রাজ্যে ফের শিক্ষক নিয়োগ হতে চলেছে, শীঘ্রই টেটের বিজ্ঞপ্তি

Indian Students

ফের রাজ্যের শিক্ষক নিয়োগ হতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। খুবই শীঘ্রই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হতে চলেছে। রাজ্য সরকার টিচার্স এলিজিবিটি টেস্ট বা টেট বিজ্ঞপ্তি জারি করতে চলেছে। এমনই খবর পাওয়া যাচ্ছে নবান্ন সূত্রে। দীর্ঘদিন যাবত রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের কাজ স্থগিত হয়ে পড়ে আছে। তাই এই দীর্ঘ সময় ধরে আটকে থাকা কাজকে আগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য এ সিন্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার বলে জানা যাচ্ছে।

পূর্বে ২০১৭ সালে শেষ টেট পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। তাতে পরিক্ষার্থীদের মধ্যেই টেটের ফলাফল নিয়ে সংশয় দেখা গিয়েছিল। অসন্তোষের চিহ্ন দেখা গিয়েছিল শিক্ষার্থীদের মাঝে। তার পর স্থগিত হয়ে গিয়েছিল শিক্ষক নিয়োগের কাজ।

আরও পড়ুনঃ ১ নভেম্বরেই কি আমেরিকার বাজারে আসছে করোনা ভ্যাকসিন! জেনে নিন

এই বার ১৫ হাজারের অধিক সংখ্যক শিক্ষক নিয়োগের কথা জানা যাচ্ছে। তবে তার সাথে বেশ কিছু তথ্য সামনে আসছে। নবান্ন সূত্রে খবর, আগত টেট পরীক্ষায় তারাই আবেদন করতে পারবে যারা ২০১৭ – ২০২০ সালের মধ্যে টেটের জন্য আবেদন করেরনি। যারা ২০১৭ সালে আবেদন করে ছিল তাদের এবারে আবেদনের কোনো প্রয়োজন নেই জানা গিয়েছে।

এবছর দুর্গা পুজোর আগেই টেট পরীক্ষা সম্পন্ন করার লক্ষ্য রয়েছে রাজ্যের। তবে এই করোনা মহামারীর মধ্যে যে হারে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে, এরই মাঝে পরীক্ষা নিয়ে চিন্তায় রয়েছে রাজ্য।

আরও পড়ুনঃ মৃত্যু হওয়ার ২ দিন পরেও ভেন্টিলেটরে করোনা আক্রান্তের দেহ!

কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনাল পরীক্ষা নিয়ে আজ রায় দিলো সুপ্রিম কোর্ট

cbse-class-10-students-exams-cancelled

পড়ুয়ারা ভেবেছিল যে, ১৮ অগাস্ট শেষ শুনানির দিনই এ ব্যপারে রায় দেবে আদালত। কিন্তু সেদিন আদালত রায়দান স্থগিত রাখে। চূড়ান্ত বক্তব্য রাখার জন্য সব পক্ষকে আরও ৩ দিন সময় দেয় তারা।

আরও পড়ুনঃ দায়িত্বহীন ব্যক্তিরা ভারতে COVID-19 মহামারী বাড়াচ্ছে দাবী ICMR-এর

করোনা লকডাউনের জেরে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনাল পরিক্ষা বাতিলের আর্জি খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। আদালত জানিয়েছে, পরীক্ষা নিতে হবে ৩০ সেপ্টেম্বর মধ্যে। পরীক্ষা নিয়ে ইউজিসি নির্দেশিকা বাতিলের আবেদন খারিজ করে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত, পড়ুয়ারা পরীক্ষা না দিয়ে উর্ত্তীর্ণ হতে পারবেন না, অতএব বহাল থাকবে ইউজিসি-র নির্দেশ। তবে, রাজ্য সরকারগুলি পরীক্ষার সময়সীমা পিছোতে পারে, তবে পরীক্ষা নিতেই হবে।

আরও পড়ুনঃ বড় সুখবর! স্পুটনিক ভ্যাকসিন নিয়ে ভারত-রাশিয়া আনুষ্ঠানিক যোগাযোগ

NEET, JEE পরীক্ষার তারিখ নিয়ে কেন্দ্রকে ভেবে দেখার আহ্বানঃ মমতা

Mamata Banerjee

পরীক্ষার তারিখ নিয়ে বেশ কিছু সময় ধরে জল্পনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে। কবে স্কুল খুলবে, কবে পরীক্ষা শুরু হবে সেই নিয়ে বার বার প্রশ্ন উঠে এসেছে। আর তাই নিয়ে প্রতিবার সরব হয়েছেন মাননীয় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারেও তার ব্যতিক্রম হলনা। আবার তিনি কেন্দ্রকে এই বিষয়ে ভাবার অনুরোধ জানিয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ দায়িত্বহীন ব্যক্তিরা ভারতে COVID-19 মহামারী বাড়াচ্ছে দাবী ICMR-এর

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছেন NEET এবং JEE পরীক্ষার তারিখ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি রিভিউ পিটিশন দাখিল করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে অনুরোধ করেছেন।

চিঠিতে তিনি এই বিষয়টিকে সংবেদনশীলতার সাথে দেখার কথা বলে ও বর্তমান পরিস্থিতি আবার অনুকূল না হওয়া পর্যন্ত এই পরীক্ষাগুলি স্থগিতের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের কথা বিবেচনা করে দেখার কথা বলেন।

আরও পড়ুনঃ করোনা অতিমারীর শেষ কবে, জানালো হু

আজ জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফলপ্রকাশ, দেখে নিন ফল প্রকাশের সময়সীমা

result of joint entrance

আজ জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফলপ্রকাশ। গত ফেব্রুয়ারি মাসের ২ তারিখে জয়েন্টের পরীক্ষা হয়েছিল। তার ফল প্রকাশ হচ্ছে ৬ মাস পরে। এবারে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা দেয় ৮০ হাজারেরও বেশি পরীক্ষার্থী।

আরও পড়ুনঃ চিনে আবার নতুন রোগের দেখা মিলল, জেনে নিন এই মারন রোগের উপসর্গ

৩০ হাজার আসনের বেশি আসনে ভর্তি নেওয়া হবে। আজ দুপুর ১ টায় ভার্চুয়াল বৈঠকে ঘোষণা করা হবে ফল। ও দুপুর আড়াইটেয় হবে ওয়েবসাইটে ফলপ্রকাশ। তখন থেকে ডাউনলোড করা যাবে ফল।

আরও পড়ুনঃ আবার হুড়মুড়িয়ে ধসে পড়ল বহুতল, উদ্ধার কার্জ চলছে, দেখুন ভিডিও

বদলে গেল ৩৪ বছরের শিক্ষানীতি, শুরু হল নতুন যুগের শিক্ষাব্যবস্থা

Indian Students

নয়াদিল্লিঃ ৩৪ বছরের শিক্ষানীতিকে বদলে ফেলে শিক্ষাক্ষেত্রে বড় পরিবর্তনের পসক্ষেপ নিল মোদি সরকার। বুধবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে ছাড়পত্র পেল নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি। এর জন্য দেশের পড়াশোনার নিয়মে বড়সড় বদল আসতে চলেছে। সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে নতুন শিক্ষাবর্ষ শুরু হওয়ার আগেই এই নীতি প্রণয়ন করতে চায় কেন্দ্র।

ক্যাবিনেট ব্রিফিংয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাফড়েকর ও কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উপস্থিতিতে বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশ মেনে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০২০-কে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গত ৩৪ বছর ধরে দেশের এডুকেশন পলিসির কোনও সংস্করণ করা হইনি। এই নয়া শিক্ষানীতি।

আরও পড়ুনঃ ধূমপায়ী মানুষের করোনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কয়েক গুন বেশি, জানালো কেন্দ্র

এই নতুন শিক্ষানিতিতে গুরুত্ব হারাতে চলেছে দশমের বোর্ড পরীক্ষা। এই নতুন শিক্ষানীতিতে মাধ্যমিক গুরুত্বহীন। নবম-দ্বাদশ শ্রেনী পর্যন্ত স্কুলে হবে ৮টি সেমিস্টার। একাদশ-দ্বাদশ কোনও আলাদা বাণিজ্য, বিজ্ঞান, কলা আলাদা করে কোনো স্ট্রিম থাকবেনা। স্নাতক তিন বছরের বদলে চার বছর হবে। এই নতুন শিক্ষানীতিতে থাকছে না এমফিল। পঞ্চম পর্যন্ত পড়ুয়ারা মাতৃভাষায় পড়তে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ দু’দিন প্রবল বৃষ্টি উত্তরবঙ্গে! বৃষ্টির পূর্বাভাস কলকাতাতেও

কিছুক্ষন পরেই মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ, দেখে নিন কিভাবে জানবেন ফলাফল

cbse-class-10-students-exams-cancelled

কলকাতাঃ আর কিছুক্ষনের অপেক্ষা, প্রকাশিত হতে চলেছে মাধ্যমিকের পরীক্ষার ফলাফল। সকাল ১০ টায় প্রকাশিত হবে ফল। ছাত্র-ছাত্রীরা সকাল সাড়ে দশ টায় ওয়েবসাইটে ফলাফল জানতে পারবে। স্কুলগুলি স্যানিটাইজের পর ছাত্র-ছাত্রীদের রেজাল্ট অভিভাবক দের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ কন্টেনমেন্ট জোন ছাড়াও বেশ ক’টি জায়গায় কড়া লকডাউন চালুর নির্দেশ

পর্ষদ সূত্রে খবর, আগামী সপ্তাহে ২২-২৩ জুলাই নাগাদ রেজাল্ট সংগ্রহের জন্য ডাকা হবে অভিভাবকদের। যে ওয়েবসাইটে রেসাল্ট দেখা যাবে সেটা হল, http://webresults.nic.in www.exametc.com রেসাল্ট দেখা যাবে।

আরও পড়ুনঃ সবাইকে পিছনে ফেলে করোনা ভ্যাকসিন তৈরী করলো রাশিয়া

সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ মুল্যায়ন কিভাবে করা হবে, তা জেনে নিন

cbse-class-10-students-exams-cancelled

কলকাতাঃ ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে সিবিএসই, আইসিএসই দশম-দ্বাদশ শ্রেণীর ফল প্রকাশ। আজ সুপ্রিম কোর্টে আজ মামলার শুনানি ছিল। সেই মামালাতে সিবিএসই-র দশম-দ্বাদশ বাকি পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। এই নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করার নির্দেশ দিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত।

সূত্রের খবর-এ জানা গেছে কীভাবে পরীক্ষার মুল্যায়ন হবে তার ফর্মুলাও জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্টে সিবিএসই বোর্ড।

আরও পড়ুনঃ মুখে অজস্র মৌমাছি নিয়ে চার ঘন্টা! গিনেস বুকে খেতাব পেলেন কেরলের তরুন

জেনে নিন সেই ফর্মুলাঃ

কেউ তিনটি পরীক্ষা দিলে তার যে দুটি পেপার ভালো হয়েছে তার গড়ের হিসাবে মিলবে বাকি বিষয়ের নম্বর।


তিনটি বিষয়ের বেশি পরীক্ষা দিলে সেই তিন পেপারের সর্বোচ্চ গড় অনুযায়ী নম্বর দেওয়া হবে।


একটি পরীক্ষা দিলে আগের পরীক্ষার ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে।মুল্যায়ণ করা হবে অভ্যন্তরীণ ফলাফলের উপর ভিত্তি করে।


যোগ করা হবে প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার গড়।

কোনোও ছাত্র-ছাত্রী তার প্রাপ্ত নম্বর-এ সন্তুষ্ট না হলে সে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পাবে আবার। যে পরীক্ষার তারিখ পরে ঘোষিত হবে।

আরও পড়ুনঃ রাজস্থান সরকার ৯ ও ১১ ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রীদের পাস করিয়ে দিল

এক দেশ এক শিক্ষা ব্যবস্থার উপস্থাপনার কথা জানালেন অর্থমন্ত্রী

one country one education

করোনার কারনে দেশে লকডাউন আরম্ভ হয়েছিল মার্চ মাসে। সেই থেকে যেমন দেশের সব কিছু বন্ধ হয়ে পড়েছে, পাশাপাশি স্তব্ধ হয়ে গেছে শিক্ষা ব্যবস্থা। পড়ুয়াদের কথা ভেবে দেশে শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে একেবারে বন্ধ হয়ে না পড়ে তাই কেন্দ্রীয় সরকার চালু করতে চলেছে অনলাইন ক্লাস। ইতি মধ্যেই কিছু স্কুল অনলাইন শিক্ষা প্রদান চালু করে দিয়েছে। আবছা ভবিষ্যতের কথা ভেবেই এই সিন্ধান্ত গ্রহন করেছে দেশের মোদী সরকার।

দেশের প্রান্তরে প্রান্তরে এখন এক প্লাটফর্ম নিয়ে হাজির কেন্দ্র। রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে দেশের অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানান, এবার থেকে এক দেশ-এক অনলাইন শিক্ষা ব্যবস্থা তৈরির পথে সরকার। এই পিএম বিদ্যা প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষা ব্যবস্থাকে পৌঁছে দেবে দেশের প্রতিটা কোনে কোনে।

আরও পড়ুনঃ চতুর্থ লকডাউনে পেতে পারেন এ সমস্ত সুবিধা!

শুরু থেকেই দেখা গেছে বর্তমান সরকার জোর দিয়েছে প্রযুক্তিকিকরণে। বার বার দেশের বিভিন্ন পরিস্থিতে প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হয়েছে। এই বার এক ধাপ এগিয়ে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থাকেই অনলাইনে এনে শিক্ষার্থদের বাড়ি থেকে শিক্ষা গ্রহনের ব্যবস্থা করে দিতে চলেছে মোদী সরকার। তবে যাদের কাছে ইন্টারনেট পরিষেবা নেই তারা ডিটিএইচ ব্যবস্থার মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহন করতে পারবে। ১২ টিরও অধিক চ্যানেলের সংযুক্তি হবে কিছু দিনের মধ্যেই।

অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রযুক্তির মাধ্যমে ভার্চুয়াল ক্লাসের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সব রাজ্যে ই-টেক্সট বুক পাঠানো হবে। শুরু হতে চলেছে এক ক্লাস এক চ্যানেল।

আরও পড়ুনঃ ভারতের পাশে আমেরিকা, করোনার মোকাবিলায় ভেন্টিলেটর দিয়ে সাহায্য আমেরিকার

করোনার তাণ্ডবে বাতিল সিবিএসই-র দশম শ্রেণির পরীক্ষা

cbse-class-10-students-exams-cancelled

করোনার কারনে গৃহবন্দী গোটা দেশ। বন্ধ হয়েছে স্কুল পঠন-পাঠন। ফলে বিঘ্ন ঘটেছে সাধারন জীবনযাপন। দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি স্কুল কলেজ বন্ধ হয়েছিল ২৫ মার্চ থেকে। প্রথমে স্কুল চালু করার কথা ছিল ১৫ এপ্রিল থেকে। কিন্তু লকডাউনের সময়সীমা বৃদ্ধি পাওয়ায় স্কুল কবে চালু হবে তা নিতে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়। আর তাই বাতিল করে দেওয়া হলো সিবিএসই বোর্ডের দশম শ্রেণির পরীক্ষাগুলি। অর্থাৎ পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে করোনার হাত থেকে বাঁচার জন্য দেশ জুড়ে ডাকা হয়েছিল। ফলে পরীক্ষা বন্ধ করে দেওয়া হয়ে ছিল। আর তাই বাকি থেকে গিয়ে ছিল কয়েকটা বিষয়ের পরীক্ষা। সেই বিষয়গুলিতে আর কোনো পরীক্ষা দিতে হবে না বলে জানালেন সিবিএসই বোর্ডের সচিব অনুরাগ ত্রিপাঠি। পরিবর্তের স্কুল চলাকালীন সময়ের মূল্যায়ন করেই দেওয়া হবে গ্রেড।

আরও পড়ুনঃ নাসার তৈরি ভেন্টিলেটর লড়বে করোনার বিরুদ্ধে

সেই সময় দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষাও বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল। তবে তাদের ক্ষেত্রে মিলবে না কোনো চাড়। দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই ছাত্র-ছাত্রীদের দিতে হবে পরীক্ষা। এই পরীক্ষা বাতিলের সিন্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শুধুমাত্র দশম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য।

এই সিন্ধান্ত কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয় বুধবার। ভিডিও বৈঠকের পরই নেওয়া হয় এই সিন্ধান্ত। তবে পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে লেগে যেতে পারে দু’ই থেকে তিন মাস।

আরও পড়ুনঃ করোনা ঠেকাতে ২১ মে পর্যন্ত চলবে একই ব্যবস্থা সাফ জানালেন মমতা

রাজস্থান সরকার ৯ ও ১১ ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রীদের পাস করিয়ে দিল

rajasthan govt. school students

রাজস্থানঃ রাজস্থান সরকার এক বড় সিদ্ধান্ত গ্রহন করলো। সমস্ত নবম ও একাদশ শ্রেনীর ছাত্র – ছাত্রীদের পরীক্ষা না নিয়ে পাস করিয়ে দেওয়ার কথা ঘোষনা করলো। করোনা ভাইরাসের কারনে এই সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে রাজস্থান সেকেন্ডারি এডুকেশন দফতরের তরফ থেকে।

অর্ধ-বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতেই ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি নেওয়া হবে পরবর্তী শ্রেনীতে। স্কুলগুলি পাসের শংসাপত্র তুলে দেবে লকডাউন শেষ হয়ে গেলে। আর বাকি জিনিসপত্র পাওয়া যাবে অনলাইনে।

পশ্চিমবঙ্গে এখনও সেভাবে কিছু জানা যায়নি ৯ ও ১১ শ্রেনীর ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যপারে।

আরও পড়ুনঃ বিনা পরীক্ষাতেই পরের শ্রেনীতে পড়ুয়াদের, সিবিএসই-র সিদ্ধান্ত