৯২ জনের মৃত্যু করাচিতে ঘটে যাওয়া প্লেন দূর্ঘটনাতে

Plane Crash in Karachi

পাকিস্তানে ঘটে যাওয়া প্লেন দূর্ঘটনাতে ৯২ জনের প্রান হারানোর খবর পাওয়া যাচ্ছে। পাকিস্তান আন্তর্জাতিক এয়ারলাইনস(PIA) এর একটি যাত্রীবাহী প্লেন করাচি বিমান বন্দরে নামার আগেই নিকটের লোকালয়ে ভেঙে পড়ে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মুক্ষ্যসচিব, মিরা ইউসুফের কথা অনুযায়ী, ৬০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ৩২ জন হাসপাতালে মারা যেছে।

আরও পড়ুনঃ আমেরিকায় কোভিড-১৯ এর সফল পরীক্ষা, বছরের শেষেই পাওয়া যাবে ভ্যাকসিন

A320 নামক এই প্লেনটি ৯১ জন যাত্রী ও ৮ জন বিমান চালনা কাজে নিযুক্ত ব্যক্তিদের নিয়ে লাহোর থেকে করাচি যাত্রাপথে লোকালয়ে ভেঙে পড়ে।

এরই মাঝে সেখানের সরকার একটি ৪ জন সদস্যের দল গঠন করেছে। সেই দলের উপর এই মর্মান্তিক বিমান দূর্ঘটনার কারন জানার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ করোনা মানছে না আমফান, লকডাউন, বাংলার বুকে আক্রান্ত ৩ হাজারের অধিক

মঙ্গলবার রাত থেকে অভ্যন্তরীন বিমান বন্ধ হবে

passenger-plane-service-stoped-from-24-march-midnight

মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে বন্ধ হতে চলেছে সব অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল। আজ মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কেন্দ্রে চিঠি পাঠান। আর আবেদন করেন সব যাত্রীবাহী বিমান বন্ধ করার জন্য। সেই কথাকে মাথায় রেখে কেন্দ্র সিন্ধান্ত নেয় যে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সকল যাত্রীবাহী বিমান চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে মাল বাহী বিমান বন্ধের কোন আদেশ দেওয়া হয়নি।

এই সিন্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে যাওয়ার কথাকে মাথায় রেখে। বর্তমানে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৫৬ জন। আর এই সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এই পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছে সকল মহল থেকে। বিমান বন্ধ রাখার ফলে করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া কিছুটা হলেও বন্ধ করা সম্ভব হতে পারে বলে ধারনা।