দেওরের এই পরিণতি না মানতে পেরে, মৃত্যু হল সুশান্তের বৌদির

মাত্র ৩৪ বছর বয়সে চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। কি কারণে তাকে এই পদক্ষেপ নিতে হল তা এখনও জানা যাইনি। এর মধ্যে মৃত্যু হল তার বৌদির। তাঁর দেওরের মৃত্যু খবরে মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছিলেন তিনি। এই কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে সংবাদমাধ্যম সূত্রে।

সোমবার যখন সুশান্তের শেষকৃত্য চলছিল, তখন বিহারের পূর্ণিয়া জেলায় মলডীহা গ্রামে তাঁর বৌদি সুধাদেবীর মৃত্যু হয়। সম্পর্কে তিনি সুশান্তের তুতো বৌদি। তিনি অসুস্থ ছিলেন কয়েকদিন ধরে। দেওরের মৃত্যুর খবরে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে।

আরও পড়ুনঃ মৃত্যুর আগের রাতে সুশান্তের ফোন ধরেননি রিয়া, তাঁদের সম্পর্ক কি ভেঙ্গে গিয়েছিল!

সুধাদেবীর স্বামী অমরেন্দ্র সিংহ জানান সংবাদমাধ্যমকে, সোমবার সকাল থেকে সুধাদেবীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হচ্ছিল। বিকেল ৫ টায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

সুশান্তের মৃত্যুতে গোটা দেশে শোকের ছায়া। এখনও অনেকে বিশ্বাস করতে পারছেন না সুশান্ত আমাদের মধ্যে আর নেই। বিহারের পটনায় যে এলাকায় বড় হয়েছেন তিনি, সেখানকার মানুষ এখনও পর্যন্ত তাঁর এই পরিণতি মেনে নিতে পারছেন না।

আরও পড়ুনঃ সুশান্ত সিং রাজপুত জীবনে কি কি চেয়েছিলেন তা দেখে নিন এক নজরে

Leave a Comment