জেনে নিন কী পরিবর্তন আসতে চলেছে মেট্রো পরিষেবায়!

আনলক ৪-এ মেট্রো চালুর ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্র। এই নিয়েই এদিন নবান্নে সরকারের সঙ্গে বৈঠক করে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। নবান্ন সূত্রের খবর, ১৪ কিংবা ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে কলকাতায় মেট্রো পরিষেবা চালু করার সম্মত দুই পক্ষেরই। মেট্রো সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলতে পারে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কোভিড গাইডলাইনে, মেট্রো চালু ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ছাড় দেওয়া হলেও, এই নিয়ে তাড়াহুড়ো করতে চাইছেনা মেট্রো ও রাজ্য। তাই মেট্রোতে যাতায়াত করার জন্য ১৪ কিংবা ১৫ তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। পরিষেবা চালু হলে সামাজিক দূরত্ব মানার জন্য কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। নবান্ন সূত্রে খবর, যে মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, একটি রেকে সর্বোচ্চ ৪৫০ জন যাত্রী থাকলে দূরত্ব বজায় থাকবে।

আরও পড়ুনঃ ১ নভেম্বরেই কি আমেরিকার বাজারে আসছে করোনা ভ্যাকসিন! জেনে নিন

রেক-এর সংখ্যা হল ১০০ বা তারও কম। রেক পিছু সাড়ে চারশো যাত্রীকে পরিষেবা দেওয়ার ভাবনা আছে মেট্রোর। কিন্তু, দমদম থেকে কবি সুভাষ পর্যন্ত রেকে মাত্র ৪৫০ জনই থাকবে, এটা নিশ্চিত কিভাবে করা যাবে! মেট্রোর তথ্যই বলছে যে, নোয়াপাড়া থেকে নিউ গড়িয়, এক একটি রেকে ৮টা কামরা থাকে। যাত্রীদের বসার আসন ৩৮৪টি। করোনার জেরে সেই সংখ্যা কমিয়ে করা হয়েছে ১২৮টি। কিছু লোক দাঁড়াতে পারবেন।

ক্রাউড ম্যানেজমেন্টের ব্যাপারে রাজ্য পুলিশের সহায়তা চেয়েছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। তাতে রাজ্য সরকার সম্মতিও দিয়েছে। যাঁদের এখন স্মার্টকার্ড আছে, শুধু তারাই উঠতে পারবেন মেট্রোতে। টোকেন দেওয়া হবেনা। নতুন করে স্মার্টকার্ড দেওয়া হবেনা। এই সময় মেট্রো কর্তৃপক্ষ একটি অ্যাপ তৈরীর কথা ভাবছেন, যা দিয়ে যাত্রীরা জানতে পারবেন কোন মেট্রো রেকে কতজন আছেন। কোন স্টেশনে কতজন অপেক্ষা করছে। প্ল্যাটফর্মে পাশাপাশি কতজন দাঁড়াবে। সেটাও নির্দিষ্ট করার চেষ্টা হচ্ছে। এখন আপাতত সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেট্রো চলবে। অফিস টাইমে দুটি মেট্রোর মধ্যে ফারাক থাকবে ১২ মিনিট। অন্য সময় ১৫ মিনিট।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে ফের শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে, শীঘ্রই টেটের বিজ্ঞপ্তি

Leave a Comment