শ্রীদেবীর মৃত্যুর ২ বছর পর সিবিআই তদন্তের দাবি নেটবাসীদের

Sredevi's death

২ বছর অতিক্রম হয়ে গেছে শ্রীদেবীর মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু তার মৃত্যু এখনও রহস্যি হয়ে রয়েগিয়েছে। শ্রীদেবীরে মৃত্যু নিয়ে সিবিআই তদন্তের দাবি জানাল নাটবাসীদের একাংশ।

২০১৮ সালে মোহিত মারওয়াড়ের বিয়েতে দুবাই গিয়েছিল শ্রীদেবী ও তার পরিবার। কয়েকদিন সেখানে কাটিয়ে বনি কাপুর তার বোনকে নিয়ে ফিরে আসেন মুম্বাই। শ্রীদেবী থেকে যান দুবাইয়ে। পরে আবার দুবাইয়ে যান বনি কাপুর। সেদিন তিনি নৈশ্যভোজের জন্য শ্রীদেবীকে তৈরি হতে বলে। তারপরই হোটেলের বাথ টাব থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। তাঁকে মৃত বলে জানিয়ে দেয় সেখানের ডাক্তাররা। দুবাই সরকার একে দুর্ঘটনাজনক মৃত্যু আখ্যাদেয়।

নেটবাসীদের একাংশ ও শ্রীদেবীর অনুরাগী-ভক্তদের অনেকে মনে করেন পুরোটাই ধোঁয়াশা এখনও। কীভাবে হোটেলের বাথ টাবে ডুবে মারা গেলেন তিনি! শ্রীদেবীর মৃত্যুর রহস্যের জাল ভেদ করতে নেটবাসীদের একাংশ সিবিআই তদন্তের দাবি তুলেছে।

আরও পড়ুনঃ H-1B নিয়ন্ত্রণ শিথিল করলো ট্রাম্প, আবার আগের চাকরিতে ফেরা যাবে আমেরিকায়

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে ২ মাস হতে যায় দেশে তোলপাড় চলছে এখনও। তদন্তের ভার দিয়েছে সিবিআই-এর হাতে। শ্রীদেবীর মৃত্যু রহস্য উদ্ঘাটনেও সিবিআই তদন্ত জরুরি বলে মনে করছে নেটবাসীরা।

আরও পড়ুনঃ ঘরের মধ্যে লুকিয়ে বিশাল গোখরো, দেখুন তারপর কি হল

গোসাবার বিধায়কের বাড়িতে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার এক যুবকের!

Suicide

বাসন্তীঃ গোসাবার বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়িতে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার এক যুবকের আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকালে। এই মৃত যুবকের নাম লাবণ্য হালদার।

জানা গেছে যে, লাবণ্য হালদার নামে ওই যুবকটি গোসাবার বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়ির তিনতলায় বাস করতেন। এদিন সকালে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই যুবকের দেহ তিনতলার ছাদ থেকে উদ্ধার হয়। পুলিশের অনুমান, ওই যুবক আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যার কী কারণ হতে পারে, বা অন্যকিছু সেটা পুলিশ দেখে খতিয়ে।

আরও পড়ুনঃ সাইক্লিং করতে গিয়ে বিপত্তি, আহত হলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবকের বাড়ি গোসাবাতেই। তৃণমূল বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়িতে তিনি ১৫ বছর বয়স থেকে থাকতেন। তিনি আলাদা ঘরে থাকতেন। এদিন বাড়ির পরিচারক তাঁকে খাবার দিতে গিয়ে দেখেন গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে। তাঁকে উদ্ধার করে বাসন্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক।

আরও পড়ুনঃ করোনার ভ্যাকসিন কবে আসতে পারে, জানিয়ে দিল হু

সুশান্তের কায়দায় আত্মহত্যা করলো তাঁর ১২ বছরের ফ্যান

twelve year old fan committed suicide

হাপুর (উত্তরপ্রদেশ)ঃ প্রিয় অভিনেতার মৃত্যু মেনে নিতে না পেরে আত্মহত্যা করলো এক ১২ বছরের ছেলে। বলতে গেলে অন্ধ ভক্ত ছিল সে, অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের। সুশান্ত যেভাবে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক সপ্তাহ আগে, ঠিক সেভাবেই তাঁর এক ফ্যান ষষ্ঠ শ্রেণীর পড়ুয়া শনিবার চরম পদক্ষেপ করেছে বলে দাবি তার পরিবারের। তাঁরা জানিয়েছেন, সুশান্তের মৃত্যু সংক্রান্ত খবর চলা কালীন ছেলেটি টিভির পর্দা থেকে চোখ সরাত না।

আত্মঘাতী কিশোরের বাব গ্রেটার নয়ডার একটি বেসরকারি ফার্মের ইঞ্জিনিয়ার। তিনি ঘটনার দিন বাড়িতে ছিলেন। পরিবারের বাকিরাও উপস্থিত ছিলেন। পুলিশ জানিয়েছেন, ছেলেটি উপরতলায় নিজের ঘরে গিয়ে ভিতর থেকে দরজা বন্ধ করে গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলে পড়ে। পরিবারের অনুরোধে ময়নাতদন্ত করা হইনি বলে জানিয়েছে এএসপি।

আরও পড়ুনঃ কাশ্মীর থেকে ৪-৫ জঙ্গি ঢুকেছে, জঙ্গি হানার সতর্কতা দিল্লিতে

সুশান্ত অনুগামীদের তাঁর ফেলে যাওয়ায় শূন্যতার মধ্যে এটাই প্রথম আত্মহত্যার ঘটনা নয়। এটি তৃতীয় ঘটনা। গত ১৬ জুন বেরিলিতে ক্লাস টেনের এক পড়ুয়া তাঁর প্রিয় তারকার আত্মহত্যা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে। সুইসিড নোটে সে লেখে, ও পারলে, আমি কেন পারব না! এর আগেও সুশান্তকে হারানোর শোক সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে একটি মেয়েও।

আরও পড়ুনঃ করোনার ওষুধ তৈরী হয়েগেছে, দাবি সংস্থার

দেশে আক্রান্ত ছাড়ালো সওয়া চার লক্ষ, মৃত আরও ৪৪৫ জন

died migrant workers

দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়ালো চার লক্ষ ২৫ হাজার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছে ১৪ হাজার ৮২১ জন। আক্রান্তের সাথে বাড়ছে মৃত্যুও। ২৪ ঘন্টায় মৃতের সংখ্যা ৪৪৫ জনের। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লক্ষ ২৫ হাজার ২৮২, ও মৃতের সংখ্যা ১৩ হাজার ৬৯৯ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছে ১৩ হাজার ৯২৫ জন।

মহারাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। সেখানে মারা গেছে ৬ হাজার ১৭০ জন। দিল্লিতে মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ১৭৫ জনের। গুজরাতে মারা গেছে ১ হাজার ৬৬৩। এরপর রয়েছে তামিলনাড়ু (৭৫৭), পশ্চিমবঙ্গ (৫৫৫), উত্তরপ্রদেশ (৫৫০), মধ্যপ্রদেশ (৫১৫), রাজস্থান (৩৪৯), তেলেঙ্গানা (২১০)।

আরও পড়ুনঃ করোনার ওষুধ তৈরী হয়েগেছে, দাবি সংস্থার

প্রথম থেকেই করোনার সংক্রমণের শীর্সে রয়েছে মহারাষ্ট্র, সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৩২ হাজার ৭৫। এরপর আছে দিল্লি। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ হাজার ৭৪৬। সংক্রমণ বাড়ছে তামিলনাড়ুতেও, সেখানে সংক্রমণের সংখ্যা ৫৯ হাজার ৩৭৭ জন। গুজরাতে আক্রান্তের সংখ্যা ২৭ হাজার ২৬০ জন।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা বিমানবন্দর থেকে উদ্ধার কোটি টাকার পাখি, আটক ২

দেওরের এই পরিণতি না মানতে পেরে, মৃত্যু হল সুশান্তের বৌদির

sushant singh rajput commits suicide

মাত্র ৩৪ বছর বয়সে চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। কি কারণে তাকে এই পদক্ষেপ নিতে হল তা এখনও জানা যাইনি। এর মধ্যে মৃত্যু হল তার বৌদির। তাঁর দেওরের মৃত্যু খবরে মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছিলেন তিনি। এই কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

সোমবার যখন সুশান্তের শেষকৃত্য চলছিল, তখন বিহারের পূর্ণিয়া জেলায় মলডীহা গ্রামে তাঁর বৌদি সুধাদেবীর মৃত্যু হয়। সম্পর্কে তিনি সুশান্তের তুতো বৌদি। তিনি অসুস্থ ছিলেন কয়েকদিন ধরে। দেওরের মৃত্যুর খবরে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে।

আরও পড়ুনঃ মৃত্যুর আগের রাতে সুশান্তের ফোন ধরেননি রিয়া, তাঁদের সম্পর্ক কি ভেঙ্গে গিয়েছিল!

সুধাদেবীর স্বামী অমরেন্দ্র সিংহ জানান সংবাদমাধ্যমকে, সোমবার সকাল থেকে সুধাদেবীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। বিকেল ৫ টায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সুশান্তের মৃত্যুতে গোটা দেশে শোকের ছায়া। এখনও অনেকে বিশ্বাস করতে পারছেন না সুশান্ত আমাদের মধ্যে আর নেই। বিহারের পটনায় যে এলাকায় বড় হয়েছেন তিনি, সেখানকার মানুষ এখনও পর্যন্ত তাঁর এই পরিণতি মেনে নিতে পারছেন না।

আরও পড়ুনঃ সুশান্ত সিং রাজপুত জীবনে কি কি চেয়েছিলেন তা দেখে নিন এক নজরে

ঘুমিয়ে থাকা শ্রমিকদের উপর দিয়ে চলে গেলো ট্রেন

train passed the sleeping workers

ঔরঙ্গাবাদঃ মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদে পরিযায়ী শ্রমিকরা রেললাইনে শুয়ে ছিল, তাদের উপর দিয়ে চলে গেল ট্রেন। এই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১৭ জনের। শ্রমিকরা ঘুমোচ্ছিলেন রেলের ট্র্যাকের উপর, দুর্ঘটনাটি শুক্রবার ৬.৩০ নাগাদ জালনা ঔরঙ্গাবাদ রেললাইনের উপর ঘটে। ১৫ জন পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলেই।

আরও পড়ুনঃ নেশার ঘোরে সাপকে কামড়ে টুকরো করল এক ব্যক্তি

তার সাথে গুরুতর আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। একটি প্রাইভেট সংস্থায় কাজ করতেন তাঁরা। MIDC ঔরাঙ্গাবাদ যাচ্ছিলেন তাঁরা। সারাদিন যাত্রা করার পর বিশ্রাম নেওয়ার জন্য রাতে তারা রেললাইনে ঘুমোচ্ছিলেন। আধিকারিকরা জানালেন, ওই ট্র্যাকের উপর দিয়ে মালগাড়ি যাওয়ায় দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

আরও পড়ুনঃ প্রতিষেধক তৈরিতে এখন আশার আলো দেখছে ইতালি