বদলে গেল ৩৪ বছরের শিক্ষানীতি, শুরু হল নতুন যুগের শিক্ষাব্যবস্থা

Indian Students

নয়াদিল্লিঃ ৩৪ বছরের শিক্ষানীতিকে বদলে ফেলে শিক্ষাক্ষেত্রে বড় পরিবর্তনের পসক্ষেপ নিল মোদি সরকার। বুধবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে ছাড়পত্র পেল নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি। এর জন্য দেশের পড়াশোনার নিয়মে বড়সড় বদল আসতে চলেছে। সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হওয়ার আগেই এই নীতি প্রণয়ন করতে চায় কেন্দ্র।

ক্যাবিনেট ব্রিফিংয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাফড়েকর ও কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতে বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশ মেনে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০২০-কে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গত ৩৪ বছর ধরে দেশের এডুকেশন পলিসির কোনও সংস্করণ করা হইনি। এই নয়া শিক্ষানীতি।

আরও পড়ুনঃ ধূমপায়ী মানুষের করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কয়েক গুন বেশি, জানালো কেন্দ্র

এই নতুন শিক্ষানিতিতে গুরুত্ব হারাতে চলেছে দশমের বোর্ড পরীক্ষা। এই নতুন শিক্ষানীতিতে মাধ্যমিক গুরুত্বহীন। নবম-দ্বাদশ শ্রেনী পর্যন্ত স্কুলে হবে ৮টি সেমিস্টার। একাদশ-দ্বাদশ কোনও আলাদা বাণিজ্য, বিজ্ঞান, কলা আলাদা করে কোনো স্ট্রিম থাকবেনা। স্নাতক তিন বছরের বদলে চার বছর হবে। এই নতুন শিক্ষানীতিতে থাকছে না এমফিল। পঞ্চম পর্যন্ত পড়ুয়ারা মাতৃভাষায় পড়তে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ দু’দিন প্রবল বৃষ্টি উত্তরবঙ্গে! বৃষ্টির পূর্বাভাস কলকাতাতেও

কাশ্মীরের সোপিয়ানে ৩ জঙ্গিকে খতম করলো সেনা জওয়ান

Indian Army

শ্রীনগরঃ আজ ভোরে জম্মু-কাশ্মীরের সোপিয়ানের আমসিপোড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ৩ জঙ্গিকে খতম করলো সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনী। সেনার ৬২ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ছাড়াও এতে অংশ নেয় সিআরপিএফ ও কাশ্মীর পুলিশ। এখনও সংঘর্ষ চলছে।

আমসিপোড়া গ্রামে কয়েকজন জঙ্গি লুকিয়ে আছে, এই খবর পেয়ে সেনা ও নিরাপত্তা বাহিনী শেষরাতে গ্রামটিকে ঘিরে ফেলে। এই নিয়ে কাশ্মীর উপত্যকায় গত ২৪ ঘণ্টায় দু’বার সংঘর্ষ হল। শুক্রবার ভোরে কুলগ্রাম জেলার নাগনাদ চিমার এলাকায় ৩ জৈশ ই মহম্মদ জঙ্গি নিহত হয়।

আরও পড়ুনঃ ৩৭৫ জন স্বেচ্ছাসেবীর উপর শুরু হল কোভ্যাক্সিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল

এই জঙ্গিদের মধ্যে একজন ছিল জৈশের শীর্ষস্থানীয় কমান্ডার আইইডি বিশেষজ্ঞ, তবে এই সংঘর্ষে ৩ সেনা জওয়ানও জখম হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ এবার হাসপাতালে ভর্তি হলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন ও তাঁর কন্যা আরাধ্যা

দু’দিনের লাদাখ ও কাশ্মীর সফরে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

defense Minister Rajnath singh

নয়াদিল্লিঃ লাদাখ ও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রন রেখা ও সীমান্তের নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে দু’দিনের সফর শুরু করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। এদিন লাদাখে পৌছে গিয়েছেন তিনি, লাদাখের নিয়ন্ত্রণ রেখার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন তিনি। এই সফরে তাঁর সঙ্গে রয়েছে, চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত এবং সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারভানে।

লাদাখে নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারত ও চিনের মধ্যে উত্তেজনা শুরু হওয়ার পর দিল্লিতে সেনা কর্তাদের সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করে পরিস্থিতি সম্পর্কে বিশদে আলোচনা করেছেন রাজনাথ সিং।

আরও পড়ুনঃ নিজেকে ঈশ্বরের কাছে সমর্পণ করেছেন, বললেন বিগ বি

এবার তিনি সরাসরি লাদাখে গিয়ে নিয়ন্ত্রণরেখার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন তিনি। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহেই লাদাখে যাওয়ার কথা ছিল প্রতিরক্ষামন্ত্রীর। কিন্তু আচমকাই তাঁর বদলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সেখানে পৌছে যায়।

আরও পড়ুনঃ ১ আগস্ট থেকে ট্যাক্সিতে উঠলেই ভাড়া ৫০ টাকা

Google এর বড় ঘোষণা! ভারতে ৭৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ, জানালেন পিচাই

Narendra Modi and Google CEO Sundar Pichai

ভারতে বারে বারে বিদেশী অর্থ লগ্নি হয়ে চলেছে। কিছু দিন আগেই রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রির জিও তে বেশি কিছু বিদেশী কোম্পানি বিপুল পরিমানে অর্থ লগ্নি করে ছিল। আর এবার বিশ্বের সব থেকে বড় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থ্যা Google- এর তরফ থেকে ভারতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে আগামী ৫ থেকে ৭ বছরের মধ্যেই ১০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার (ভারতীয় মুদ্রাতে ৭৫ হাজার কোটি টাকা) বিনিয়োগ করবে Google। সেই কথা জানালেন গুগলের সিইও সুন্দর পিচাই।

জানা গিয়েছে, এই বিপুল পরিমান অর্থ ইক্যুইটি ইনভেস্টমেন্ট, ইনফ্রাস্ট্রাকচার, ইকোসিস্টেম ইনভেস্টমেন্ট, পার্টনারশিপ ও অপারেশনাল – সহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ করতে চলেছে গুগল।

আরও পড়ুনঃ রেকর্ড গড়ল ভারত, এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের সূচনা হল

ডিজিটাল ভারতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ৪ টি মূল বিষয়ের উপর গুরুত্ব দিচ্ছে গুগল। তাদের লক্ষ প্রত্যেক ভারতবাসী নিজের ভাষায় তথ্য প্রদান, নতুন পরিষেবা ও প্রডাক্ট তৈরি, ব্যবসা ও কৃষি, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ক্ষেত্রে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের সাহায্যে উন্নতি করণ।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সুন্দর পিচাইএর কথা হয় এই সব বিষয় নিয়ে।

আরও পড়ুনঃ মাত্র ৯৫ টাকাতে বিক্রি হচ্ছে একটি গোটা বাড়ি, ইতালির শহর চিনকুইফ্রন্ডে

রেকর্ড গড়ল ভারত, এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পের সূচনা হল

Asia's Largest Solar Power Project

গোটা বিশ্ব এখন করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দেখছে। ভারতের পরিস্থিতিও ভাল নয়। প্রতি দিন বেড়ে চলেছে করোনার আক্রমণ। আবার অন্য দিকে দেশের সীমান্তে চিনের আগ্রাসন। এরই মাঝে ভারত গড়ল এশিয়ার বৃহত্তম সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্ক। আজ তারই উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এই সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রটি মধ্যপ্রদেশের রেওয়া জেলায় তৈরি করা হয়েছে। ১৫৯০ একর জমির গড়ে তোলা হয়েছে এই প্রকল্প। জানা গিয়েছে, এই সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র থেকে প্রায় ২৪ শতাংশ বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে দিল্লি মেট্রো রেলে।

আরও পড়ুনঃ এবার INSTAGRAM ব্যবহারকারীদের জন্য আসছে TIKTOK-এর মতো ফিচার!

এই সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্পটি উদ্বোধনের ফলে ভারত এখন বিশ্বে ৫ তম সৌরশক্তি উৎপাদন দেশের তালিকাতে উঠে এল। এই প্রকল্পে মোট খরচ হয়েছে ৪৫০০ কোটি টাকা ও আরও ১৮৩ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে আরও কিছু উন্নয়নের জন্য।

আরও পড়ুনঃ এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় গ্যাংস্টার বিকাশ দুবের

পিছু হঠল চিনা বাহিনী, তাদের গতিবিধির উপর নজর রাখছে ভারতীয় সেনা

india-China border Conflict

লাদাখঃ অবশেষে গালওয়ান উপত্যকায় চিনা বাহিনী পিছু হটল। একই সাথে পিছু হটেছে ভারতীয় সেনাও। কয়েকদিন আগেই দুই বাহিনীর মধ্যে কম্যান্ডার স্তরের বৈঠকে সিমান্তে উত্তেজনা প্রশমনে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

সেনা সূত্রকে উদৃধৃত করে এএনআই সংবাদ সংস্থা দাবি করেছে, গালওয়ান নদী সংলগ্ন যে এলাকাগুলি থেকে পিছিয়ে আসার বিষয়ে দু’পক্ষ একমত হয়েছিল, চিনা সেনা সেখান থেকে তাদের তাঁবু, বাহিনী এবং যানবাহন সরিয়ে নিয়েছে। তারা প্রায় ১ থেকে ২ কিলোমিটার পিছিয়ে গিয়েছে। ভারতীয় সেনাও বৈঠকের শর্ত মেনে বেশ কিছুটা পিছিয়ে এসেছে বলে খবর।

আরও পড়ুনঃ রাশিয়াকে পিছনে ফেলে পৃথিবীর তৃতীয় করোনা আক্রান্ত দেশ ভারত

তবে গালওয়ান নদী উপত্যকার গভীরে কয়েকটি জায়গায় চিনা বাহিনীর এখনও সশস্ত্র যানবাহন রয়েছে। ভারতীয় সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে গোটা পরিস্থিতির উপর তারা নজর রাখছে।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে এক দিনেই করোনা আক্রান্ত প্রায় ৯০০! মৃত ২১

এক নজরে দেখে নিন কোন রাজ্যে রয়েছে সব থেকে বেশি সুস্থতার হার

coronavirus

দেশে পূর্বের তুলনায় সুস্থতার হার আগের তুলনায় বেড়েছে। ফলে বহু মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন। আগে যে পরিস্থিতি ছিল সেই পরিস্থিতি কিছুটা হলেও উন্নতি হয়েছে বলে দাবি বিভিন্ন মহলের।

এর মধ্যেই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে এক তথ্য প্রকাশ্যে এল। সেই তথ্যে রয়েছে ১৫ টি রাজ্যের নাম ও কোন রাজ্যে কতো শতাংশ করোনা আক্রান্ত মানুষ সুস্থ্য হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ দেশজুড়ে চালু হতে চলেছে ৯০টি স্পেশাল ট্রেন, দেখে নিন সম্পুর্ন তালিকা

সুস্থ্যের হার আগের তুলনায় বৃদ্ধি পেলেও আক্রান্তের সংখ্যাও বাড়ছে দ্রুত গতিতে।

আরও পড়ুনঃ দেশে ৬ লক্ষ মানুষ করোনা আক্রান্ত, ৯০ শতাংশই এই দশ রাজ্য থেকে

দেশে ৬ লক্ষ মানুষ করোনা আক্রান্ত, ৯০ শতাংশই এই দশ রাজ্য থেকে

before the lockdown 48 hour to infected 5000

ভারতে করোনা তার আসল রূপ দেখাতে শুরু করেছে। ফলে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লক্ষ ছাড়িয়ে গেছে। দেশের প্রতিটি কোনে কোনে এখন করোনা ভাইরাস পৌছে গেছে। সব থেকে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও তামিলনাড়ুতে।

দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,০০,০৩২ জন, রাশিয়ার থেকে মাত্র ৫০,০০০ জন কম। বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় স্থানে রয়েছে রাশিয়া। সংখ্যাটা ব্রাজিলে ১৪ লক্ষেরও বেশি এবং আমেরিকায় কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ২৬ লক্ষেরও বেশি। মহারাষ্ট্রে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা হল ৫,৫৩৭, তামিলনাড়ুতে ৩,৮৮২, এবং দিল্লিতে ২,৪৪২ জন।

আরও পড়ুনঃ চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালো আমেরিকা, উঠল একই দাবি

ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের ৯০ শতাংশই ১০টি রাজ্য থেকে এসেছে, সে রাজ্য গুলির মধ্যে রয়েছে, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, হরিয়ানা এবং কর্নাটক।

আরও পড়ুনঃ ২০ হাজার কর্মসংস্থান, উচ্চমাধ্যমিক পাশ হলেই মিলবে কাজের সুযোগ

লকডাউন বিধি ধীরে ধীরে শিথিল করা হচ্ছে। সোমবার কেন্দ্রীয় সরকার আনলক২-এর ঘোষণা করলেন, এখনও লকডাউনের আওতাও আছে কনটেইনমেন্ট জোনগুলিকে।

চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালো আমেরিকা, উঠল একই দাবি

support America to ban Chinese apps

লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনার আবহতে টিক টক সহ ৫৯টি অ্যাপ সোমবারই নিষিদ্ধ করলো ভারত সরকার। আর এর পর থেকেই গুগল প্লে স্টোর বা অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর কোথাওই এই চিনা অ্যাপ গুলির দেখা মিলছেনা। চিনের এইরকম বাড়াবাড়ি রুখতে ভারতের এই সিদ্ধান্তকে আমেরিকা স্বাগত জানালো।

বুধবার এই বিষয়টি নিয়ে মুখ খুললেন মার্কিন বিদেশসচিব মাইক পম্পেও, তিনি একটি বিবৃতিতে বলেন যে, “চিনা কমিউনিস্ট পার্টির নজরদারি রুখতে এটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হিসাবে কাজ করতে পারে”। তিনি আরও বলেন, “অ্যাপের ক্ষেত্রে নেওয়া এই সিদ্ধান্ত ভারতের সার্বভৌমত্বকে আরও শক্তিশালী করে তুলবে এবং অখণ্ডতা ও জাতীয় সুরক্ষাকে নিশ্চিত করবে।

আরও পড়ুনঃ প্রাতঃ ভ্রমনে আক্রান্ত রাজ্য বিজেপি প্রধান দিলীপ ঘোষ, ভাঙা হল একাধিক গাড়ি

মার্কিন কংগ্রেসের অনেক সদস্যই টিক টক নিষিদ্ধ করার কথা বলেছেন। তাদের দাবি, টিক টকের মত শর্ট ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ দেশের নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক। রিপাবলিকান সেনেটর জন করনিন বলেছেন, লাদাখে সংঘর্ষের পরে ভারত টিক টক সহ বেশ কিছু অ্যাপ নিসিদ্ধ করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেরও এই একই ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

মার্কিন সরকারের আধিকারিকরা তাদের ফোনে যেন টিক টক না রাখেন। সেই নির্দেশ দেওয়া সংক্রান্ত দু’টি বিল মার্কিন কংগ্রেসের বিবেচনাধীন ইতিমধ্যেই। চিনা অ্যাপ ভারত নিষিদ্ধ করার পর সেই বিল এবার পাশ করার দাবি জোরালো হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ বৈঠকে কাটল না জট, ১লা জুলাই চালু হচ্ছে না কলকাতা মেট্রো

ভারত ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেই থেমে নেই, এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজে চিনের ওয়েবো অ্যাপ থেকে অ্যাকাউন্ট সরিয়ে নিলেন। আর এইরকম একটি পদক্ষেপ থেকে তিনি বুঝিয়ে দিলেন যে সর্বোতভাবে চিনকে এবার প্রত্যাখ্যানের দিকেই ভারত এগোচ্ছে।

Zomato-এর কর্মীরা টি শার্ট পুড়িয়ে প্রতিবাদ জানালেন চিনের বিরুদ্ধে

burned T-shirt in protest against China

কোলকাতাঃ ব্যবসায় রয়েছে চিনের বিনিয়োগ। সেই জন্যে তা বর্জন করতে, Zomato-এর বেশ কিছু কর্মী প্রতিবাদ করলেন টি শার্ট পুড়িয়ে। চিনের করা হামলা ও ২০ জন সেনার মৃত্যুতে এভাবেই প্রতিবাদ জানালো বেহালা এলাকার কর্মী। অনেক কর্মী আবার দাবি করেছেন, প্রতিবাদের ফলে তারা চাকরিও ছেড়েছেন। আবার কর্মীরাই খাবার অর্ডার করতে নিষেধ করেছেন এই ফুড ডেলিভারি অ্যাপের মাধ্যমে।

চিন মুনাফা করে আমাদের থেকে, সেই টাকায় আমাদের সেনার উপর আবার হামলাও চালাচ্ছে। জমি কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে আমাদের। এটা হতে পারেনা, এই বক্তব্য এক বিক্ষোভকারীর। তারা না খেয়ে থাকলেও এমন সংস্থায় তারা কাজ করবেনা যেখানে চিনার স্টেক রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ টিকটকে ভিডিও বানাতে গিয়ে তরুনি খেলেন কুকুরের কামড়, ভিডিও ভাইরাল

মে মাসেই প্রায় ৫২০ জন কর্মীকে Zomato ছাঁটাই করেছে। যেটা প্রায় তাদের সংস্থার ১৩ শতাংশের কাছাকাছি। করোনার জন্য কাজ হারিয়েছেন কর্মীরা। এই বিক্ষোভে তারা সামিল কিনা তা জানা যাইনি। এই নিয়ে সরাসরি কিছু জানানো হইনি Zomato-র তরফ থেকে।

আরও পড়ুনঃ সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন