টাকার অভাবে সুপারকার ড্রাইভার হয়ে উঠলেন নীল ছবির জনপ্রিয় অভিনেত্রী

Renee Gracie

অস্ট্রেলিয়ার সুপারকার ড্রাইভার ছিলেন রিনি গ্রেসি। তিনি এক সময় নাম লিখিয়ে ছিলেন নীল ছবির জগতে। তারপর থেকেই আস্তে আস্তে মানুষের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। মানুষ জানতে পারে তার জীবনের অনেক অজানা কথা।

তার জীবনের অনেক আজানা কথার মধ্যেই উঠে আসে তার নীল ছবির জগতে পা রাখার গল্প। তাতে তিনি জানিয়েছিলেন, জীবনের এক সময় তিনি খুবই আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে তাঁর জীবন অতিবাহিত হচ্ছিল। সেই সময় তার কাছে কোনো আর কোনো রাস্তা ছিলনা আর্থিক সংকট দূর করার। তাই তিনি ঠিক করে ছিলেন নিল ছবির দুনিয়াতে পা রাখবেন।

আরও পড়ুনঃ নীল বিকিনি তে উষ্ণতা ছড়ালেন অভিনেত্রী সাক্ষী, ভাইরাল দৃশ্য

তার ওই পদক্ষেপে আজ বিশ্ব জুড়ে তৈরি হয়েছে ফ্যান। মানুষ তাঁকে নিয়ে আলোচনা করে। কেউ ভাল কথা বলে থাকেন, আবার কেউ কটুউক্তি করে থাকেন। তবে তাতে রিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, যে যাই বলুক না কেন তাতে কিছু আসে যায় না তার। তিনি এও জানান, এই পেশা বেছে নেওয়াতে তার পরিবারের দিক থেকে তাঁকে পূর্ন সমর্থন দিয়েছে। এতে তারা খুশি।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা থেকে ৬টি শহরে চালু আংশিক উড়ান পরিষেবা, জানুন বিস্তারিত

টিকটকে ভিডিও বানাতে গিয়ে তরুনি খেলেন কুকুরের কামড়, ভিডিও ভাইরাল

Viral Social Media Video

টিকটক মানুষের মনে এমনভাবে গেঁথে গেছে যে যেখানেই সুযোগ পায় সেখানেই ভিডিও বানাতে শুরু করে দেয় টিকটকাররা। তার ফলে বহু তরুন-তরুণীর জীবন গেছে অকালে। মানুষ সেই তথ্য জানে তবুও, জীবনের ঝুকি নেয় মানুষ।

তার উপরে ভারত-চিন সম্পর্ক ভালো না থাকায় ভারতের মানুষ চিনা অ্যাপ ব্যবহার করা পছন্দ করছে না। ফলে বহু মানুষ চিনা অ্যাপ ফোন থেকে ডিলিট করে ফেলছে। এরই মাঝে নেট ব্যবহারকারীদের চখে এল এক টিকটক ভিডিও। যেখানে এক তরুণীকে কুকুরে কামড়তে দেখা যাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ গাড়ির ভিতরে যৌন সঙ্গম, রাষ্ট্র সংঘের আধিকারিকের ভিডিও ভাইরাল

তরুণী সেই সময় টিকটকের জন্য ভিডিও বানাচ্ছিল। সেই সময় কিছু ব্যবধানে উপস্থিত থাকা এক কুকুর এসে কামড় দেয় তরুণীর পায়ে। সেই সময় ওই তরুণী “যারা যারা টাচমি” গানে টিকটক ভিডিও বানাচ্ছিল।

কুকুরের কামড় জোড়ালো না থাকলেও তরুণীকে ইনজেকশন নিতে হয়।

আরও পড়ুনঃ সুশান্ত কি বেঁচে ছিলেন, হাতের আঙুল নড়তে দেখা যায় ভিডিওতে

সুশান্ত কি বেঁচে ছিলেন, হাতের আঙুল নড়তে দেখা যায় ভিডিওতে

sushant singh rajput commits suicide

সুশান্তের আত্মহত্যার ঘটনা মানুষের মনে দাগ কেটেছে। সুশান্ত মারা যাওয়ার পর প্রথম তার পরিচারিকাই দেখতে পায়। পুলিশে খবর দেওয়া হলে তারই মাঝে সুশান্তের মৃতদেহ বিছানাতে শুয়ে রাখা অবস্থাতে বেশ কিছু ছবি নেটজগতে ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে সুশান্তের গলাতে রক্তের স্পষ্ট দাগ দেখতে পাওয়া যায়। তবে বর্তমানে একটি ভিডিও সামনে এসেছে যেখানে সুশান্তের হাতের আঙুল নড়েছে বলে দাবি বহু মানুষের।

দাবিঃ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তার ঘরে যখন পুলিশ এসে পৌঁছায় সেই সময় এক জন সশান্তের দেহ সাহা চাদর দিয়ে ধাকতে দেখা যায় একটা ভিডিওতে। সেই সময় সেই ভিডিওতে সুশান্তের হাতের আঙুল নড়ছিল বলে দাবি করে নেটিজেনরা। তবে ভিডিওটির কোয়ালিটি তেমন ভাল নয়। পিক্সাল ফেটে যাওয়ার করনে স্পষ্টভাবে কিছু দেখা যায়নি।

আরও পড়ুনঃ গাড়ির ভিতরে যৌন সঙ্গম, রাষ্ট্র সংঘের আধিকারিকের ভিডিও ভাইরাল

তবে এখন প্রশ্ন দাঁড়ায়, সুশান্ত সিং রাজপুত কি তাহলে বেঁচে ছিল। একের পর এক প্রশ্নে ভরে উঠছে সোশাল মিডিয়া। ফলে কিছু মানুষের দাবি সুশান্ত বেঁচে ছিলেন। আবার এক দল মানুষের কথায় এই আঙুল নড়ার ঘটনা একেবারে ভুয়ো। এতে কোনো সত্যতা নেয়। ভিডিওটি পর্যবেক্ষন করে তেমন কিছু দেখা যায় না। ভিডিওটির গতি কমিয়ে চালোনা করলে, বা জুম করে দেখেও সেরকম কিছু দেখা যায় না ভিডিওতে। এখনও পর্যন্ত পুলিশের তরফ থেকে কিছু বলা হয়নি।

কোয়ালিটি খারাপ থাকায় মানুষ ভিডিওটিতে সুশান্তের হাতের আঙুল নড়তে দেখে। এছাড়া স্পষ্টভাবে কিছুই বোঝার উপায় নেই ভিডিওটিতে। তার ফলেই সুশান্তের মৃত্যুতে জড়িয়ে যায় এই বিষয়টি।

আরও পড়ুনঃ সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

গাড়ির ভিতরে যৌন সঙ্গম, রাষ্ট্র সংঘের আধিকারিকের ভিডিও ভাইরাল

United Nation Official having sex in car

রাষ্ট্র সংঘের এক আধিকারিকের যৌন কেলেঙ্কারি গোটা বিশ্বের সামনে এল। সেই ভিডিও ভাইরাল হল। সেই নিয়েই রীতিমত শোরগোল পড়েছে বিশ্ব জুড়ে। রাষ্ট্র সংঘের এক আধিকারিককে গাড়ির ভিতর এক মহিলার সাথে সঙ্গমে লিপ্ত অবস্থায় দেখা গেছে। সেই ভিডিও ভাইরাল নেটদুনিয়াতে। ভিডিও সামনে আসতেই টনক নড়েছে রাষ্ট্র সংঘের। এই ঘটনার তদন্ত হবে বলে জানা যাচ্ছে সংস্থার পক্ষ থেকে।

ভিডিওটি নেওয়া হয়েছে তেল আবিবের একটি রাস্তা থেকে। ভিডিও নেওয়া ব্যক্তি সেই সময় সেই রাস্তার ধারের এক ফ্ল্যাটে ছিলেন। গাড়ির কাঁচ লাগানো থাকলেও আলো পড়াতে সব কিছু বাইরে থেকে দেখা যাচ্ছিল। লাল পোষাকের এক মহিলা রাষ্ট্র সংঘের এক আধিকারিকের সঙ্গে সঙ্গমে লিপ্ত ছিল। তবে ওই গাড়ির ভিতরে থাকা মহিলা ও পুরুষের মুখ দেখা যায়নি। কিন্তু সঙ্গমের দৃশ্য ধরা পরে ক্যামেরাতে। দেখা গেছে আধিকারিক, লাল পোষাকে মহিলা ছাড়াও এক ব্যক্তি সামনের সিটে বসে থাকতে দেখা যায়।

আরও পড়ুনঃ ‘অর্ধনগ্ন’ অবস্থায় কলকাতার রাস্তায় এক নেশাগ্রস্ত তরুণী, উদ্ধার করল পুলিশ

যৌনতা নিয়ে কড়া ব্যবস্থা রয়েছে রাষ্ট্র সংঘে। যৌন শোষনের বিরুদ্ধে বার বার সোচ্চার হয়েছে রাষ্ট্র সংঘ। এই বিষয়টি সামনে আসতেই খতিয়ে দেখা হবে বলে জানায় সংস্থার পক্ষ থেকে। খুব তারাতাড়ি গাড়িতে থাকা ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা হবে বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

cbse-class-10-students-exams-cancelled

কলকাতাঃ ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ শ্রেণীর ফল প্রকাশ। আজ সুপ্রিম কোর্টে আজ মামলার শুনানি ছিল। সেই মামালাতে সিবিএসই-র দশম-দ্বাদশ বাকি পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করার নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

সূত্রের খবর-এ জানা গেছে কীভাবে পরীক্ষার মুল্যায়ন হবে তার ফর্মুলাও জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে সিবিএসই বোর্ড।

আরও পড়ুনঃ মুখে অজস্র মৌমাছি নিয়ে চার ঘন্টা! গিনেস বুকে খেতাব পেলেন কেরলের তরুন

জেনে নিন সেই ফর্মুলাঃ

কেউ তিনটি পরীক্ষা দিলে তার যে দুটি পেপার ভালো হয়েছে তার গড়ের হিসাবে মিলবে বাকি বিষয়ের নম্বর।


তিনটি বিষয়ের বেশি পরীক্ষা দিলে সেই তিন পেপারের সর্বোচ্চ গড় অনুযায়ী নম্বর দেওয়া হবে।


একটি পরীক্ষা দিলে আগের পরীক্ষার ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে।মুল্যায়ণ করা হবে অভ্যন্তরীণ ফলাফলের উপর ভিত্তি করে।


যোগ করা হবে প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার গড়।

কোনোও ছাত্র-ছাত্রী তার প্রাপ্ত নম্বর-এ সন্তুষ্ট না হলে সে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবে আবার। যে পরীক্ষার তারিখ পরে ঘোষিত হবে।

আরও পড়ুনঃ রাজস্থান সরকার ৯ ও ১১ ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রীদের পাস করিয়ে দিল

৩ জঙ্গি নিকেশ, পুলিশকর্মী ও ১ জওয়ান আহত, এনকাউন্টার এখনও জারি

Indian Army

শ্রীনগরঃ নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে ৩ জঙ্গি নিহত। এখনও তাদের পরিচয় জানা যায়নি। এখনও দক্ষিণ কাশ্মীরের ত্রালে জারি রয়েছে গুলির লড়াই। ভারতীয় সেনার ৪২ রাষ্ট্রীয় রাইফেলস (Indian Army’s 42 Rashtriya Rifles), সিআরপিএফ Central Police Reserve Force (CRPF) এবং এই অভিযান চলছে রাজ্য পুলিশের নেতৃত্বে। জঙ্গিরা যে লুকিয়ে আছে, এই খবর পাওয়া মাত্র শুরু হয় চিরুণি তল্লাশি। বাহিনির অভিযান শুরু হয় ত্রালের ছিওয়া উল্লার জুড়ে। গোটা এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছে।

এনকাউন্টার শুরু হয় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যে থেকে। জঙ্গিরা বাহিনীর গুলির প্রতুত্তর করে। গুলির লড়াই চলে দীর্ঘক্ষণ ধরে। একটি বাড়ি ভেঙ্গে গেছে সম্পুর্ণভাবে।

আরও পড়ুনঃ এবার বেসরকারি সংস্থাও বানাতে পারবে মহাকাশ অভিযানের রকেট

প্রথমে পুলিশ পক্ষ থেকে জানানো হয় ট্যুইট করে, এক অজ্ঞাত পরিচয়ের জঙ্গি নিহত হয়েছে, এখনও গুলির লড়াই জারি রয়েছে। এরপর জানা গেছে নিহত জঙ্গির সংখ্যা বেড়ে হয়েছে তিন।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ, সর্বদল বৈঠকের পর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

জঙ্গিদের পাশাপাশি আহত হয়েছেন এক সেনা জওয়ান ও এক পুলিশকর্মী। গুলির লড়াই এখনও জারি আছে। এদিকে চিন সিমান্তে উত্তেজনা রয়েছে, অন্যদিকে কাশ্মীরে জঙ্গিদের সঙ্গে লড়াই চলছে সেনাদের।

এবার বেসরকারি সংস্থাও বানাতে পারবে মহাকাশ অভিযানের রকেট

Indian Space Mission

ভারতের সরকারি সংস্থা ইসরো-র যাত্রা পথে গড়েছে বহু রেকর্ড। এবার ভারতের মহাকাশ অভিযানের অংশ হয়ে উঠতে পারে বেসরকারি সংস্থাও(Private Sector Participation in Space)। এখন থেকে ভারতে মহাকাশ অভিযানের জন্য রকেট, স্যাটেলাইট, ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ তৈরি করতে পারবে বেসরকারি সংস্থাগুলিও।

বৃহস্পতিবার ইসরোর প্রধান জানান, ভারত সরকারের আর্থ সামাজিক সংস্কারের কথা মাথায় রেখেই তাদের এই পদক্ষেক। এর ফলে আমাদের দেশের বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা সরাসরিভাবে অংশ নিতে পারবে প্রতিটি মহাকাশ অভিযানে।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ, সর্বদল বৈঠকের পর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

এর ফলে ইসরোর গবেষনাতে কোনো রকম আঁচ আসবে না তা স্পষ্ট করে দেন ইসরোর প্রধান। বুধবারেই সরকারিভাবে উপগ্রহ ও মহাকাশ অভিযানের ক্ষেত্রে বেসরকারি করণের ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। এর ফলে মনে করা হচ্ছে যে, ইসরো আরও উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে নিজের কাজকে।

আরও পড়ুনঃ আবার কাশ্মীর হল উত্তপ্ত, নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে খতম ২ জঙ্গি

আবার কাশ্মীর হল উত্তপ্ত, নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে খতম ২ জঙ্গি

Indian Army

বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের সাপোরে সেনা ও জঙ্গির মধ্যে গুলি যুদ্ধ চলে। এই লড়াইয়ে খতম হয় ২ জঙ্গি। তার সাথে দুই জনকে গ্রেফতার করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার ভোরে। জঙ্গিরা লুকিয়ে আছে এই খবর পেয়ে সেনার 22RR, জন্মু ও কাশ্মীরের পুলিশ এবং সিআরপিএফ একসাথে অভিযানে যুক্ত হয়।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ, সর্বদল বৈঠকের পর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

বেশ কিছু সময় চলে চিরুনি তল্লাশি। যে জায়গাতে জঙ্গিরা লুকিয়ে ছিল সেই জায়গাতে আক্রমণ চালাতে শুরু করে বাহিনী। প্রাথমিক সূত্রে খবর ২ জঙ্গি ধরা পড়েছে আর ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এখনও গুলির লড়াই চলছে বলে জানা গেছে।

রাজ্যে বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ, সর্বদল বৈঠকের পর ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Mamata Banerjee

৩১ শে জুলাই পর্যন্ত বাড়ছে লকডাউন। বুধবার নবান্নে সর্বদল বৈঠকের পর সেই কথাই জানালেন রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার সাথে এও বলেন, এর আগে যেসব জিনিসের উপর চাড় ছিল ও নিষেধ ছিল সেই সব কিছুই বজায় থাকছে আগামী ৩১ শে জুলাই পর্যন্ত।

যে যে বিষয়ে রয়েছে ছাড় তার এক সম্পুর্ন তালিকা প্রকাশ হবে নবান্ন থেকে। তার পরে জানা যাবে যে, জুলাই মাসের শেষ পর্যন্ত লকডাউন বজায় থাকলে কোন বিষয়ের উপর নজর দিতে হবে। বুধবার নবান্নে বৈঠকের ডাক দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়াও ছাব্বিশ জন প্রতিনিধি। এই বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুনঃ ‘অর্ধনগ্ন’ অবস্থায় কলকাতার রাস্তায় এক নেশাগ্রস্ত তরুণী, উদ্ধার করল পুলিশ

রাজ্যে করোনাকে আটকাতেই নেওয়া হয়েছে এই পদক্ষেপ। ফলে লোকাল ট্রেন, মেট্রো রেল বন্ধ থাকছে। সাথে বাসের ভাড়া বাড়ছে না এই মুহুর্তে।

‘অর্ধনগ্ন’ অবস্থায় কলকাতার রাস্তায় এক নেশাগ্রস্ত তরুণী, উদ্ধার করল পুলিশ

Kolkata Police

দেশ এখন এক মহা সংকটময় পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। কলকাতায় করোনা ভাইরাসের জেরে মানুষের জীবনযাত্রার বদলে গিয়েছে। এই কঠিন সময়ে এক অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যে পড়তে হয় কলকাতা পুলিশদের। রাতের কলকাতা শহরে হঠাৎ টপলেস অবস্থায় ঘুরতে দেখা যায় এক তরুণীকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কলকাতা পুলিশ। সেই তরুণীকে নিয়ন্ত্রনে আনতে রীতিমত কাল ঘাম ছুটে যায় পুলিশের। যানা যায়, নেশাগ্রস্ত আবস্থাতে অর্ধনগ্ন হয়ে ঘুরছিল ওই তরুণী।

মঙ্গলবার রাতে ঘটনাটি ঘটে রেড রোদের উপর। পথচারীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে ছুটে আশে ময়দান থানার পুলিশ। প্রথম দিনে বেশ মুশকিলে পড়তে হয় তাদের। নিয়ন্ত্রনে আনা যাচ্ছিল না তাঁকে। সেই মুহুর্তে রেড রোডে উপস্থিত হওয়া পুলিশের দলে কোনো মহিলা পুলিশ না থাকায় সেই তরুণীর কাছে যেতে পারেনি তারা। ঘন্টাখানেকের মধ্যে মহিলা পুলিশের দল এলে হেফাজতে নেওয়া হয় নেশাগ্রস্ত সেই অর্ধনগ্ন তরুণীকে।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা বিমানবন্দর থেকে উদ্ধার কোটি টাকার পাখি, আটক ২

সূত্রের খবর, তরুণী থাকেন পদ্মপুকুরে। বাড়তে আছেন মা ও ছোটো ভাই। বাবা মারা গেছেন ২০১০ সালে। জানা যান, ওই তরুণী মঙ্গলবার তার এক পুরুষ সঙ্গীর সাথে ময়দানে বসে মদ্যপান করেন। তার পর সেখান থেকে অর্ধনগ্ন অবস্থাতে হাঁটতে শুরু করেন। পথচারীদের কাছ থেকে প্রথম খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছায়। কিভাবে এই ঘটনাটি ঘটেছে তাই খতিয়ে দেখছে কলকাতা পুলিশ।

আরও পড়ুনঃ থামছে না পুরীর রথযাত্রা,শর্ত সাপেক্ষে উৎসবের অনুমতি সুপ্রিম কোর্টের