প্রভাবে কমছে দুর্গাপুজোর বাগেট, জানালেন ক্লাব কর্তারা

ফেসবুক ৫.৭ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করলো জিওতে

facebook-invests-five-billion-dollar-in-jio

বেশ কিছু দিন ধরে শিল্প মহলে রিলায়েন্স জিও ও ফেসবুক নিয়ে আলোচনা চলছিল। শোনা যাচ্ছিল ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স জিও কোম্পানিতে লগ্নি করতে চলেছে। তবে এইবার ব্যাপারটা পরিষ্কার হয়ে উঠেছে। ফেসবুক ভারতের বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানি রিলায়েন্স জিও তে ৫.৭ বিলিয়ন ডলারের অর্থ লগ্নি করছে।

ভারতের সবথেকে বৃহত্তম টেলিকম সংস্থা জিওর গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ৪০০ মিলিয়ন বা ৪০ কোটি। ফলে ফেসবুক নিজের ব্যবসার বৃদ্ধি করার জন্য জিওর দিকেই নজর দেয়েছে। আগে থেকেই দেখা গেছে যে ফেসবুক তথ্যের উপর ভর করে চলে। আর তাই তথ্যের কথা ভেবে ২০১২ সালে ইনস্টাগ্রাম ও ২০১৪ সালে হয়াটসঅ্যাপ কিনে নিয়েছিল। তবে এইবার জিও ও ফেসবুক একত্রিতভাবে কাজ করতে চলেছে।

আরও পড়ুনঃ দেশে ওয়ার্ক ফ্রম হোমে বাড়ছে ব্রডব্যান্ড, ল্যাপটপের চাহিদা

Reliance Jio -র মালিকানা স্বত্ব কিনতে আগ্রহী Facebook

সম্প্রতি Reliance Jio -র মালিকানা শেয়ার কিনতে আগ্রহী Facebook । শোনা যাচ্ছে Facebook মালিকানা স্বত্বের ১০ শতাংশ কিনে নেওয়ার জন্য মুকশ আম্বানির কোম্পানির সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছে। Jio -র স্বত্বা বিলিয়ন ডলারে কিনতে আগ্রহী মার্ক ইলিয়ট জাকারবার্গের কোম্পানি Facebook । Facebook ছাড়াও Jio -র মালিকানা কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে এক মার্কিন টেক কোম্পানি Google ।

সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে এই ব্যপারে Facebook ও Jio -র আধিকারিকদের মধ্যে কথাবার্তা শুরু হয়ে গিয়েছে। তবে করোনা ভাইরাসের কারনে বিশ্বব্যপী যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকার জন্য এদের মধ্যে আপাতত কথোপকথন বন্ধ রাখা হয়েছে।

২০১৫ সালে পরীক্ষামূলক ভাবে চালু করা হয়েছিল Jio । ২০১৬ সালে এসে 4G পরিসেবা বানিজ্যিকভাবে শুরু করেছিলেন মুকেশ আম্বানি। দেখতে দেখেত সেই Jio এখন ভারতের প্রথম শ্রেনীর টেলি কমিউনিকেশন কোম্পানি। বর্তমানে Jio -র বাজার মূল্য প্রায় ৬০-৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। সেই মতো ১০ শতাংশ শেয়ারের দাম প্রায় ৬-৭ বিলিয়ন ডলার হতে পারে। সমগ্র দেশে এখন ৩৭ কোটি Jio গ্রাহক। বিনামূল্যে ভয়েস কল, ডেটা দিয়ে ২০১৬ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত মানুষের মন ছুঁয়ে ফেলে।

ভারতে বিদেশী কোম্পানিদের ব্যবসা করার ক্ষেত্রে বেশ কিছু আইন মেনে চলতে হয়। তাই Jio -র হাত ধরে ভারতের বাজারে প্রবেশ করতে আগ্রহী Facebook ।

করোনার জেরে JIO দিচ্ছে দ্বিগুণ ডেটা, এখনই রিচার্জ করুন

jio-plans

বর্তমানে ভারতবর্ষের সর্ব বৃহৎ টেলিকম পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা জিও কিছু নতুন প্ল্যান নিয়ে আসে।

রিলায়েন্স জিও তার 4G ডেটা প্ল্যানের মধ্যে চারটিতে দিচ্ছে দ্বিগুণ ডেটা। এই দ্বিগুণ সুবিধা পেতে নিচে দেওয়া প্ল্যান গুলি গ্রহন করতে পারেন। প্ল্যানগুলি হল-

১১ টাকাঃ ৪০০ এমবি ডেটা +৭৫ মিনিট ননজিও কল।

২১ টাকাঃ ২ জিবি ডেটা+২০০ মিনিট ননজিও কল।

৫১ টাকাঃ ৬ জিবি ডেটা+৫০০ মিনিট ননজিও কল।

১০১ টাকাঃ ১২ জিবি ডেটা ও ১০০০ মিনিট ননজিও কল।

ডেটার সীমা পার হয়ে গেলে ব্যবহারকারীরা ইন্টারনেট চালিয়ে যেতে পারবেন। তবে স্পিড থাকবে ৬৪ কেবিপিএস, উপরে উল্লিখিত ৪টি প্ল্যান কোনো প্রাথমিক প্ল্যান নয়। এই প্ল্যান গুলি তখন কার্যকরী হবে যখন কোনো প্রাথমিক প্ল্যানের ভ্যালিডিটি শেষ হওয়ার আগেই ব্যবহারকারী কোটা পূর্ণ করে ফেলবেন।