মেদহীন পেট পেতে চাইলে সকাল ৮টার আগে খেতে হবে এই জিনিসটা

reduce belly fat

অনেক মানুষেরই স্বপ্ন মেদহীন পেট, তবে মেদহীন পেট পাওয়ার জন্য যে পরিশ্রম করতে হবে, সেটা অনেকেরই পক্ষে সম্ভব নয় করা। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এমন একটা জিনিস আছে যা সকাল ৮ টার আগে খালি পেটে খেতে হবে। এতে আপনার পেটের মেদ ঝরে যাবে।

আরও পড়ুনঃ রোজ মুড়ি খেলে কী কী উপকার হয় জেনে নিন

বিশেষজ্ঞদের মতে, সারাদিন সব খাবারের মধ্যে ব্রেকফাস্ট সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এক্ষেত্রে এমন একটি খাবার আছে, যেটা সকাল ৮ টার আগে খেলে ঝরে যাবে আপনার পেটের মেদ। সকাল ৮ টার আগে খেতে হবে ২টো ডিম। বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, ডিম রান্না করুন আধ চামচ অলিভ অয়েল দিয়ে। এতে প্রচুর পরিমাণে রয়েছে, ভিটামিন ডি, প্রোটিন ও বায়োটিন।

অনেকেই ভাবতে পারেন ডীমের কুসুম খাবেন কি খাবেন না! ২টো ডিমের কুসুম কোনোও ক্ষতি করবেনা শরীরে। তাই খেতে পারেন কোনো চিন্তা ছাড়াই। তবে আপনার যদি কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকে অবশ্যই পরামর্শ নিন চিকিৎসকের।

আরও পড়ুনঃ বেলিফ্যাট লজ্জায় ফেলছে? কোন খাবারে বাড়ছে আপনার বেলিফ্যাট জেনে নিন

ভুঁড়ি বাড়ছে? তুলসির টোটকায় মেদ ঝরিয়ে ফেলুন ঝটপট

Reduce belly fat

প্রায় আমরা সবাই জানি তুলসি পাতার একাধিক ঔষধি গুনাগুন রয়েছে ও রোগ নিরাময়ের ক্ষমতাও রয়েছে। ছোটখাটো নানা রোগের ওষুধ হিসেবে তুলসি পাতার ব্যবহার হয়ে আসছে। তবে তুলসি পাতার টোটকা পেটের বাড়তি মেদ ঝরিয়ে ফেলতে সাহায্য করে। কষ্টকর শরীরচর্চার বদলে পেটের বাড়তি মেদ কমাতে কাজে লাগিয়ে দেখুন এই তুলসি পাতার টোটকা।

আরও পড়ুনঃ বেলিফ্যাট লজ্জায় ফেলছে? কোন খাবারে বাড়ছে আপনার বেলিফ্যাট জেনে নিন

সর্দি-কাশি তে তো বটেই ও পেটের বাড়তি মেদ ঝটপট ঝরিয়ে ফেলতে অত্যন্ত কার্যকরী তুলসি চা। জেনে নিন তুলসি চা বানানোর উপায়।

প্রথমে একটি পাত্র নিন ও ২ কাপ জল দিয়ে মাঝারি আঁচে বসিয়ে দিন। এরপর জল ফুটে উঠলে তাতে ৩-৪টি তুলসি পাতা দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। এরপর পাত্রের জল কিছুটা শুকিয়ে গিয়ে ১ কাপের মতো হয়ে গেলে নামিয়ে নিন। এবার এর সঙ্গে হাফ চামচ মধু দিয়ে মিশিয়ে খেয়ে নিন। এই তুলসি চা প্রতিদিন অন্তত ২ বার করে খেতে হবে। দ্রুত ঝরবে আপনার পেটের মেদ ও শরীর থাকবে চনমনে।

আরও পড়ুনঃ ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

বেলিফ্যাট লজ্জায় ফেলছে? কোন খাবারে বাড়ছে আপনার বেলিফ্যাট জেনে নিন

Belly fat

বাঙালিরা স্ন্যাক্স প্রিয়। বাঙালিদের মুখরোচক স্ন্যক্সের প্রতি আজন্ম ভালোবাসা। সেই ভালোবাসাই আপনাকে ঘাতক হয়ে ধরা দিচ্ছে। বারবার ফাস্ট ফুড খাওয়া অন্যতম কারণ বেলিফ্যাটের।

অনেকেই তেষ্টা পেলে সফট ডিঙ্কস পান করেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই সফট ডিঙ্কস ক্ষতি করে শরীরে। অতিরিক্ত ক্যালোরি মেদ বাড়িয়ে দেয় আমাদের।

কর্নেল ইউনিভার্সিটির বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, বেশি খাওয়ার প্রবনতা বাড়িয়ে দেয় নেগেটিভ ইমোশান।

একটি জায়গায় দীর্ঘক্ষণ বসে থাকলে বেলি ফ্যাট বাড়ে। তাই যারা বাড়িতে কাজ করেন তাদের এক থেকে দেড় ঘন্টা অন্তর অন্তর ওঠার কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

এর সমাধান হিসাবে নিয়মিত এক্সারসাইজ করার কথা বলছেন পুষ্টিবিদরা। ফুড হ্যাবিট বদলাতে হবে। খেতে হবে টক দই। এতে থাকে গুড ব্যাক্টেরিয়া যা হজম শক্তি ঠিক রাখে। এছাড়াও স্ন্যাক্সের বদলে আমন্ড বা স্যালাড খাওয়ার কথা বলছেন পুষ্টিবিদরা।

আরও পড়ুনঃ ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

মেদ নিয়ে সমস্যায় ভুগছেন, সমাধান আপনার হাতের মুঠোয়

ginger reduce body fat

শরীরের চর্বি কমাতে আদা, লেবু ও মধুর কার্যকারীতা অতুলনীয়। শরীরের মেদ কমাতে দ্রুত সাহায্য করে।

আদা ও লেবু দিয়ে একটি পানীয় তৈরী করতে হবে।

আরও পড়ুনঃ বাড়িতে বসে কিভাবে তৈরি করবেন ফ্রায়েড মোমো

পানীয় তৈরীর উপায়ঃ প্রথমে একটি বাটিতে ১ লিটার জল নিন তারপর জল ফুটলে তাতে আদার কয়েকটা টুকরো ছোট ছোট করে কেটে তাতে দিয়ে দিন, এরপর একটা লেবু মাঝখান দিয়ে কেটে ওতে দিয়ে দিন। আরও কিছুক্ষণ ফোটান। এরপর নামিয়ে ছেঁকে নিন পানীয়।

তাতে এবার এক চামচ মধু দিয়ে খেয়ে নিন। এই পানীয় দিনে ১-২ বার খেতে হবে ব্যায়াম বা এক্সারসাইজ করার পর। কয়েক সপ্তার মধ্যে আপনার ওজোন কমে যাবে।

আরও পড়ুনঃ ঝোল নয়, এই মটন হলো একেবারে ফ্রায়েড!