সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

cbse-class-10-students-exams-cancelled

কলকাতাঃ ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ শ্রেণীর ফল প্রকাশ। আজ সুপ্রিম কোর্টে আজ মামলার শুনানি ছিল। সেই মামালাতে সিবিএসই-র দশম-দ্বাদশ বাকি পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করার নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

সূত্রের খবর-এ জানা গেছে কীভাবে পরীক্ষার মুল্যায়ন হবে তার ফর্মুলাও জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে সিবিএসই বোর্ড।

আরও পড়ুনঃ মুখে অজস্র মৌমাছি নিয়ে চার ঘন্টা! গিনেস বুকে খেতাব পেলেন কেরলের তরুন

জেনে নিন সেই ফর্মুলাঃ

কেউ তিনটি পরীক্ষা দিলে তার যে দুটি পেপার ভালো হয়েছে তার গড়ের হিসাবে মিলবে বাকি বিষয়ের নম্বর।


তিনটি বিষয়ের বেশি পরীক্ষা দিলে সেই তিন পেপারের সর্বোচ্চ গড় অনুযায়ী নম্বর দেওয়া হবে।


একটি পরীক্ষা দিলে আগের পরীক্ষার ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে।মুল্যায়ণ করা হবে অভ্যন্তরীণ ফলাফলের উপর ভিত্তি করে।


যোগ করা হবে প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার গড়।

কোনোও ছাত্র-ছাত্রী তার প্রাপ্ত নম্বর-এ সন্তুষ্ট না হলে সে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবে আবার। যে পরীক্ষার তারিখ পরে ঘোষিত হবে।

আরও পড়ুনঃ রাজস্থান সরকার ৯ ও ১১ ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রীদের পাস করিয়ে দিল

৩ জঙ্গি নিকেশ, পুলিশকর্মী ও ১ জওয়ান আহত, এনকাউন্টার এখনও জারি

Indian Army

শ্রীনগরঃ নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে ৩ জঙ্গি নিহত। এখনও তাদের পরিচয় জানা যায়নি। এখনও দক্ষিণ কাশ্মীরের ত্রালে জারি রয়েছে গুলির লড়াই। ভারতীয় সেনার ৪২ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস (Indian Army’s 42 Rashtriya Rifles), সিআরপিএফ Central Police Reserve Force (CRPF) এবং এই অভিযান চলছে রাজ্য পুলিশের নেতৃত্বে। জঙ্গিরা যে লুকিয়ে আছে, এই খবর পাওয়া মাত্র শুরু হয় চিরুণি তল্লাশি। বাহিনির অভিযান শুরু হয় ত্রালের ছিওয়া উল্লার জুড়ে। গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছে।

এনকাউন্টার শুরু হয় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যে থেকে। জঙ্গিরা বাহিনীর গুলির প্রতুত্তর করে। গুলির লড়াই চলে দীর্ঘক্ষণ ধরে। একটি বাড়ি ভেঙ্গে গেছে সম্পুর্ণভাবে।

আরও পড়ুনঃ এবার বেসরকারি সংস্থাও বানাতে পারবে মহাকাশ অভিযানের রকেট

প্রথমে পুলিশ পক্ষ থেকে জানানো হয় ট্যুইট করে, এক অজ্ঞাত পরিচয়ের জঙ্গি নিহত হয়েছে, এখনও গুলির লড়াই জারি রয়েছে। এরপর জানা গেছে নিহত জঙ্গির সংখ্যা বেড়ে হয়েছে তিন।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ, সর্বদল বৈঠকের পর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

জঙ্গিদের পাশাপাশি আহত হয়েছেন এক সেনা জওয়ান ও এক পুলিশকর্মী। গুলির লড়াই এখনও জারি আছে। এদিকে চিন সিমান্তে উত্তেজনা রয়েছে, অন্যদিকে কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াই চলছে সেনাদের।

৬ রাজ্যের জন্য ৫০ হাজার কোটি টাকার মেগা প্রকল্প মোদীর

Prime Minister Narendra Modi

নয়াদিল্লিঃ লকডাউনের জেরে কাজ হারানো পরিযায়ী শ্রমিকদের রোজগারের জন্য ৫০ হাজার কোটি টাকার মেগা প্রকল্প করলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রকল্পের নাম, গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান, এই প্রকল্পটি আজ লঞ্চ করছেন প্রধানমন্ত্রী। এই প্রকল্প হল, করোনার জেরে বাড়ি ফিরে আসা লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিকের জন্য। এই শ্রমিকদের জন্য কর্মসংস্থান তৈরী করা হবে, যাতে তাঁরা সরকারি প্রকল্পে নিশ্চিত কাজের সুযোগ পান।

বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার ও উপমুখ্যমন্ত্রী সুশীল মোদীর উপস্থিতিতে এই মেগা সরকারি প্রকল্পের উদ্ধোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ সময়ের আগেই বড় ঘোষণা রেকর্ড গড়ল জিও

কেন্দ্রীয় গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানঃ ১২৫ দিন ধরে ৬ টি রাজ্যের ১১৬ টি জেলায় পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্য করা হবে। তাদের জন্য কাজের ব্যবস্থা করা হবে স্কিল অনুযায়ী। বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড ও ওড়িশা এই ৬ রাজ্যের ১১৬ টি জেলা এই প্রকল্পটির আওতায় থাকছে। লকডাউনকালীন সবচেয়ে বেশি শ্রমিক ফিরেছে এই রাজ্যগুলিতেই।

আরও পড়ুনঃ গালওয়ান নদী বন্ধ করতে বোল্ডার ফেলছে চিন, ধরা পড়েছে স্যাটেলাইট চিত্রে

অস্ত্র বহনকারী পাকিস্তানি ড্রোন গুলি করে নামাল বিএসএফ জওয়ান

Pakistani Drone

শনিবার সকালে সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী (বিএসএফ) জম্মু ও কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলায় আন্তর্জাতিক সীমান্তের সীমান্ত ফাঁড়িতে (বিওপি) পানসারে অস্ত্র বহনকারী এক পাকিস্তানি গুপ্তচর ড্রোনকে গুলি করে নামান হয়েছে।

প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুসারে, ভোর ৫ টা ১০ মিনিটের দিকে, বিএসএফের হিরানগর বিওপি পানসারের দায়িত্বপ্রাপ্ত (এওআর) অঞ্চলে পাকিস্তানের গুপ্তচর ড্রোনটি চিহ্নিত করা হয়েছিল।

সূত্র অনুযায়ী, এসআই দেবেন্দর সিং 8 রাউন্ড গুলি চালিয়ে সেই অস্ত্র বহনকারী ড্রোনটিকে নামায়।

গালওয়ান নদী বন্ধ করতে বোল্ডার ফেলছে চিন, ধরা পড়েছে স্যাটেলাইট চিত্রে

Indian Army

গালওয়ান নদীর গতিপথ বন্ধ করতে অথবা প্রবাহ ঘুরিয়ে দিতে মরিয়া চিন। নদীর গতিপথ আটকাতে বুল্ডোজার দিয়ে ফেলা হয়েছে প্রচুর মরিমানে পাথর। এমনই জানাযাচ্ছে এক সূত্র মারফৎ। সোমবার রাতে চিনা সেনার সাথে ভারতীয় সেনার যেখানে যুদ্ধ হয়েছিল এই এলাকা সেখান থেকে বেশি দূরে নয়। সামান্য দূরত্বের মধ্যেই এমন কান্ডকারখানা চালিয়েছে চিন। বুধবার মধ্য রাতে সামরিক বৈঠক হয়। কিন্তু দফায় দফায় বৈঠক হলেও চিনা সেনাবাহিনী সরাতে কোনো উদ্যোগ দেখায়নি বেজিং।

স্যাটেলাইট চিত্রে একটি ছবি ধরা পড়েছে যেখানে স্পষ্ট ধরা পরে নদীর গতিপথের ছবি। কিন্তু সেই ছবি অনুযায়ী নদীতে কোনও জল দেখা যায় না। নদীর অপরেই নির্মাণ কাজ চালাচ্ছে চিন।

আরও পড়ুনঃ ভারত-চীন সীমান্তে সংঘর্ষ, নিহত কর্নেল ও দুই সেনা

স্যাটেলাইট চিত্রে স্পষ্ট হচ্ছে যে চিন বুল্ডোজার নিয়ে হাজির ছিল গালওয়ান উপত্যকায়। প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে সামরিক কনভয় ছিল। কয়েক জায়গাতে চিনা সেনার তাবুও ফেলা হয়েছে বলে যানা যাচ্ছে।

চিন-ভারতের সেনাদের সংঘর্শে ভারতের ২০ জন সেনা প্রাণ প্রাণ হারায় ও তার সাথে বহু জওয়ান জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি।

আরও পড়ুনঃ বাঙালি বিজ্ঞানীর কথাই কি তবে ঠিক, ভারতে ২১ লাখ সংক্রমণ জুলাইয়ের মধ্যে!

রেকর্ড গড়ে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ২ হাজারের বেশি, আক্রান্ত ৩ লক্ষ ছাড়াল

coronavirus-death-troll-increasing

প্রতিদিন মানুষ করোনার কবলে পড়ছে। সাথে মারাও যাচ্ছে। একটা করে দিন পার হচ্ছে আর তার সাথে বেড়ে যাচ্ছে আক্রান্ত ও মারা যাওয়ার হার। এবার দৈনিক মৃতের সংখ্যা ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে দেশের কোনে কোনে। গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে ভারতে করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২০০৩ জনের। এর আগে এক দিনে ২ হাজার জনের মৃত্যুর খবর আশেনি। এবার সেটা হল। ফলে গোটা দেশে মৃতের মোট সংখ্যা বেড়ে দাড়াল ১১,৯০৩ জন।

আরও পড়ুনঃ দেওরের এই পরিণতি না মানতে পেরে, মৃত্যু হল সুশান্তের বৌদির

জুন মাসের শুরু থেকেই দেশে আক্রান্ত হওয়ার হার অতিরিক্ত ভাবে বেড়ে গিয়েছিল। সেই হার প্রতি দিন বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘন্টার মধ্যে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে ১০,৯৭৪ জন। তার সাথে দেশে মোট করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাড়াল ৩ লক্ষ ৫৪ হাজার ৬৫ জন। স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়েছে ১ লক্ষ ৮৬ হাজার ৯৩৫ জন। এর সাথে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ২২৭ জন।

সবথেকে বেশি সংখ্যক আক্রান্তের সংখ্যা দেখা যাচ্ছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি, তামিল নাড়ুতে।

আরও পড়ুনঃ ভারত-চীন সীমান্তে সংঘর্ষ, নিহত কর্নেল ও দুই সেনা

ভারত-চীন সীমান্তে সংঘর্ষ, নিহত কর্নেল ও দুই সেনা

india-China border Conflict

নয়াদিল্লিঃ সীমান্ত নিয়ে ভারত ও চীনের মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ কথা বারবারই সামনে আসছিল। এবার সরাসরি সংঘর্ষ হল চীন ও ভারতের মধ্যে। ভারতীয় সেনা এই তথ্য প্রকাশ করলো। সেনার বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সোমবার লাদাখে ভারত ও চীনের সংঘর্ষে দুই সেনা ও এক কর্নেলের মৃত্যু হয়।

আরও জানানো হয়েছে, সোমবার রাতেও ভারত ও চীন সেনার সংঘর্ষ হয় মুখোমুখি। সেনার তরফে বৈঠক আয়োজন করা হয়েছে। এই পরিস্থিতি-কে নিয়ন্ত্রণ কিভাবে করা যায় তা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। বৈঠকে রয়েছেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর, চিফ অফ দ্যা আর্মি স্টাফ বিপিন রাওয়াত।

আরও পড়ুনঃ কলকাতায় পেট্রোলের দাম পেরোল ৭৮ টাকা, মাথায় হাত শহরবাসীর

এপ্রিল মাস থেকেই লাদাখ সীমান্তে স্নায়ুযুদ্ধ চলছে। ভারত ও চীন দু’পক্ষই দফায় দফায় সেনা মজুত করে সীমান্তে। পেট্রোলিং চলতে থাকে। দিন কয়েক আগে প্যাংগং অঞ্চলে একদফা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ চলে। তবে তাতে মৃত্যুর কোনো খবর পাওয়া যাইনি। এই প্রথম চীনের সাথে সংঘর্ষে ভারতীয় সেনার মৃত্যু হল।

আরও পড়ুনঃ তিনটি নদীর জল বন্ধ করতে চলেছে ভারত, বঞ্চিত হতে চলেছে পাকিস্তান

ভারতের জায়গা নিয়ে নতুন মানচিত্র নেপাল পার্লামেন্টের

New map of Nepal Parliament

কাঠমাণ্ডুঃ নেপালের মানচিত্রে ভারতের জমি। বুধবার নেপাল সরকারের তরফ থেকে সংবিধান সংশোধন বিল পাশ করলো। ভারতীয় সরকার এই ঘটনাতে ক্ষুদ্ধ রীতিমত। ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের তরফ থেকে বলা হয়েছে, নেপাল যেটা করেছে তার কোনো ঐতিহাসিক ভিত্তি নেই। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ভারতের জায়গাকে নেপাল নতুন মানচিত্র তাঁদের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে পাশ করিয়েছে তা অত্যন্ত নিন্দাজনক। তার কারণ এর কোনো ঐতিহাসিক ভিত্তি নেই। নেপালের নতুন মানচিত্র গ্রহণযোগ্য নয় একেবারেই। নেপালের সাথে যে সিমান্ত সমঝোতা আছে, তাকে বিঘ্নিত করতে পারে এই ঘটনা।

আরও পড়ুনঃ মাত্র ৯৫ টাকাতে বিক্রি হচ্ছে একটি গোটা বাড়ি, ইতালির শহর চিনকুইফ্রন্ডে

লিপুলেখ ও কালাপানি এই দুই জায়গা নেপালের বলে দাবি করা হচ্ছে। এই দুই জায়গা নিয়েই বিবাদ শুরু আবার নতুন করে। এই বিবাদের সুত্রপাত ২০১৯ থেকেই।

আরও পড়ুনঃ এবার বাদুড়িয়া থেকে গ্রেফতার রাজ্যের প্রথম মহিলা জঙ্গি

খোঁজ মিলেছে নীরব মোদীর গুপ্তধনের, উদ্ধার কোটি কোটি টাকার সম্পদ

Indian Businessman

সন্ধান মিলল রত্নব্যবসায়ী নীরব মোদীর লুকিয়ে রাখা গুপ্তধনের। ব্যাংককের একটি গোডাউনের সন্ধান পাওয়া গেছে। সেই গোডাউন থেকেই উদ্ধার হয়েছে প্রায় ১৩৫৯ কোটি টাকার ধনরত্ন।

তদন্তকারী সংস্থার দাবী, নীরব মোডীর ব্যাংককের ওই গোডাউন থেকে তাঁরা ১০৮ টি জিনিস দেশে নিয়ে এসেছে। সেই জিনিসের আনুমানিক ওজন ২ কিলো ৩ শত ৮০ গ্রাম। সেই গোডাউনে মজুত ছিল পালিশ করা হীরা, রুপার গহনা, ও প্রচুর পরিমানে মুক্তা। যার বাজার মূল্য ক্যেক কোটি টাকারও বেশি। ব্যাংককের এই গোডাউন নীরব মোদী ও তার মামা একত্রিতভাবে চালাতো।

আরও পড়ুনঃ বাঙালি বিজ্ঞানীর কথাই কি তবে ঠিক, ভারতে ২১ লাখ সংক্রমণ জুলাইয়ের মধ্যে!

এই সেই নীরব মোদী যে বেশ কিছু বছর আগে ভারতের পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক থেকে মোট ২৩, ৭৮০ কোটি টাকা জালিয়াতি করে দেশ থেকে পালিয়ে গিয়েছিল। আর তাই বেশ কিছু দিন আগে ভারতীয় সরকার নীরব মোদীর সমস্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত আগেই করেছে। আর এই বার হাতে এল ব্যাংককের গোডাউন। এর আগেও দুবাই ও হংকং থেকে ৩৩ টি খুবই মুল্যবান জিনিস উদ্ধার করা হয়েছিল। যার মূল্য ছিল প্রায় ১৩৭ কোটি টাকা। আগামী দিনে এই নীরব মোদী ও তার মামা মেহুল চোকসিকে দেশে ফেরানোর প্রচেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুনঃ সম্প্রতি মুক্তি পেল রহস্যে ভরপুর ‘পেঙ্গুইন’ ছবির টিজার

বাঙালি বিজ্ঞানীর কথাই কি তবে ঠিক, ভারতে ২১ লাখ সংক্রমণ জুলাইয়ের মধ্যে!

does bengali scientist is right, 21 lakh infections in India in July!

‘হু’ সতর্ক করে বলেছিল ভারত সহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলিতে বাড়তে চলেছে করোনা সংক্রমন। দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মঙ্গলবার বললেন তাদের অনুমান যে জুলাইয়ের শেষের মধ্যে আরও ৫ লক্ষ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হতে চলেছে। বাঙালি বিজ্ঞানী ভ্রমর মুখোপাধ্যায় যা অনুমান করেছিলেন তাই ফলতে চলেছে। জুলাই মাসের মধ্যেই ২১ লক্ষ ছাড়াবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ভারতে। এবং এরপর থেকে ১৩ দিনে দ্বিগুণ হবে আক্রান্তের সংখ্যা।

আরও পড়ুনঃ দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ৭৬ হাজার

করোনায় সংক্রমণের সংখ্যার নিরিখে ভারত ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে পৃথিবীর মধ্যে। ভ্রমর মুখোপাধ্যায় জানান, তাঁরা ১৬ মার্চ থেকে গবেষণা করেছেন বিষয়টি নিয়ে। প্রথমে তাঁরা বলেন, এপ্রিল,মে মাসে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াবে ১ লক্ষ, এবং ক্রমেই বাড়বে সংক্রমণ

ভ্রমরের অনুমান জুন মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে দিল্লিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে ৪৪ হাজার। দিল্লি প্রশাসনের অনুমান ৩০ জুনের মধ্যে দিল্লিতে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়াবে ১ লক্ষ। দিল্লিতে জুলাই মাসের শেষে আক্রান্ত হবে সাড়ে পাঁচ লক্ষ, মনে করছে প্রশাসন। অন্তত ৮০ হাজার নতুন শয্যা লাগবে।

আরও পড়ুনঃ সম্প্রতি মুক্তি পেল রহস্যে ভরপুর ‘পেঙ্গুইন’ ছবির টিজার