রাত ১২ টা থেকে সমগ্র দেশে লকডাউন

lockdown

করোনা ভাইরাসের জেরে প্রতিদিন বেড় চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই কথা মাথায় রেখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ রাত ১২ টা থেকে গোটা দেশে জারি করলেন লকডাউন। ঘরে নিজেকে বন্ধ রাখার কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি এই ভয়াবহ রোগের ব্যপারেও মানুষকে সানধানতা বজায় রাখতে বললেন।

দেশের অর্থনেতিক অবস্থার কথা মাথায় রেখে প্রধানুমন্ত্রী এই সিন্ধান্ত গ্রহন করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সামাজিকভাবে দূরত্ব বজায় রাখার কথা বলেন।

২২ মার্চ প্রথমবার এক দিনের জন্য জনতা কার্ফু জারি করা হয়েছিল। সেই দিন ভারতবাসী একত্রিতভাবে সমর্থন করেছিল। তারপর বিভিন্ন রাজ্য সরকার লকডাউনের মতো পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। আর এই বার এক বড় সিন্ধান্ত গ্রহন করে সমগ্র দেশে আগামি ২১ দিন ধরে চলবে এই লকডাউন।

মঙ্গলবার রাত থেকে অভ্যন্তরীন বিমান বন্ধ হবে

passenger-plane-service-stoped-from-24-march-midnight

মঙ্গলবার রাত ১২টা থেকে বন্ধ হতে চলেছে সব অভ্যন্তরীণ বিমান চলাচল। আজ মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কেন্দ্রে চিঠি পাঠান। আর আবেদন করেন সব যাত্রীবাহী বিমান বন্ধ করার জন্য। সেই কথাকে মাথায় রেখে কেন্দ্র সিন্ধান্ত নেয় যে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সকল যাত্রীবাহী বিমান চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে মাল বাহী বিমান বন্ধের কোন আদেশ দেওয়া হয়নি।

এই সিন্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে যাওয়ার কথাকে মাথায় রেখে। বর্তমানে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৫৬ জন। আর এই সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এই পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়েছে সকল মহল থেকে। বিমান বন্ধ রাখার ফলে করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া কিছুটা হলেও বন্ধ করা সম্ভব হতে পারে বলে ধারনা।

লকডাউন না মানলে ৬ মাসের জেল ও জরিমানা

lockdown-in-india

ভারতে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা গত দু’দিনে লাফিয়ে বেড়েছে। শুধুমাত্র এক দিনেই মৃত ৩।

এই পরিস্থির মোকাবিলা করতে জনতা কার্ফু পালনের মাঝেই কেন্দ্র থেকে লকডাউনের কথা বলা হয়েছে। তারপর সোমবার বিকেল ৫টার পর থেকে পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। সাথে এও বলা হয় যে এই লকডাউন অমান্য করা মানে অপরাধ। হতে পারে শাস্তি। এক নজরে দেখে নিন কোন আইন ভাঙলে কি সাজা হতে পারে।

১৪৪ ধারা – দেশের বিভিন্ন জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এই আইন ভাঙলে হতে পারে ছ’মাসের জাল ও ১০০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা।

১৮৮ ধারা – এই আইন সরকারি নির্দেশ অমান্য করলে প্রযোজ্য হবে।

২৬৯ ধারা – এই ধারা জারি করা হলে জামিন অযোগ্য হয়ে পড়ে।

২৭০ ধারা – বিপদজ্জনক সংক্রমণ ব্যাধি ছড়াতে থাকলে এই ধারা জারি করা হয়ে থাকে। এই ধারা জারি হলে জামিন অযোগ্য হয়ে পড়ে ২ বছর পর্যন্ত।

২৭১ ধারা – এই ধারা প্রযোজ্য করা হয়ে থাকে কোয়ারেন্টাইনের আইন ভাঙলে।

এই লকডাউন সোমবার বিকাল ৫ টা থেকে চলবে শুক্রবার ২৭ মার্চ পর্যন্ত। রাজ্য সরকার ও কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ নেওয়া হয়েছে।

প্রধান মন্ত্রীর আহ্বানে বিকাল ৫ টায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন সমগ্র ভারতবাসীর

দিন কয়েক আগে প্রধান মন্ত্রী ২২ শে মার্চ সকাল ৭ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত সবাইকে ঘরে থাকা কথা বলেন। এই সময়ের মধ্যে নিজেকে এক প্রকার গৃহ বন্দি করার কথা বলেন। এই কথা বলার কারন ছিল করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া বন্ধ করা। বর্তমানে ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন দ্রুত গতিতে বেড়ে চলেছে। আর এই কথা মাথায় রেখে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জনতা কার্ফুতে সবাইকে অংশ গ্রহনের আহ্বান জানান।

তার সাথে তিনি এও বলেন যে রবিবার ঠিক বিকাল ৫ টায় হাততালি অথবা অন্য যেকোন জিনিস দিয়ে শব্দ করতে সেই সব মানুষদের উদ্দেশ্যে যারা করোনা আক্রান্তদের সেবায় নিযুক্ত। তিনি চিকিৎসার সাথে যুক্ত মানুষকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করতে বলেন।

সেই দৃশ্য দেখা যায় ঠিক বিকাল ৫ টার সময়। সমগ্র ভারতবাসী এক সাথে বিভিন্ন জিনিস যেমন শঙ্খ, কাঁসর, থালা, হাততালি দিয়ে তাই করে সবাইকে কৃতজ্ঞতা প্রেরন করলেন।

এবার হাবরায় তৃতীয় করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল, রাজ্যে

রাজ্যে আবারও মিলল করোনাভাইরাস এর হদিশ। এবার আক্রান্ত হল উত্তর ২৪ পরগনা জেলার হাবরার বাসিন্দা। স্কটল্যান্ড থেকে তিনি ফিরেছেন কিছুদিন আগেই। শুক্রবার রাতে কোভিড-১৯ ভাইরাস এর উপস্থিতি মেলে তার শরীরে। রিপোর্ট পসিটিভ মেলে। তাঁকে বর্তমানে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এর কদিন আগেই ইংল্যান্ড ফেরত দুজনের শরীরে কভিড-১৯ ভাইরাস এর উপস্থিতি মিলেছিল।

বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা করোনায় আক্রান্ত

bollywood-singer-kanika-kapoor-tests-positive-for-coronavirus

বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা কনিকা কাপুর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই বেবি ডল – এর গায়িকা কিছুদিন ধরে লন্ডনে সময় কাটাচ্ছিলান।

এই খবর তিনি মানুষের মাঝে প্রকাশ করেন ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে। তিনি লেখেন, “For the past four days, I have had signs of flu, I got myself tested and it came positive for Covid- 19. My family and I are in complete quarantine now and following medical advice on how to move forward. Contact mapping of people I have been in touch with is underway aswell. I was scanned at the airport as per normal procedure 10days ago when I came back home, the symptoms have developed only 4 days ago. “

তিনি আরও জানান, “At this stage I would like to urge you all to practice self isolation and get tested if you have the signs.

I am feeling ok, like a normal flu and a mild fever, however we need to be sensible citizens at this time and think of all around us.

We can get through this without panic only if we listen to the experts and our local, state and central government directives.

Wishing everyone good health. Jai Hind ! Take care,”

এই কথার মধ্য দিয়ে তিনি প্রতিটি মানুষকে আতঙ্কিক হওয়ার থেকে দূরে থাকতে বলছেন। এবং নিকটবর্তী সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর কথাও বললেন।