ট্রেন ও মেট্রো পরিষেবা চালু করতে চিঠি পাঠালো রাজ্য

Indian Railway

কলকাতাঃ রেল পরিষেবা পুনরায় চালু করতে চেয়ে চিঠি রাজ্যের। চিঠি দিলেন রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যানকে। চিঠি দিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মেনেই চলুক রেল। রেল চলুক রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা করে। রাজ্য লোকাল ট্রেন ও মেট্রো চালু করতে চায়।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর রাতভোর চললো গুলির লড়াই

মহারাষ্ট্রের মডেল অনুসরন করা হবে নাকি রেলের দরজা সকলের জন্যই খুলে দেওয়া হবে। এই প্রশ্ন এখন রেলের অন্দরে ঘুরপাক খাচ্ছে। রাজ্য সরকার রেল চালাতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এ কথা নবান্নে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানানো হয়েছে। রাজ্য সরকারের থেকে চিঠিও পাঠানো হয়েছে রেলে। এবার কি তবে খুলবে রেলের দরজা!

রেল পরিষেবা চালু করা হলে কী কী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে, তা খতিয়ে দেখতে পূর্ব, দক্ষিণ-পূর্ব ও উত্তর পূর্ব সীমান্ত রেল ও মেট্রো পরিকল্পনা করেছে নিজেদের মতো। রেলের বিভিন্ন ডিভিশন তাদের ডিভিশনাল আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেছে। ট্রেন চালু করতে গেলে কী কী ব্যবস্থা নিতে হবে তা খতিয়ে দেখতে ইতিমধ্যেই মিটিং করলো শিয়ালদহ ডিভিশন। তবে রেল বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক থেকে কোনও নির্দেশ আসেনি এখনও জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ আপনার শারীরিক ফিটনেস ঠিক আছে কতটা, বলে দেবে এই Amazon-এর Halo ব্যান্ড, জেনে নিন এর দাম

বদল হল শিয়ালদহ স্টেশনের নম্বর, জেনে নিন কি কি পরিবর্তন হল

Sealdah Station

শিয়ালদহ স্টেশনের নম্বর বদল হল। স্টেশন ছিল ২১ টি, কিন্তু নম্বর ছিল ১৪এ পর্যন্ত। ফলে যাত্রীদের সমস্যার মধ্যে পড়তে হত। সেই কথা মাথায় রেখেই এই পরিবর্তন করা হয়েছে বলে যানা যাচ্ছে। রাজ্যে লকডাউন বজায় থাকায় এই সুযোগের সদ ব্যবহার করে ফেললেন রেল কর্তৃপক্ষ। তাই বদল হল শিয়ালদহ স্টেশনের বেশকিছু প্ল্যাটফর্মের নম্বর।

বর্তমানে শিয়ালদহ স্টেশনে উত্তর, সক্ষিণ ও মেন শাখা নিয়ে ২১ টি প্ল্যাটফর্ম। তার মধ্যে উত্তর শাখায় ৪ ও ৪এ নিয়েই সমস্যাটা তৈরি হয়েছিল। পরে মেন শাখায় ৯, ৯এ, ৯বি, ৯সি, ও দক্ষিণ শাখায় ১০ ও ১০এ, ১৪ ও ১৪এ নিয়েও সমস্যার বাসা বেধেছিল। যাত্রীদের কোন প্যাটফর্মে ট্রেন আসছে সেই নিয়ে একই ধরণের সংখ্যা থাকায় বুঝতে গোলমাল হচ্ছিল।

আরও পড়ুনঃ লাদাখে সেনার সঙ্গে বৈঠকের ফাঁকে পুজো সারলেন প্রধানমন্ত্রী, দেখুন ভিডিও

তাই বদল নিয়ে হাজির রেল। ফলে নতুন প্ল্যাটফর্মের নম্বর অনুযায়ী, শিয়ালদহ উত্তর শাখায় ১এ পরিচিত হবে ১ হিসাবে। ১ পরিচিত হবে ১এ হিসাবে। ২ হল ২ হিসাবে, ৩ হল ৩ হিসাবে, ৪ হল ৪ ও ৪এ, ৪এ হল ৫ ৫ এবং ৫এ, ৫ হল ৬, ৬ হল ৭, ৭ হল ৮, ৮ হল ৯, ৯ হল ১০, ৯সি হল ১১, ৯বি হল ১২, ৯এ হল ১৩ এছাড়া ৯ডি যা ইয়ার্ড প্ল্যাটফর্ম তা হল ১৪ নম্বর। এগুলি ছাড়াও শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় ১৫ থেকে ২১ পর্যন্ত প্ল্যাটফর্ম থাকবে। শিয়ালদহ উত্তর শাখায় থাকবে ৫ নম্বর প্ল্যাটফর্ম, শিয়ালদহ মেন শাখায় থাকবে ৯ নম্বর প্ল্যাটফর্ম এবং শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখায় ৭ নম্বর প্ল্যাটফর্ম থাকবে।

আরও পড়ুনঃ চিকিৎসকের পিপিই পোশাক পরেই ‘গরমি’ গানে অসাধারণ নাচ

দেশজুড়ে চালু হতে চলেছে ৯০টি স্পেশাল ট্রেন, দেখে নিন সম্পুর্ন তালিকা

recovered huge amount of gold cash from shramik special train passenger

দেশ জুড়ে লকডাউনের পর থেকেই সব ট্রেন বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল। ফলে এই বিশাল দেশ এক মুহুর্তে থমকে গিয়েছিল। তবে সময়ের সাথে সাথে সব কিছু আবার আগের মতো স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে। আর সব কিছু আগের মতো স্বাভাবিক করার পথে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হল ভারতীয় রেল ব্যবস্থা।

দফায় দফায় লকডাউন চালু করা থেকে আনলক পর্বে একে একে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হচ্ছে। ১ লা মে থেকেই ৩০ টি স্পেশাল রাজধানী এক্সপ্রস চালু করেছে ভারতীর রেল, আর ১ লা জুন থেকে সেই সংখ্যা বেড়ে করা হয়েছে ২০০। তবে এই বার তার সাথে আরও ৪৫ জোড়া অর্থাৎ ৯০ টি স্পেশাল ট্রেন চালু করার কথা ভাবছে ভারতীয় রেল। সেই কথা ভেবেই ইতি মধ্যেই রেল সরকারের পক্ষ থেকে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে।

আরও পড়ুনঃ দেশে ৬ লক্ষ মানুষ করোনা আক্রান্ত, ৯০ শতাংশই এই দশ রাজ্য থেকে

এই ট্রেন গুলিতে আগামী ১২০ দিনের টিকিট বুক করা যাবে। এই ট্রেন গুলিতেও কোটা হিসাবে কিছু সিট সংরক্ষণ করা থাকবে। তবে ট্রেনে পরিবহন করতে গেলে মেনে চলতে হবে রেলের দেওয়া নির্দেশিকা। সূত্র অনুসারে যে ট্রেন গুলি চালু হওয়ার কথা রয়েছে সেই ট্রেন গুলির তালিকা নীচে দেওয়া হল।

১. নয়াদিল্লি-অমৃতসর – শান এ পাঞ্জাব এক্সপ্রেস
২. দিল্লি – ফিরোজপুর – এন্টারসিটি
৩.কোটা-দেরাদুন-নন্দা দেবী এক্সপ্রেস
৪.জবলপুর – আজমির – দয়োদয় এক্সপ্রেস
৫.প্রয়াগরাজ-জয়পুর এক্সপ্রেস
৬. গোয়ালিয়র-মান্দুয়াডিহ-বুন্দেলখণ্ড এক্সপ্রেস
৭. গোরক্ষপুর-সেকান্দারবাদ এক্সপ্রেস
৮. পাটনা – সেকান্দারবাদ
৯. গুয়াহাটি-বেঙ্গালুরু এক্সপ্রেস
১০. ডিব্রুগড় – অমৃতসর
১১. যোধপুর – দিল্লি
১২. কামাখ্যা – দিল্লি
১৩. ডিব্রুগড় – নয়াদিল্লি স্পেশাল রাজধানী এক্সপ্রেস
১৪. ডিব্রুগড় – লালগড়
১৫. ভাস্কো-পাটনা এক্সপ্রেস
১৬. দিল্লি সরাই রোহিলি-পোরবন্দর এক্সপ্রেস
১৭. মোজাফফরপুর-পোরবন্দর এক্সপ্রেস
১৮. ভোদোদর বারাণসী মহামান এক্সপ্রেস
১৯. উধনা-দানাপুর এক্সপ্রেস
২০. সুরত-মুজাফফরপুর এক্সপ্রেস

আরও পড়ুনঃ বড় ঘোষণা! আগামী বছর জুন পর্যন্ত ফ্রি রেশন পাবে রাজ্যবাসী

২১. ভাগলপুর-সুরত এক্সপ্রেস
২২. ভলসাদ-হরিদ্বার এক্সপ্রেস
২৩. ভলসাদ – মুজাফফরপুর শ্রমিক এক্সপ্রেস
২৪. গোরক্ষপুর – দিল্লি হামসফার এক্সপ্রেস
২৫. দিল্লি-ভাগলপুর বিক্রমশিলা এক্সপ্রেস
২৬. যশবন্তপুর-বিকানের এক্সপ্রেস
২৭. জয়পুর-মহীশুর এক্সপ্রেস
২৮. উদয়পুর-হরিদ্বার এক্সপ্রেস
২৯. হাবিবগঞ্জ – নয়াদিল্লি এক্সপ্রেস
৩০. লখনউ – নয়াদিল্লি এক্সপ্রেস
৩১. নয়াদিল্লি-অমৃতসর এক্সপ্রেস
৩২. ইন্দোর-নয়াদিল্লি এক্সপ্রেস
৩৩. আগরতলা-দেওঘর এক্সপ্রেস
৩৪. মধুপুর-দিল্লি এক্সপ্রেস
৩৫. যশবন্তপুর – ভাগলপুর আং এক্সপ্রেস
৩৬. মহীশূর সোলাপুর গোলগুমবাজ এক্সপ্রেস
৩৭. কানপুর আনোয়ার গঞ্জ- গোরক্ষপুর চৌড়ি-চৌড়া এক্সপ্রেস
৩৮. বেনারস-লখনউ কৃষক এক্সপ্রেস
৩৯. মোজাফফপুর- আনন্দ বিহার গরিব রথ এক্সপ্রেস
৪০. দিল্লির সম্প্রসারণ – গাজীপুর সিটি

কবে থেকে এই সব ট্রেন চালু হচ্ছে তা নিয়ে এখন রয়েছে ধোঁয়া

বৈঠকে কাটল না জট, ১লা জুলাই চালু হচ্ছে না কলকাতা মেট্রো

Kolkata Metro Rail

কিছু দিন আগেই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেট্রো রেল চালু করার ইচ্ছে প্রকাশ করে ছিলেন। বলেছিলেন এই বিষয়ে তিনি আলোচনা করবেন রেল কতৃপক্ষের সাথে।

আজ সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে জানা গেছে ১ লা জুলাই থেকে চালু হচ্ছে না কলকাতা মেট্রো পরিষেবা। রাজ্য সরকার ও মেট্রো রেল কতৃপক্ষের মধ্যে আলোচনা হলে তার কোনো সঠিক সমাধান না হওয়ায় মেট্রো রেল চালু করা সম্ভব নয়।

আরও পড়ুনঃ ২০ হাজার কর্মসংস্থান, উচ্চমাধ্যমিক পাশ হলেই মিলবে কাজের সুযোগ

নবান্ন সূত্রে খবর, মেট্রো রেল কতৃপক্ষের পক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রেল চালানো সম্ভব নয়। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে মেট্রো রেল চালানো সম্ভব নয়। কেবল মাত্র আরপিএফ দিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যাবে না। ফলে এতে আরও বিপদের আশঙ্কা বাড়তে পারে।

ফলে সব দিকে ভেবে চিন্তে রেল মন্ত্রকের নির্দেশিকা মেনে ১২ই অগাস্টের আগে চলবে না মেট্রো।

আরও পড়ুনঃ বাতিল হল রাজ্যের ১৭ জোড়া মেল, প্যাসেঞ্জার ট্রেন, জানুন সেগুলি কী

বাতিল হল রাজ্যের ১৭ জোড়া মেল, প্যাসেঞ্জার ট্রেন, জানুন সেগুলি কী

Indian Railways

দেশ জুড়ে দীর্ঘদিন ধরে লকডাউন চলতে থাকায় দেশের রেল পরিসেবা একেবারে স্তব্ধ হয়ে পড়েছে। থমকে গেছে গোটা দেশের যানবাহন ব্যবস্থা। ফলে ভরতীয় রেলকে দেখতে হচ্ছে এক বড় অঙ্কের ক্ষতি।

তবে বেশ কিছু সময় ধরে দূর পাল্লার ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা ছিল দেশ জুড়ে। ৭০ টি ট্রেনের কথা ভেবে ছিল কেন্দ্রীয় রেল। তার মধ্যে ৩৪ টি ছিল পূর্ব ভারতের। কিন্তু শেষে ১৭ টি ট্রেনের তালিকা প্রকাশে আসে। তাদের মধ্যে ১০ জোড়া ছিল মেল এক্সপ্রেস ও ৭ জোড়া ছিল প্যাসেঞ্জার ট্রেন।

আরও পড়ুনঃ ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে চালু হল কেন্দ্রের নতুন নিয়ম

তালিকা এসে পৌঁছে গেছে কোন কোন ট্রেন বন্ধ হতে চলেছে। তবে যে ট্রেন গুলি চলছে সেই ট্রেন চলতে থাকবে যতক্ষন পর্যন্ত বন্ধ করার আদেশ আসছে। এই তালিকাতে রয়েছে পঞ্জাব, দিল্লি, রামপুরহাট-এর একাধিক ট্রেন। ট্রেনের বেসরকারি করণের দিকে জোড় বাড়াতেই এই পদক্ষেপ বলে দাবি বিভিন্ন মহলের।

আরও পড়ুনঃ সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

চিনকে জবাব দেওয়া শুরু, পিঠে নয় পেটেই হানা হল প্রথম আঘাত

Indian Railways

বুধবার ঘটে যাওয়া হামলার যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল ভারত। উপযুক্ত জবাব দেবে বলে জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাই সামরিক পথে নয় জবাবটা বানিজ্যিক পথেই দেওয়া হবে তা একেবারে স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দেওয়া হল।

২০১৬ সালে ভারতীয় রেল চিনা সংস্থা, ‘বেজিং ন্যাশনাল রেলওয়ে রিসার্চ অ্য়ান্ড ডিজাইন ইনস্টিটিউট অব সিগনাল অ্যান্ড কমিউনিকেশন গ্রুপ কোম্পানি লমিটেড’ এর সাথে কানপুর-দিন দয়াল উপাধ্যায় শাখার লাইনে কিছু কাজ করার বরাত দিয়েছিল। সেই কাজের মাত্র ২০ শতাংশ সম্পুর্ন করেছিল সেই সংস্থা। মোট ৪৭১ কোটি টাকার চুক্তি হয়েছিল। সেই চুক্তি বাতিল করা হল ভারতীয় রেলের পক্ষথেকে। সিগনাল ঠিক করতে এসে নিজেরাই লাল সিগনাল পেল ভারতীয় রেলের থেকে।

আরও পড়ুনঃ তিনটি নদীর জল বন্ধ করতে চলেছে ভারত, বঞ্চিত হতে চলেছে পাকিস্তান

ঠিক একই ভাবে ভারতীয় টেলিকম শিল্পের অনেকটাই জুড়ে রেখেছে চিনা প্রযুক্তি। ভারত-চিন সংঘর্শের পর চিনা প্রযুক্তি নির্ভরশীল টেলিকম ব্যবস্থায় চিনা প্রযুক্তির ব্যবহার কমানোর পথে হাঁটছে ভারত।

একদিনে বাণিজ্যিক দিক থেকে পুরোপুরিভাবে চিনকে মুছে ফেলা হয়তো সম্ভব নয়। তবে এই ভাবে একে একে সমস্ত বিভাগ থেকে ভারতথেকে মুছে ফেলে ও স্বদেশী জিনিসের উৎপাদনের প্রতি জোর দিলেই চিনকে সায়েস্তা করা যেতে পারে।

আরও পড়ুনঃ মাত্র ৯৫ টাকাতে বিক্রি হচ্ছে একটি গোটা বাড়ি, ইতালির শহর চিনকুইফ্রন্ডে

সম্পূর্ণভাবে তৈরি হল ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন, টুইট করলেন রেলমন্ত্রী

Phoolbagan Metro Station

কলকাতাঃ ইস্ট ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের কাজ বহু দিন ধরেই চলছিল। আর কয়েকমাস আগেই তা উদ্বোধন হয়ে গিয়েছিল। ফলে এখন সল্টলেক সেক্টর ফাইভ থেকে সল্টলেক স্টেডিয়াম পর্যন্ত প্রায় ৪.৮৮ কিলোমিটার মেট্রো রেল চলাচল করছে। আগামী দু’বছরের মধ্যেই প্রাণ ১৬.৫ কিলোমিটার পথ তৈরির পথে ভারতীয় রেল। তার জেরেই জোর কদমে কাজ চলছে এই করোনা মহামারীর মধ্যেও।

তার মধ্যেই ফুলবাগান মেট্র স্টেশনটি সম্পূর্ণ করে ফেলেছে সেই কথাই টুইট করে জানালেই কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল। টুইটে সেব কয়েকটা ছবিও পাঠিয়েছেন তিনি। দেখে নিন সেই ছবি গুলিঃ

আরও পড়ুনঃ শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন থেকে মিলল প্রচুর সোনা ও টাকা, উত্তেজনায় খড়গপুর

এই টুইট তিনি বলেন, “কলকাতার পূর্ব-পশ্চিম মেট্রো করিডোরের সম্প্রসারণের কাজ চলছে , এর অধীনে করিডোরের প্রথম ফুলবাগান স্টেশন হবে ভূগর্ভস্থ স্টেশন। এই স্টেশনটি শহরের কেন্দ্র থেকে অন্যান্য বড় বড় স্থানে প্রচুর সংখ্যক যাত্রীর চলাচলকে জোরদার করবে।”

আরও পড়ুনঃ এবার বাদুড়িয়া থেকে গ্রেফতার রাজ্যের প্রথম মহিলা জঙ্গি

শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন থেকে মিলল প্রচুর সোনা ও টাকা, উত্তেজনায় খড়গপুর

recovered huge amount of gold cash from shramik special train passenger

শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনেই ধরা পড়ল বিপুল সোনা ও নগদ টাকা। এক ব্যক্তি ভুবনেশবর রাজধানী শ্রমিক স্পেশাল এক্সপ্রেস এর কামরাতে স্পরিবার সহ প্রায় এক কিলো সোনা ও নগদ ১১ লক্ষ টাকা নিয়ে ট্রেনে সফর করছিল। সেই খবর রেল সুরক্ষা বাহিনীর জওয়ানরা পেলে খড়গপুরের হিজলী স্টেশনে ওই ব্যক্তিকে আটোক করে। পুলিশ ওই ব্যক্তির থেকে টাকা ও সোনা উদ্ধার করে।

আরও পড়ুনঃ ফুলশয্যার রাতেই নববধূকে নৃশংস ভাবে খুন করল স্বামী

জানা যায় ওই ব্যক্তি ঘাটালের বাসিন্দা। সপরিবার সহ সেই ব্যক্তি দিল্লি থেকে ফিরছিলেন। তদন্তে এত নগদ টাকা ও সোনার সঠিক কাগজ না দেখাতে পারায় পরিবার সহ তাকে খড়গপুরের হিজলী স্টেশনে আটক করে রেলের সুরক্ষা বাহিনী।

দেশের এমতো অবস্থাতে মানুষের আর্থিক সংকট চরমসীমাতে পৌঁছে গেছে। এর মাঝে ওই ব্যক্তি এত টাকা ও সোনা কোথা থেকে পেল তাই এখন জল্পোনার বিষয়। এই খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় খড়গপুরে।

আরও পড়ুনঃ এবার বাদুড়িয়া থেকে গ্রেফতার রাজ্যের প্রথম মহিলা জঙ্গি

৩০ জুন পর্যন্ত স্থগিত থাকছে ট্রেন চলাচল, জানালো রেলমন্ত্রক

Indian Railways

নয়াদিল্লিঃ করোনার জেরে গোটা দেশ এখন নাজেহাল। আমাদের দেশেও দিন দিন বেড়ে চলেছে করোনা। এই করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচতে দেশে চলছে লকদাউন। এখন চলছে তৃতীয় দফার লকডাউন। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস ছাড়া প্রায় সবই বন্ধ।

আরও পড়ুনঃ আলিপুর পুলিশ ক্যান্টিনে মিলল কর্মীর মৃতদেহ, চলছে পুলিশি তদন্ত

এই লকদাউনের কারণে নিয়মিতভাবে ট্রেন চলাচল স্থগিত করা হল ৩০ জুন পর্যন্ত। তবে রেলমন্ত্রক জানালো শুধুমাত্র বিশেষ ট্রেনগুলি চলবে। নিয়মিত যাত্রী পরিষেবার জন্য সমস্ত টিকিট বাতিল করা হয়েছে। সমস্ত যাত্রীদের টিকিট বুকিং-এর টাকা ফেরত দেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের উড়েছে ঘুম, গিলগিট ও বালুচিস্তানের অফিসিয়াল ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট খুললো ভারত

অবশেষে চালু হচ্ছে যাত্রীবাহী রেল, টিকিট বুকিং শুরু হয়ে গেছে

Indian Railway

প্রায় ২ মাস হতে চলল দেশে লকডাউন। লকডাউনের জেরে ট্রেন বন্ধ। শ্রমিক স্পেশাল ও পণ্যবাহী ট্রেন চলা শুরু হলেও যাত্রীবাহী ট্রেন এখনও চালু করেনি কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রক আগামী মঙ্গলবার থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চালানো শুরু করলো।

আরও পড়ুনঃ অটোতে মহারাষ্ট্র থেকে উত্তরাখণ্ড, পজিটিভ ২,

মঙ্গলবার থেকে ১৫ জোড়া ট্রেন চলবে। যেগুলি দিল্লি থেকে হাওড়া সেকেন্দ্রাবাদ ভুবনেশ্বর রাঁচি মুম্বই চেন্নাই বেঙ্গালুরু সহ বেশ কয়েকটি রুটে চলবে ট্রেন। সোমবার বিকেল থেকে ট্রেন এর যাত্রীরা টিকিট বুকিং করতে পারবেন। টিকিট কাউন্টার খুলবে না আপাতত।

আরও পড়ুনঃ তবলিগি জামাতের প্রধানের ওপর চলছে তদন্ত, নজরে ৩০ টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট

যাত্রীরা আইআরসিটিসির ওয়েবসাইট থেকে টিকিট কাটতে সক্ষম হবেন।বেশ কয়েকটি নিয়ম মানতে হবে যাত্রীদের। যাত্রীরা একা ছাড়া পরিবারের সদস্য নিয়ে উঠতে পারবেন না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে ও মাস্ক পরে উঠতে হবে ট্রেনে।