বিদ্যুতের বিল দেখে হতবাক! জানুন বিল সাশ্রয়ের উপায়

Shocked to see the electricity bill

করোনা ভাইরাসের এই পরিস্থিতিতে বিদ্যুতের বিল দেখে মাথায় হাত অনেকেরই। এদিকে প্রচন্ড গরমে এসি তো চালাতেই হবে! কী করে হবে সাশ্রয়! বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে উপায় আছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে এসি নিয়ন্ত্রণেই বিদ্যুৎ খরচ থাকবে নাগালের মধ্যে। অনেকেই ঝোঁকেন ফাইভ স্টার এসি কেনার দিকে। কিন্তু সেটা সবসময় দরকার পড়েনা। এসি বছরে যদি গড়ে ১০০০ ঘন্টার কম চলে এবং বিদ্যুতের ইউনিট পিছু যদি খরচ হয় ৫ টাকা, তবে ৩ স্টার স্প্লিট এসি কিনলেই চলবে।

বিদ্যুতের বিল বাঁচাতে অবশ্যই এসির টেম্পারেচর ২৪ থেকে ২৬ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে থাকতে হবে। এসি যত কম তাপমাত্রায় চালানো হবে ততই বিদ্যুৎ খরচ বাড়বে।

আরও পড়ুনঃ মেদ নিয়ে সমস্যায় ভুগছেন, সমাধান আপনার হাতের মুঠোয়

রাতে স্লিপ মোডে এসি চালিয়ে ভোরে বন্ধ করে দিতে হবে, এতে বিদ্যুৎ খরচ কমবে। সিলিং ফ্যানটিও সামঞ্জস্য রেখে চালান।

নির্দিষ্ট সময় অন্তর এসির ফিল্টার পরিষ্কার করতে হবে। ঘর ঠান্ডা হয়ে গেলে যাতে আপনা থেকেই বন্ধ হয়ে যায় এসি, এর জন্য টাইমার ব্যবহার করুন। দিনের বেলায় ঘরে তাপ ঢোকার উৎসগুলিকে বন্ধ করুন।

আরও পড়ুনঃ বাড়িতে বসে কিভাবে তৈরি করবেন ফ্রায়েড মোমো

লকডাউনে বিদ্যুতের বিল কিভাবে মেটাবেন, দেখে নিন

how to pay electric bill

লকডাউনে বিদ্যুতের বিল কীভাবে মেটানো যাবে তা নিয়ে সংশয়ে অধিকাংশ মানুষই। অনেকেই অনলাইনে বিল পেমেন্টে অভ্যস্ত নন। তাছাড়া বাড়িতে মিটার রিডিংয়ের জন্য কেউ আসতে পারছেনা। তাই এই ব্যপারে অভয় দিচ্ছে সিইএসসি।

সংস্থার দাবি, মার্চে অধিকাংশ গ্রাহকই provisional Bill পেয়ে যাবেন। অনলাইনে বিল মেটাতে পারবেন গ্রাহকেরা। সেটা যদি সম্ভব না হয় তবে নিকটবর্তী কোনও স্পেনসার্স স্টোরে বিলের টাকা বাবদ চেক জমা দেওয়া যাবে।

এখন প্রশ্ন এটাই, মিটার রিডিং হচ্ছেনা যখন, বিদ্যুতের বিল কিভাবে সঠিক আসবে। কার বাড়িতে কত ইউনিট ব্যবহার হয়েছে সেটা জানবে কি করে? গত বছর মার্চ মাসে গ্রাহকের বাড়ি বা অফিসে মিটার রিডিং নেওয়া হয়ে থাকলে, ওই মাসে কত ইউনিট খরচ হয়েছিল তা দেখে এ বছরের মার্চের বিল তৈরি করা হবে। আর যদি রিডিং না নেওয়া থাকে তাহলে, গত ছ’মাসে কত ইউনিট করে বিদ্যুৎ খরচ হয়েছে তার গড় করে বিল তৈরি হতে পারে।

এসএমএস-এর মাধ্যমে জানতে পারবেন বিল। এসএমএস এখনও যাদের কাছে আসেনি। সেই গ্রাহকদের বিল তৈরির প্রক্রিয়া শেষ হলেই পাঠানো হবে এসএমএস।