দুঃসংবাদ বলিউডে! শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি সঞ্জয় দত্ত

Sanjay Dutt

আবারও এক দুঃদংবাদ এল বলিউডের অন্দরমহল থেকে। হঠাৎ করে শারীরিক অসুস্থ্যতার কারনে হাসপাতালে ভর্তি সঞ্জয় দত্ত। তিনি শ্বাসক্ষটজনিত সমস্যাতে ভুগছেন।

সম্প্রতি কে. জি. এফ. ২ এর ট্রেলার চঞ্চ হয়েছে। সেখানে সঞ্জয় দত্ত অভিনয় করেছে। এরই মাঝে হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

তার অসুস্থতার কারণ জানার জন্য এদিন করোনা টেস্ট করান হয়। তাতে টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। তবে শ্বাসকষ্ট কমান নাম করছে না। আর তাই দ্বিতীয়বার করোনা টেস্টের জন্য চিকিৎসকগণ তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করেছেন।

আরও পড়ুনঃ জারী কমলা সতর্কতা, প্রবল বৃষ্টির সম্ভবনা দফায় দফায়, জেনে নিন আপডেট

জানা গিয়েছে, বর্তমানে তিনি মুম্বাইয়ের লীলাবতি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। সূত্রের খবর, আপাতত তিনি স্থিতিশীল।

আরও পড়ুনঃ সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত ‘বাহুবলী’ পরিচালক এসএস রাজামৌলি

রিয়া সুশান্তকে ড্রাগ ও ওভারডোজ দিয়েছিলেন, অভিযোগ সুশান্তের বাবার

complain sushant's father

সুশান্তের বাবা রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন, তাঁর মৃত্যুর জন্য রিয়াকে দায়ী করেন তিনি। এর সঙ্গে রিয়ার ভাই ও তাঁর পরিবারের নামও উল্লেখ রয়েছে। তাঁর অভিযোগ রিয়া ও তাঁর পরিবার সুশান্তের টাকা লুঠ করছিল।

রিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি সুশান্তকে পাগল ঘোষণা করানোর জন্যু উঠে পড়ে লেগেছিলেন। সুশান্তের বাবা জানান, তিনি বৃদ্ধ তাই বেশি দৌড়াদৌড়ি করতে পারবেন না তাই তিনি পাটনাতেই এফআইআর দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগ আগে যে বাড়িটায় বাস করতেন সুশান্ত সেখানে ভুতপ্রেত আছে বলে সেই বাড়ি ছাড়তে বাধ্য করেন রিয়া সুশান্তকে। তারপর বান্দ্রা-এর বাড়িটা ভাড়া নেন তাঁর শেষ গার্লফ্রেন্ড। তিনি সেখানে নিজের পরিবারের লোকদের নিয়ে তাঁর সঙ্গে থাকতেন।

সুশান্তের বাবার অভিযোগ, তাঁর ছেলেকে পাগল করিয়ে অ্যাসাইলামে পাঠানোর তোড়জোড় শুরু করেছিলেন রিয়া। এর জন্য তাঁকে মানসিক অসুস্থতার ওষুধ খাওয়াতে শুরু করেছিলেন রিয়া। প্রথমে তাঁকে ডেঙ্গির ওষুধ বলে মানসিক অসুস্থতার ওষুধ খাওয়াতে শুরু করেছিলেন। তারপর ড্রাগ ও ওভারডোজের জেরে মানসিক স্থিতাবস্থা হারিয়ে ফেলছিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ মানসিক অবসাদ বা বাড়তি ওজোন, সবকিছু থেকে মুক্তি পেতে খান আমলকী

রিয়া সুশান্তের মোবাইল নম্বর অবধি বদলে দিয়েছিলেন। যাতে সুশান্ত নিজের পরিবারের কাছ থেকে দূরে থাকেন। সুশান্তের অ্যাকাউন্টের কোটি কোটি টাকা রিয়া ও তাঁর পরিবার গায়েব করে দেন। কোনও ফিল্মের অফার এলে তাঁর নায়িকা রিয়াকেই করতে হবে, এইরকম করতে হবে বলে উস্কাতেন তিনি সুশান্তকে।

সুশান্ত বন্ধু মহেশ শেট্টির সঙ্গে ফার্মিং শুরু করবে বলে ভাবনা চিন্তা করছিলেন তখন রিয়া চরম পদক্ষেপ নেন। সুশান্তের ক্রেডিট কার্ড, বাড়ির কাগজ সব নিয়ে বাড়ি চলে যান। বেরিয়ে যাবার পর সুশান্তের নম্বর ব্লক করেছিলেন তিনি। তিনি হুমকি দিয়েছিলেন সুশান্তকে যদি কোনো বাড়াবাড়ি করেন তবে তাঁর মেডিক্যাল সবকিছু সংবাদমাধ্যমের কাছে ফাঁস করে দেবেন তিনি। আত্মহত্যার আগে খুব অস্বস্তিতে ছিলেন সুশান্ত।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

সাইক্লিং করতে গিয়ে বিপত্তি, আহত হলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

Rituparna Sengupta

লকডাউনের কারনে বহু দিন ধরে দেশের বাইরে রয়েছেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। লকডাউন শুরুর আগে কলকাতা ছেড়ে ছিলেন। এমনিতেই বহু দিন কলকাতায় নেয়, তার মাঝেই নেমে এল এক গুরুতর বিপত্তি। সাইকেল চালাতে গিয়ে ডান হাতের কবজিতে বেকায়দাতে মোচড় লেগেছে।

বর্তমানে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত রয়েছেন সিঙ্গাপুরে। তিনি চলতি বছরের মার্চ মাসে দেশ ছেড়ে স্বামী সঞ্জয় ও রিসোনাকে নিয়ে ছুটি কাটানোর জন্য গিয়েছিলেন সিঙ্গাপুরে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে গোটা দেশ জুড়ে শুরু হয় লকডাউন। লকডাউনের ফলে পরিবারের সাথে একসঙ্গে ভালো সময় কাটাচ্ছেন। ফলে তার পর থেকে আর দেশে ফেরা হয়নি তাদের। কিন্তু তার মাঝেই ঘটে গেল অঘটন!

আগাগোড়াই অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা বেশ স্বাস্থ্য সচেতন। তাই বরাবরের মতো নিজেকে ফিট রাখতে নিয়মিত এক্সারসাইজ করে থাকেন। সেই সুবাদে সাইকেল চালাতে গিয়েই ঘটেছে এই ঘটনা।

আরও পড়ুনঃ দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পর রাস্তার মধ্যে তুমুল নাচ বোনের

জানা গেছে, সাইকেল চালানোর সময় ডান দিকে ইউ টার্ন নিতে গিয়েছিলেন। সেই সময় সামলাতে না পেরে পড়ে গিয়ে চোট লাগে ডান হাতের কবজিতে। তারপরই অবশ হয়ে পড়ে ডান হাত ও আঙুল।

লকডাউনের জন্য শুটিং বন্ধ হয়ে গেলেও নিজেকে সব সময় ব্যস্ত রাখতে ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ভক্তদের উপহার দিয়েছেন বিভিন্ন বিষয়ের ভিডিও। তবে চোট পাওয়ার জন্য এখন সবকিছুই বন্ধ।

আরও পড়ুনঃ জঙ্গলে মুখোমুখি হল বাঘ ও পাইথন, দেখুন তারপর কী ঘটলো

মৃত্যুর আগের রাতে সুশান্তের ফোন ধরেননি রিয়া, তাঁদের সম্পর্ক কি ভেঙ্গে গিয়েছিল!

rhea did not pick up sushant phone

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে এই বাঙালি কন্যার নাম বার বারই উঠে আসছে। ঠিক কি সম্পর্ক ছিল রিয়ার সুশান্তের সাথে ভালবাসার নাকি বন্ধুত্বের। রিয়ার সাথে কি করে সুশান্তের পরিচয় হয় তা জানে না বলিউড। তাদের দুজনেরই স্টারকিডের তকমা গায়েছিল না। তার জন্যই আলাপ জমতে বেশি দেরি হয়নি হয়ত। তাদের আলাপ যে কখন প্রণয়ে পরিণত হয় তা কেউই জানেন না।

গত বছর জুনে সুশান্ত ও রিয়ার একসাথে লাদাখ বেড়াতে যাবার ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে। প্রথমে ফ্যানেরা অতোটা বুঝতে না পারলেও পরে বুঝতে পেরেছিল সবাই-ই যে একই সময়ে লাদাখ যাওয়াটা নেহাতই কাকতালীয় নয়।

আরও পড়ুনঃ সম্পূর্ণভাবে তৈরি হল ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন, টুইট করলেন রেলমন্ত্রী

তার ঠিক কয়েক মাস পর প্যারিসে গেছিলেন দুজনে, খবরটা পেতে বেশি সময় লাগেনি কারোর। তার পরেই ওদের ‘লাভ স্টোরি’ নিয়ে শুরু হয় জল্পনা।

সবকিছু ভালই চলছিল কিন্তু তার মধ্যেই শোনা যায় ওদের সম্পর্ক নাকি আগের মত নেই আর। তাঁদের একসাথে শেষ দেখা গেছিল ১১ মার্চ। জিম থেকে ফিরছিলেন তাঁরা।

সুশান্ত সিং রাজপুত তাঁর বান্দ্রার ফ্ল্যাটে একা থাকতেন সুশান্ত। দিনের পর দিন তিনি হতাশার মধ্যে ভুগছিলেন, কিন্তু তা রিয়াকে জানতে দেননি তিনি।

আরও পড়ুনঃ সুশান্ত সিং রাজপুত জীবনে কি কি চেয়েছিলেন তা দেখে নিন এক নজরে

মারা যাবার আগের দিন রাত ১ টা ৪৭ মিনিটে ফোন করেন রিয়াকে, রিয়া সুশান্তের ফোন ধরেননি। আজ সুশান্তকে শেষবারের মতো দেখতে গেছিলেন হাসপাতালে রিয়া। তাঁর বয়ান রেকর্ড করবে নাকি মুম্বই পুলিশ! এর পর হয়ত রহস্যের সমাধান হতে পারে।

আজ সুশান্তের শেষকৃত্য সম্পন্ন হল, শ্রদ্ধা জানালো বলিউড

sushant sing rajput

খুব তাড়াতাড়িই চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপুত, তাঁর শেষকৃত্য হল মুম্বইয়ের ভিলে পার্লেতে পবন হংস শ্মশানে। ২০ জনকে যাবার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল তাঁর শেষকৃত্যতে।

সুশান্তের বাবা কৃষ্ণকুমার সিংহ এবং তাঁর পরিবারের লোকেরা সোমবার সকালেই মুম্বই এসে পৌঁছলেন। ইতিমধ্যেই পরিবারের লোকেরা পবন হংস শ্মশানে চলে গিয়েছেন। শেষকৃত্য কিছুক্ষণের মধ্যেই শুরু হবে।

আরও পড়ুনঃ তিনটি নদীর জল বন্ধ করতে চলেছে ভারত, বঞ্চিত হতে চলেছে পাকিস্তান

শ্মশানের বাইরে দেখা গেছে, রণবীর সুরি, বিবেক ওবেরয়, শ্রদ্ধা কাপুর, কৃতী স্যাননদের। অভিনেতাকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য হাজির হয়েছেন, বরুন শর্মা, একতা কাপুর ও বেশ কিছু বলিউড সেলেবরা। তাঁদের শ্মশানের ভিতরে যাবার জন্য অনুমতি দেওয়া হইনি।

আরও পড়ুনঃ সুশান্ত সিং রাজপুত জীবনে কি কি চেয়েছিলেন তা দেখে নিন এক নজরে

সুশান্ত সিং রাজপুত জীবনে কি কি চেয়েছিলেন তা দেখে নিন এক নজরে

take-a-look-at-what-actor-sushant-singh-rajput-wanted-in-life

নয়াদিল্লিঃ রবিবার অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা করেন। মুম্বাইয়ের বাড়িতে তাঁর মৃত দেহ পাওয়া যায় রবিবার। তার বয়স হয়েছিল ৩৪। তাঁর এই মৃত্যুতে গোটা দেশ শোকাহত। প্রয়াত অভিনেতার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা ‘৫০’ টি ইচ্ছা বারে বারে আসছে ঘুরে ফিরে। এই তালিকাটি সুশান্তের পোস্ট করা একটি টুইট-এর সিরিজ যা অভিনেতার জিবনের বেশ কিছু ইচ্ছার শেষ স্মারক হিসাবে রয়ে গিয়েছে। ২০১৯ সালে অভিনেতা তার স্বপ্নগুলির একটি তালিকা বানিয়েছিলেন। তার স্বপ্নের তালিকায় ছিল, আয়রন ম্যন ট্রায়াথলনের প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে একটি ক্রিকেট ম্যাচ বাঁ হাতে খেলা সবই রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ মাত্র ৯৫ টাকাতে বিক্রি হচ্ছে একটি গোটা বাড়ি, ইতালির শহর চিনকুইফ্রন্ডে

রইল সেই ৫০টি বাকেটলিস্ট টুইটঃ

এই তালিকা থেকে বোঝা যায় মহাজগতের প্রতি তার ভালোবাসা প্রতিফলিত হয়। অভিনেতা মোর্স কোড শিখতে চেয়েছিলেন, বাচ্চাদের সাহায্য করতে চেয়েছিলেন, স্পেস সম্পর্কে শিখতে চেয়েছিলেন।

তিনি স্বপ্ন দেখতেন চ্যম্পিয়ন টেনিস বল দিয়ে টেনিস বল খেলার স্বপ্ন দেখতেন। তাঁর তালিকায় চারটি তালি দিয়ে পুশ আপও আছে।

তাঁর কিছু কিছু মহাবিশ্বকে জানার আকাঙ্ক্ষা ও মানুষের জন্য কাজ কিছু কিছু, এই নিয়ের তাঁর স্বপ্নের তালিকা গড়া।

১০০০ টি গাছ লাগানো, গিটার শেখা, কৈলাসে ধ্যান করা এবং ট্রেনে করে ইউরোপ ভ্রমণ করাও তাঁর ইচ্ছা।

পবিত্র রিশতা সিরিয়ালে তাঁর প্রথম কাজ এবং তার পর কাই পো চে তাঁর প্রথম ছবি।

সেই থেকে শুরু তাঁর বলিউডে কাজ। তারপর একেরপর এক ভালো ভালো ছবি দর্শকদের পুরস্কার দেন তিনি। তাঁকে শেষবার ড্রাইভ ছবিতে দেখা গিয়েছিল। তারপর লকডাউন শুরু হওয়ার জন্য তাঁর ‘দিল বেচারা’ ছবির মুক্তি আটকে গিয়েছে। সুশান্ত সিং রাজপুতের এইরকম আকস্মিক মৃত্যুতে বলিউড শোকস্তব্ধ। সুশান্ত সিং রাজপুত তাঁর ভক্তদের মনে সবসময়ই রয়ে যাবেন।

আরও পড়ুনঃ বাঙালি বিজ্ঞানীর কথাই কি তবে ঠিক, ভারতে ২১ লাখ সংক্রমণ জুলাইয়ের মধ্যে!

নেট দুনিয়ায় মায়াবী ও উষ্ণ অবতারে ভাইরাল উর্বশী রাওতেলা

hot bollywood celebs

বলিউডে পা রেখেছেন মাত্র কয়েক বছর আগে। এর মধ্যেই ভারতের যুব সমাজের মন জয় করে নিয়েছে তার অভিনয় ও মায়াবী অঙ্গি ভঙ্গিমায়। এই উর্বশী রাওতেলা বেশ কয়েকটি জনপ্র্অয় হিন্দি সিনেমাতে কাজ করে ফেলেছেন এতি মধ্যেই। তার মধ্যে রয়েছে হেট স্টোরি ৪, গ্রেট গ্রান্ড মস্তি, সানাম রে -এর মতো সিনেমা।

তিনি সব সময় সোশাল মিডিয়াতে চর্চার শিখরে থাকেন। সব সময় নেট জগতে তাকে নিয়ে আলোচনা চলতে থাকে। এই বারেও তার ব্যতিক্রম কিছু হল না। সোশাল মিডিয়াতে ছবি প্রকাশ করতে না করতেই ভাইরাল হয়ে গেল। ছড়িয়ে পড়ল সমাজের যুবাদের কাছে, তার ফ্যানদের কাছে। নিজেকে যেভাবে উন্মোচন করেন তিনি সেই মায়াতেই ভক্তদের চলখের মনি হয়ে থাকেন সব সময়।

আরও পড়ুনঃ জিও ৬,৫৯৮ কোটি টাকায় মার্কিন সংস্থ্যার কাছে শেয়ার বিক্রয় করতে চলেছে

২০১৩ সালে তিনি বলিউডে পা রেখেছিলেন সানি দেওলের হাত ধরে। ‘সিং সাব দি গ্রেট’ এটি ছিল তার জীবনের প্রথম সিনেমা। দেখতে দেখতে তিনি বলিউডে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছে গেছেন।

আরও পড়ুনঃ হাঁটুর বয়সী ইশানের সাথে রোম্যান্স করতে দেখা যাবে তাব্বুকে, জুনে মুক্তি

মারা গেলেন তামিল অভিনেতা সেতুরামান

তামিল অভিনেতা ও চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ সেতুরামান গতকাল মারা গেলেন তারঁর বয়স হয়েছিল ৩৪বছর।

তামিল ইন্ডাস্ট্রিতে শেঠু নামেও পরিচিত ছিলেন তিনি। তাঁর প্রথম ছবি হল কান্না লাড্ডু থিন্না আসাইয়া। তিনি ওয়ালিবা রাজা, সাক্কা পোদু পোদু রাজা এবং ৫০/৫০ এর মত ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। তিনি অভিনেতা হওয়া ছারাও একজন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞও ছিলেন এবং চেন্নাই তে তাঁর নিজস্ব ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন জি ক্লিনিক।

ডাঃ সেতুরামান ছিলেন অভিনেতা সান্থানামের ঘনিষ্ঠ বন্ধু, তিনি তাঁর বন্ধুর মৃত্যুর জন্য শোক প্রকাশ করে ট্যুইট করেছেন “আমার প্রিয় বন্ধু ডাঃ শেঠুর মৃত্যুতে পুরপুরি শোকাগ্রস্থ ও হতাশাগ্রস্থ এবং তাঁর আত্মা শান্তি পাক”।