চিন নিয়ে এলো নতুন এক পদ্ধতির করোনা টিকা

Corona Virus

নাসাল স্প্রের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের টিকা-এর কথা ভাবছে চিন। এই নাসাল স্প্রে ভ্যাকসিনের পরীক্ষায় তারা সিলমোহর দিয়েছে। দেশের সরকারি সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে। এই নাসাল স্প্রের প্রথম পর্বের পরীক্ষা শুরু হতে পারে নভেম্বরে। এখন ১০০ জন স্বেচ্ছাসেবককে বেছে নেওয়ার কাজ চলছে। এই প্রথম এ ধরণের টিকা আনার চেষ্টা চলছে, এই পরীক্ষায় সম্মতি দিয়েছে চিনের ন্যাশনাল মেডিক্যাল প্রডাক্টস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন।

আরও পড়ুনঃ কমবে মেদ ও সাথে জটিল রোগ, রোজ খান এই জিনিসটি

এই টিকা তৈরীতে যোগ দেন, হংকং বিশ্ববিদ্যালয়, জিয়ামেন বিশ্ববিদ্যালয় এবং বেজিং ওয়ানতাই বায়োলজিক্যাল ফার্মেসির গবেষকরা। হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইউয়েন কোক উয়াং বলেছেন, জীবাণু যাতে শ্বাসপ্রশ্বাসের মাধ্যমে শরীরে না ঢুকতে পারে, সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে এই টিকা।

তাঁদের দাবি, এই টিকা করোনা ও সঙ্গে ইনফ্লুয়েঞ্জা থেকেও নিরাপত্তা দেবে, এইচ১এন১, এইচ৩এন২ ও বি ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসকে রোধ করবে এই টিকা। তাঁরা জানান। এই টিকার তিনটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শেষ হতে অন্তত আরও ১ বছর লাগবে।

আরও পড়ুনঃ চিনের বিরুদ্ধে এবার কঠোর পদক্ষেপ আমেরিকার

চিনের বিরুদ্ধে এবার কঠোর পদক্ষেপ আমেরিকার

us-doing-investigation-against-china

ওয়াশিংটনঃ চিনের বিরুদ্ধে আরও এক দফা কঠোর পদক্ষেপ আমেরিকার। এবারে একেবারে এক ধাক্কায় ১০০০ চিনা নাগরিকের ভিসা বাতিল করলো ট্রাম্প প্রশাসন। যাঁদের ভিসা বাতিল করা হয়েছে, তাঁদের বেশিরভাগই পড়ুয়া এবং গবেষক। দেশের নিরাপত্তার জন্য বিপজ্জনক, এই যুক্তিতেই বাতিল করা হয়েছে চিনা পড়ুয়া ও চিনা গবেষকের ভিসা। আমেরিকা সরকারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, গত ২৯ মে তে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের করা সরকারি ঘোষণা অনুসারেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ শব্দের থেকে ৬ গুণ গতির মিসাইল বানিয়ে বিশ্বের দরবারে চতুর্থ এখন ভারত

মার্কিন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্টের তরফে দাবি করা হয়েছে, গবেষণার নাম করে এইসব ছাত্রছাত্রীদের মাধ্যমে চিনের সামরিক বাহিনীর হাতে কৌশলগত ভাবে গুরুত্বপূর্ণ ও সংবেদনশীল তথ্যের পাচার রুখতেই এইরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্টের প্রধান চ্যাড উল্ফ দাবি করেছেন যে, ছাত্রছাত্রীদের দেওয়া ভিসার অপব্যবহার করে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত শিল্প এবং বানিজ্য ক্ষেত্রের তথ্য চুরির জন্য চিন গুপ্তচরবৃত্তি চালাচ্ছে। এর সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, চিনের জিনজিয়াং অঞ্চলে যে নির্যাতন চালানো হচ্ছে মুসলিমদের উপরে বলে অভিযোগ, তার প্রতিবাদেও পদক্ষেপ করছে আমেরিকা।

আরও পড়ুনঃ বন্ধ গ্লোবাল ট্রায়াল, তবে ভারত কী চালাতে পারবে ট্রায়াল!

ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যার বিচারে দ্বিতীয় স্থান, কিছু সময়ের ব্যবধানে

Covaxin trial

আর কিছু সময়ের ব্যবধানে ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যাবে। এই রকম তথ্য তালিকা সামনে আসতেই মানুষের মধ্যে এক আতঙ্কের ছবি ফুটে উঠেছে।

বেশ কিছু দিন ধরে ভারতে প্রতি দিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ – ৮০ হাজার হয়েছে। যা বিশ্বে কোনো দেশে এর আগে দেখা যায়নি। ভারতেই সব থেকে বেশি সংখ্যক দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা দেখা গেছে। আর তার পর থেকেই ভারতের বেশ কিছু স্থানে বেশি পরিমান করোনা ভাইরাসের প্রভাব দেখা গেছে।

আরও পড়ুনঃ জেনে নিন কী পরিবর্তন আসতে চলেছে মেট্রো পরিষেবায়!

তবে সব থেকে বেশি সংখ্যক করোনা ভাইরাসের প্রভাব দেখা গেছে আমেরিকা, ব্রাজিল ও তার পরে রয়েছে ভারত। কিছু মৃতের হার সব থেকে বেশি আমেরিকায়। দ্বিতীয় স্থানে ব্রাজিল ও তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।

কিন্তু ভারতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে বেশি হওয়ায় মনে করা হচ্ছে যে আগামী ১ দিনের মধ্যেই ভারত ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যাবে। কারণ ব্রাজিলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪,১২৩,০০০ ও ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪,১১৩,৮১১।

তবে এই ভাবে বাড়তে থাকলে আগামী কিছু দিনের মধ্যেই ভারত করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের নিরিখে বিশ্বে প্রথম স্থান নেবে।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে ফের শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে, শীঘ্রই টেটের বিজ্ঞপ্তি

১ নভেম্বরেই কি আমেরিকার বাজারে আসছে করোনা ভ্যাকসিন! জেনে নিন

Covaxin trial

ওয়াশিংটনঃ ১ নভেম্বরেই কি আমেরিকার বাজারে চলে আসবে করোনা ভ্যাকসিন? ট্রাম্প প্রশাসনের এক নির্দেশিকাকে ঘিরে জোরালো হয়েছে এই জল্পনা।

ওই নির্দেশিকায় আমেরিকার সবকটি প্রদেশকে বলা হয়েছে, নভেম্বরের ১ তারিখ থেকে করোনা ভ্যাকসিন সরবরাহ ও বন্টনের জন্য তৈরী থাকতে। মার্কিন ফুড অ্যান্ড, ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ইঙ্গিত দিয়েছে যে, ট্রায়াল পর্ব শেষ হওয়ার আগেই জরুরি ভিত্তিতে বাজারে ভ্যাকসিন আনার অনুমতি দেওয়া হতে পারে।

আরও পড়ুনঃ শুধুমাত্র গরম জলেই ১২ কেজি পর্যন্তও ওজোন কমান!

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)-এর অধিকর্তা রবার্ট রেডফিল্ড গত ২৭ তারিখ একটি চিঠির মাধ্যমে ভ্যাকসিন বন্টন কেন্দ্রের আবেদনপত্র চেয়ে সকলের কাছে আহ্বান জানান।

প্রথম কাদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে! ট্রাম্প প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, জরুরি পণ্যের সঙ্গে যুক্ত কর্মী, নিরাপত্তাকর্মী, প্রবীণ নাগরিক ও বিপদসীমায় থাকা মানুষজন এদের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ মোবাইল পরিষেবার খরচ বাড়তে চলেছে, ইঙ্গিত দিলেন সুনীল মিত্তল

বড় সুখবর! স্পুটনিক ভ্যাকসিন নিয়ে ভারত-রাশিয়া আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ

successful test of covid-19 in america vaccine will be available at the end of year

জল্পনার অবসান ঘটলো। স্পুটনিক ভ্যাকসিন নিয়ে রাশিয়া-ভারতের আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ শুরু হল। সুত্রের খবর, মঙ্গলবার সকালেই রাশিয়ান প্রতিনিধি ভারত সরকারের সঙ্গে রাশিয়ার কোভিড ভ্যাকসিন স্পুটনিকের তথ্য নিয়ে আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ স্থাপন করেছে।

কয়েকদিন ধরেই মস্কোর ভারতীয় দূতাবাসের তরফে Gamaleya Research Institute ও Russian Defence Ministry-এর কথাবার্তা চালানো হচ্ছিল এই ভ্যাকসিন নিয়ে। ট্রায়াল ও কার্যকারিতা সংক্রান্ত তথ্য চাওয়া হয়েছিল।

আইসিএমআর ও বায়োটেকনোলজি ডিপার্টমেন্টের তরফেও তথ্য চাওয়া হয় ভ্যাকসিনটির সম্পর্কে। সুত্রের খবর সেই তথ্য এদিন বিনিময় হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ করোনা অতিমারীর শেষ কবে, জানালো হু

রাশিয়া বেশ কিছুদিন ধরে দাবি করছিল, যে দেশগুলিকে রাশিয়া ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দিচ্ছে তার মধ্যে রয়েছে ভারতও।

করোনার ভ্যাকসিন কবে আসছে এই নিয়ে যখন সারা বিশ্ব দুশ্চিন্তায়, তখন বাজিমাত করলো রাশিয়া। ১১ অগাস্ট মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, এই ভ্যাকসিনকে তাঁর স্বাস্থ্যমন্ত্রক অনুমোদন দিয়েছে। এই অনুমোদন ভ্যাকসিনটি প্রথম দেওয়া হয় রুশ প্রেসিডন্টের মেয়ের দেহে।

আরও পড়ুনঃ মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এল শিব লিঙ্গ, মহাদেবের দর্শনে নেমেছে মানুষের ঢল

করোনা অতিমারীর শেষ কবে, জানালো হু

corona pandemic

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা হু বিশ্ববাসীকে আশার দিশা দেখালো। বিশ্বজুড়ে চলা করোনা মহামারী কবে শেষ হতে পারে তা জানালো হু-এর প্রধান তেদ্রস আধানম গেব্রেসুস। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার আশা, আগামী ২ বছরের মধ্যেই বিশ্ব থেকে বিদায় নেবে করোনা। এই মহামারীর অবসান হবে ২ বছরের মধ্যেই।

গেব্রেসুসের কথায়, করোনা মহামারী হল একটি শতাব্দীর স্বাস্থ্য সঙ্কট। ১৯১৮ সালের ফ্লু-এর থেকে বেশি তাড়াতাড়ি করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। এর কারণ গ্লোবালাইজেশন বা বিশ্বায়ন। কিন্তু এখন এই মহামারী আটকানোর প্রযুক্তি রয়েছে, যা ১০০ বছর আগে ছিল না।

আরও পড়ুনঃ আদা নিয়মিত সেবনে কমবে হৃদরোগের সম্ভাবনা, জেনে নিন বিস্তারিত

হু-এর প্রধান বলছেন যে, আশা করছি যে ২ বছরের কম সময়ের মধ্যেই এই মহামারীর অবসান ঘটবে। যদি আমরা খুব জোরদার চেষ্টা করি। ১৯১৮ সালের মহামারী শেষের আগেই করোনার অবসান ঘটতে পারে।

আরও পড়ুনঃ আগে ছিল বাঘ, এখন বেড়াল, করোনা সম্পর্কে কি বলছেন বিশেষজ্ঞরা

H-1B নিয়ন্ত্রণ শিথিল করলো ট্রাম্প, আবার আগের চাকরিতে ফেরা যাবে আমেরিকায়

H-1B visa

ওয়াশিংটনঃ H-1B ভিসা নিয়ন্ত্রণ কিছুটা শিথিল করলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। গত ২২ জুন H-1B ভিসা চলতি বছরের জন্য নিষিদ্ধ করার ঘোষণা করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আমেরিকায় কজ করার জন্য যে ভিসা দেওয়া হয় তাকে H-1B ভিসা বলা হয়। এই ভিসা একটি নির্দিষ্ট সময়ের জন্য জারি করা হয়ে থাকে। আর এই ভিসা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেন ভারতীয় আইটি কর্মীরা। এই ভিসা বাতিলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে ভারতীয় কর্মীদের।

H-1B ভিসা নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন নতুন সিদ্ধান্ত নিলো, H-1B নিষিদ্ধ হওয়ার আগে যে সকল বিদেশি নাগরিক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছেড়েছিলেন, তাঁরা আবার একই চাকরিতে আমেরিকা ফিরতে পারবেন। H-1B ভিসায় তাদের নিষেধাজ্ঞা থাকছেনা।

আরও পড়ুনঃ ঘরের মধ্যে লুকিয়ে বিশাল গোখরো, দেখুন তারপর কি হল

মার্কিন ডিপার্ট্মেন্ট অফ স্টেট অ্যাডভাইসারি জানিয়েছেন, শুধুমাত্র ওই ব্যাক্তিই নয়, তাঁর সাথে তাঁর স্বামী, স্ত্রী ও সন্তানরাও ফিরতে পারবেন আমেরিকায়। টেকনিক্যাল, স্পেশালিস্ট, সিনিয়র লেভেল ম্যানেজারসহ অন্যান্য কর্মী যাদের H-1B ভিসা আছে তাঁরা ফিরতে পারবেন আমেরিকায়।

আরও পড়ুনঃ এবার জম্মু কাশ্মীরের পুলিশের ফাঁদে কুখ্যাত লস্কর জঙ্গি আকিব আহমেদ

পেঁয়াজের সাথে হাজির আর এক বিপদ! হুহু করে ছড়াচ্ছে নতুন এই সংক্রমন

onion

বিশ্ববাসীর কাছে এখন সব থেকে বড় বিপদ করোনা। তার মাঝেই হাজির আর এক ভয়ানক জীবাণু। যার কারনে প্রায় ৬৪০ জন মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। জানা যাচ্ছে, এই জীবাণুর নাম সালমোনেল্লা। যার কারনে প্রায় ৮৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সালমোনেল্লা জীবাণু সংক্রমণের মূল উপসর্গ ডায়েরিয়া। মানব দেহে প্রবেশের ৫ থেকে ৬ দিনের মাথায় এই রোগের উপসর্গ দেখা দেয়। বিশেষকরে ৫ থেকে ৬৫ বছর বয়সী মানুষের এই জীবাণু আক্রমনের প্রবনতা বেশি।

আরও পড়ুনঃ জারী কমলা সতর্কতা, প্রবল বৃষ্টির সম্ভবনা দফায় দফায়, জেনে নিন আপডেট

আমেরিকার ৪৩ টি প্রদেশে এই জীবাণু ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ছড়িয়ে পড়ার মাধ্যম হল পেঁয়াজ। পেঁয়াজ থেকেই নাকি ছড়িয়ে গেছে এই ভায়ানক জীবাণু।

এতি মধ্যেই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। ফলে পেঁয়াজ খাওয়া যাবে না, বিক্রি করা যাবে না, আর রান্নাতেও দেওয়া যাবে না। শুধু তাই না, এই সতর্কতা জারি হয়েছে, লাল, হ্লুদ, সাদা পেঁয়াজে।

আরও পড়ুনঃ শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অবশ্যই খান খেজুর

চিনে আবার নতুন রোগের দেখা মিলল, জেনে নিন এই মারন রোগের উপসর্গ

coronavirus

বেজিংঃ আবার এক নতুন ছোঁয়াচে রোগের উপদ্রব চিনে। ইতিমধ্যেই ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে এই রোগে, এবং অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ৬০ জন। হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন আধিকারিকরা, মানুষের থেকে মানুষের এই রোগের সংক্রমণ হতে পারে।

এই জীবাণুটির নাম এসএফটিএস ভাইরাস। পূর্ব চিনে জিয়াংসুতে ৩৭ জনের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন এই রোগে। আনহুই প্রদেশেও ২৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এই রোগের লক্ষণ হল, জ্বর, কাশি, রক্তের প্লেটলেট কমে যাওয়া। আনহুই ও ঝেইজাং প্রদেশে অন্তত ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে এই রোগে।

আরও পড়ুনঃ বেইরুটে বীভৎস বিস্ফোরণ, গাড়ি উড়ে গেলো তিন তলা অবধি

তবে শোনা যাচ্ছে, এই ভাইরাস নতুন কোনও জীবাণু নয়, ২০১১ সালেই চিনা বিজ্ঞানীরা সক্ষম হন। এর প্যাথেজেন আলাদা করতে। এটি বুনিয়াভাইরাস ক্যাটাগরির অন্তর্গত। ভাইরোলজিস্টদের বিশ্বাস, এই রোগ এঁটুলি পোকা থেকে মানুষের শরীরে ছড়িয়েছে।

এই রোগের প্রধান কারণ এঁটুলি পোকার কামড়, তবে মানুষ একটু সাবধানে থাকলে এই জীবাণু সংক্রমণের খুব বেশি আতঙ্কের কারণ নেই।

আরও পড়ুনঃ শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অবশ্যই খান খেজুর

বেইরুটে বীভৎস বিস্ফোরণ, গাড়ি উড়ে গেলো তিন তলা অবধি

Beirut

বেইরুটঃ বেইরুটে বীভৎস বিস্ফোরণ। খবর আসার পর থেকেই একের অর এক ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সংবাদ মাধ্যম থেকে সাধারণ মানুষের তোলা ভিডিও নিয়ে শোরগোল পড়ে যায় সারা পৃথিবী জুড়ে। ভয়াবহ সেই ভিডিও।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন যে, বিস্ফোরণের তীব্রতায় কেঁপে ওঠে শুধু সংলগ্ন এলাকাই নয়, এর থেকেও বেশি দূর ছড়িয়েছিল তীব্রতা। এই ভয়ংকর বিস্ফোরণে এক একটি গাড়ি উড়ে গিয়েছিল তিন তলা থেকে।

লেনাননের বেইরুটে মঙ্গলবার পরপর দুটি বিস্ফোরণ ঘটে। সমুদ্রে দাঁড়িয়ে থাকা একটি জাহাজ বীভৎস শব্দে ফেটে যায়। এর তীব্রতা ১০ কিলোমিটার অবধি ছড়িয়ে যায়।

এখনও পর্যন্ত প্রায় ৭০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। এর পাশাপাশি আহত প্রায় ৪০০০ মানুষ।

আরও পড়ুনঃ আজ বেলা সাড়ে ১২ টায় রামমন্দিরের ভূমিপুজোর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

এই ঘটনাটি সমুদ্র বন্দরের আশেপাশে কোনও এলাকায় বিস্ফোরণটি ঘটলেও এর অভিঘাত ছড়িয়ে পরেছে বহু দূর। ঘর বাড়ির কাচ ভেঙ্গে গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ আবার হুড়মুড়িয়ে ধসে পড়ল বহুতল, উদ্ধার কার্জ চলছে, দেখুন ভিডিও