পুজো আগেই মেদ ঝরান, রইলো তার ডায়েট

reduce body fat

এবারে পুজো হোক অন্যরকম। যতই থাক করোনা, এবারে পুজোতে আপনাকে সুন্দর ও চনমনে রাখার জন্য জেনে নিন কীভাবে বাড়তি মেদ ঝরাবেন পুজোর আগেই। রইলো আপনার জন্য ডায়েট প্ল্যান।

আপনাকে ৭০ শতাংশ ডায়েট ও ৩০ শতাংশ এক্সারসাইজ রাখতে হবে। সকালে ঘুম থেকে উঠে এক্সারসাইজ করে খেতে হবে লেবু জল। তার আধ ঘন্টা পরে এক কাপ চা। চা খাবেন চিনি ছাড়া।

আরও পড়ুনঃ কমবে মেদ ও সাথে জটিল রোগ, রোজ খান এই জিনিসটি

ব্রেকফাস্টে রাখতে হবে দুধ কর্নফ্লেক্স, ডালিয়া, ওটস জাতীয় খাবার। লাঞ্চ করবেন স্যালাডে। খাওয়া চলতে পারে পালা করে, স্যালাড, ওটস স্যালাড বা ফ্রুট স্যালাড। অভ্যেস থাকলে ভাত খেটে পারেন সামান্য। শাকসবজির পরিমাণ বাড়াতে হবে।

বিকেলের টিফিন করুন ছোলা, পেঁয়াজ, টমেটো দিয়ে মুড়ি খান বা ছানাও খেতে পারেন। ডিনার করুন গরম স্যুপ দিয়ে। আপনার যদি মনে হয় খিদে থাকছে রায়তা খেতেও পারেন এর সঙ্গে।

আরও পড়ুনঃ ভুঁড়ি বাড়ছে? তুলসির টোটকায় মেদ ঝরিয়ে ফেলুন ঝটপট

বিনা মাংসে এক বছর থাকতে পারলেই অবিশ্বাস্য ফল!

diet plan without meat

বাঙালি মাছ ভক্ত, কিন্তু সাথে সাথে রবিবার এলেই বাঙালির মাংস চাই পাতে। রবিবার মনে মাংসের বাসনা আসবেনা, এই রকম বাঙালি প্রায় নেই বললেই চলে। এই মানুষগুলোকে যদি বলা হয় এক বছর মাংস না খেয়ে থাকতে হবে, তাদের পক্ষে এটা খুবই কঠিন। কিন্তু গবেষণায় বলছে, এই অভ্যাস করতে পারলে লাভের পাল্লা অনেকটাই ভারী।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছে যে, এক বছর মাংস না খেয়ে শুধুমাত্র ডাল-ভাত, শাকসবজি, ফল খেয়ে বেঁচে থাকা যায় তবে ওজোন দশপাউন্ড করে কমে যাবে।

মাংস ছাড়া এইসব খাবার খেলে কোলেস্ট্রেরল, রক্তচাপ, হৃদরোগের সম্ভাবনা অনেক কম থাকবে। দেখা যাচ্ছে, শাকাহারিদের এইসব রোগ হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম।

আরও পড়ুনঃ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অবশ্যই এই খাবারগুলি খান

এতে ডায়াবেটিসের সম্ভাবনাও অনেক কম থাকবে। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা হু-এর একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিকর হল প্রেসসড মিট। যারা বেকন, সসেজ, সালামিতে ডুবে আছেন তাঁদের ডায়াবেটিস, ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা খুবই বেশি।

দেখা গিয়েছে গাট ব্যাক্টেরিয়ায় যারা আক্রান্ত হন, তাদের মধ্যে বেশিরভাগই মাংসভোজী। কাজেই মাংস থেকে দূরে থাকলে এই ভয়গুলি থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

আরও পড়ুনঃ সর্দি-কাশি ও শরীরের বাড়তি মেদ কমাতে খান কাঁচা হলুদ, দেখে নিন এটি খাবার উপায়

ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

Carrots eat

স্যালাড তো খান, স্যালাডে শশা, গাজর, টমেটো, পেঁয়াজ তো থাকেই, দ্রুত ওজোন কমানোর জন্য স্যালাডে বাড়িয়ে দিন গাজর-এর পরিমাণ।

অনেকটা গাজর একসাথে কুঁচিয়ে তাতে লেবুর রস ও গোলমরিচ দিয়ে খান। তবে স্বাদ বাড়ানোর জন্য স্যালাডে আবার মাখন, মেয়োনিজ বা তেল দেবেন না।

গাজর সিদ্ধ করে নিন ও স্যুপ বানিয়ে ফেলুন। এই স্যুপ-এ হালকা গোলমরিচ ও অল্প মাখন দিয়ে দুপুর বা রাতে পেট ভরান।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

এর সঙ্গে অন্য সবজিও যোগ করতে পারেন। সাধারণ উপায়ে যেভাবে গাজরের সুজি বা হালুয়া তৈরী করেন, সেভাবে না বানিয়ে, মাখন, চিনি, বাদাম না দিয়ে হালুয়া বানান।

চিনি ছাড়া হালুয়া খেতে না ভালো লাগলে এতে নুন ও মরিচ দিয়ে ঝাল সুজির নিয়মেও তৈরী করতে পারেন হালুয়া। এতে তেল দিতে পারেন তবে একেবারেই সামান্য।

আরও পড়ুনঃ সুস্থ থাকার এক মোক্ষম উপায় রোজ বাদাম খান