পাকিস্তানে খোঁজ মিলল এক আশ্চর্য হিন্দু মন্দিরের

সোয়াটঃ শ্রমিকরা মাটি খুঁড়তে খুঁড়তে তাদের কোদাল পড়ে একটি ভারী জিনিসের উপরে। এরপর সেখানে ডাকা হয় ভূতত্ত্ববিদদের। যদিও আগে থেকে খবর পাওয়ার পর ওই এলাকায় শুরু হইনি খনন কাজ। খনন কাজ চলছিল।

খোদাই করার কাজ তারপর শুরু হলে অল্প সময়ের মধ্যেই সন্ধান মিলে প্রায় ১৩০০ বছরের পুরানো বিষ্ণু মন্দির। এই মন্দিরের খোঁজ মেলে দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের সোয়াট জেলায়। পাহাড়ের গায়ে এই পুরানো বিষ্ণু মন্দিরের খোঁজ পাওয়া গেলো।

আরও পড়ুনঃ কমবে মেদ ও সাথে জটিল রোগ, রোজ খান এই জিনিসটি

এই পুরানো মন্দিরের আবিষ্কারের কথা খাইবার পাখতুংখাওয়ার ভূতত্ত্ব বিভাগের ফাজলে খালিক ঘোষণা করেন। খননকাজ পুরোপুরি শেষ হবার পর এই মন্দিরটি যে বিষ্ণু মন্দির সেই ব্যপারে নিশ্চিত হন খালিক। তিনি জানান যে, এই মন্দিরটি যে সময়কার অর্থাৎ প্রায় ১৩০০ বছর আগে পূর্ব আফগানিস্তান ও কাবুল উপত্যকা হিন্দু রাজার অধীনে ছিল। এই মন্দির এই সময় ই তৈরী হয়েছিল।

এখানে মন্দিরের পাশাপাশি আরও কিছুর সন্ধান মেলে। ভূতত্ত্ববিদরা একটি ওয়াচ টাওয়ারও খুঁজে পেয়েছেন। এর সঙ্গে মিলেছে সেই সময়ের জলাশয় ও স্নানাগারেরও।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

Leave a Reply