বাংলো ছাড়ার আগে কোন বিজেপি নেতাকে চা খেতে ডাকলেন প্রিয়াঙ্কা!

Indian Political Leader Priyanka Gandhi

নয়াদিল্লিঃ পয়লা অগাস্টের মধ্যে প্রিয়াঙ্কা গান্ধিকে বাংলো ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিল দিল্লি সরকার। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই বাংলো ছাড়তে চান প্রিয়াঙ্কা। তার আগেই রাজনৈতিক সৌজন্য দেখিয়ে বিজেপি নেতা অনিল বলুনিকে আমন্ত্রণ জানালেন চা পানের জন্য। প্রিয়াঙ্কার পর এই বাংলোটি রাজ্যসভার সাংসদ অনিল বলুনিকে বরাদ্দ করা হয়েছিল।

দিল্লির লোধি এস্টেটের এই সরকারি বাংলোর দীর্ঘদিনের বাসিন্দা ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। তাঁকে জুলাই মাসেই বাংলো ছাড়ার নোটিস পাঠায় কেন্দ্রীয় সরকার। প্রিয়াঙ্কা বর্তমানে যেহেতু এসপিজি নিরাপত্তা পান না, সেইজন্য তিনি এই বাংলো পাওয়ার যোগ্য নন বলেই যুক্তি দেখানো হয়।

আরও পড়ুনঃ সিনেমা হল কবে খুলবে! প্রস্তাব কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের

শোনা যাচ্ছে যে, রবিবারই আমন্ত্রণ জানিয়েছেন বিজেপি নেতা অনিল বলুনিকে। এ বিষয়ে জানার জন্য বিজেপি নেতাকে ফোনও করা হয়েছিল। কিন্তু তিনি ফোন ধরেননি। তবে বিজেপির সাথে যতই রাজনৈতিক সংঘাত থাকুক না কেন, বলুনিকে আমন্ত্রণ জানিয়ে রাজনৈতিক সৌজন্য বজায় রাখলেন প্রিয়াঙ্কা।

আরও পড়ুনঃ করোনার ভ্যাকসিন কবে আসতে পারে, জানিয়ে দিল হু

নিমপাতায় আছে এক চমৎকার ঔষধিগুন, জেনে নিন এর সঠিক ব্যবহার

benefits of neem

নিমপাতায় আছে বহু অবিশ্বাস্য উপকারিতা। ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া নাশক হিসাবে খুবই কার্যকর নিম। আর এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে। রোজ সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে কয়েকটা নিম পাতা চিবিয়ে খাবেন। এতে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

নিমের তেলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-ই ও ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, আমাদের চুল এবং ত্বকের জন্য এটি ভীষণ উপকারী। নিমপাতার রসে শক্ত হয় চুলের গোড়া ও চুলের রুক্ষ ভাব কমে যায় ও নতুন চুল গজায়।

আরও পড়ুনঃ মানসিক অবসাদ বা বাড়তি ওজোন, সবকিছু থেকে মুক্তি পেতে খান আমলকী

মুখে ব্রণ হলে নিমপাতা বাটা মেখে নিন, এতে ব্রণ দ্রুত দূর হয়ে যায়। মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে ও দাঁতকে জীবাণু ও ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। নিম ডাল দিয়ে দাঁত পরিষ্কার করতে পারেন।

কেটে গেলে বা পুড়ে গেলে সেখানে নিম পাতার রস দিলে ভেষজ ওষুধের মত কাজ করে। কয়েকটা নিম পাতা বেটে ক্ষত স্থানে দিন আরাম পাবেন।

আরও পড়ুনঃ ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অবশ্যই এই খাবারগুলি খান

health

করনার জেরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো প্রয়োজন। এই কথা বার বার বলছেন চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা। আর সেটা করার জন্য অবশ্যই এমন খাবার খেতে হবে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

এইরকম খাবারের তালিকা নিচে দেওয়া হলঃ

আমলকিঃ সাম্প্রতিক একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, আমলকি রক্তের তারল্য বাড়াতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হিসাবেও কাজ করে এই আমলকি।

কমলালেবুঃ শর্করার পরিমাণ অনেক কম কমলালেবুতে। অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে কমলালেবুতে। এতে ভিটামিন-সি ছাড়াও রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার। এতে আছে থিয়ামিন, ফোলেট ও পটাশিয়াম, যা শরীরের উপকারী হিসাবে কাজ করে।

ক্যাপসিকামঃ ক্যাপসিকামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি ও অন্যান্য অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের পাশাপাশি ক্যাপসিকামে ভিটামিন-ই, ভিটামিন-এ ফাইবার আছে। এছাড়াও এতে আছে ফোলেট ও পটাশিয়াম। ক্যাপসিকাম অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের কারণে দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। ক্যাপসিকাম অ্যানিমিয়া রোধ করে।

পেয়ারাঃ পেয়ারা পটাশিয়াম ও ফাইবারে ভরপুর। গবেষণায় উঠে এসেছে, পেয়ারা রক্তের শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। সুস্থ্য রাখে হৃদযন্ত্রকে। এর পাশাপাশি পেয়ারা মহিলাদের ক্ষেত্রে ঋতু সমস্যায় উপকারী।

আরও পড়ুনঃ মানসিক অবসাদ বা বাড়তি ওজোন, সবকিছু থেকে মুক্তি পেতে খান আমলকী

পেঁপেঃ কমলালেবুর মত পেঁপেতেও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার। ক্যালোরির মাত্রা কম। পেঁপে শরীরের মধ্যে থেকে বিষাক্ত পদার্থ সরিয়ে দিতে সাহায্য করে। এতে অন্ত্রের প্রক্রিয়া মসৃণ করে। এর সঙ্গে হজমের সমস্যা ও পেটের ভারীভাব দূর করে।

পাতিলেবুঃ লেবু ওজোন কমাতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি হৃদযন্ত্র ও হজমের প্রক্রিয়া সঠিক রাখতে সাহায্য করে। এর সাইট্রিক অ্যাসিড প্রস্রাবের পরিমাণ বৃদ্ধি করে। এর ফলে কিডনি স্টোন রোধে সাহায্য করে লেবু। এছাড়াও পাতিলেবু শরীরের অম্ল ও ক্ষারের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুনঃ ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

সিনেমা হল কবে খুলবে! প্রস্তাব কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের

cinema hall open in august

করোনার জেরে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধ গত ৫ মাস ধরে। ছবি রিলিজও থমকে। অনলাইন প্ল্যাটফর্মে রিলিজ হয়েছে কিছু সিনেমা। তার সংখ্যাও খুব কম। করোনা আক্রান্ত আটকাতে সিনেমা হল বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রথম পর্বের লকডাউনেই কার্যকর হয়।

আনলক ৩-এ সিনেমা হল কী খুলছে! কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে একটি প্রস্তাব দিল কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক। আগস্ট মাসে সিনেমা খোলার বিষয়ে সায় দেওয়া হয়েছে।

এই প্রস্তাবটি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে গৃহীত হলে সিনেমা হল আগস্টেই খুলে যাবে। CII মিডিয়া কমিটির সঙ্গে একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সচিব আমিত খারে, শুক্রবার এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন। তিনি বৈঠকে জানান যে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সচিব অজয় ভাল্লা এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

অজয় খারে জানান যে, সিনেমা হল খোলার সম্ভাবনা রয়েছে আগস্টের শুরুতে নাহলে শেষের দিকে। এক্ষেত্রে সিনেমা হলে কী ব্যবস্থা থাকবে, তারও খসড়া তৈরি করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পর রাস্তার মধ্যে তুমুল নাচ বোনের

এই নিয়ম অনুযায়ী, একটি রো-তে বসবেন দর্শক। তার পরের রো খালি থাকবে। তারপরের রো-তে বসতে পারবেন দর্শকরা। অল্টারনেটিভ ভাবে। মন্ত্রকের প্রস্তাবিত নিয়মে বলা হয়েছে, দর্শকদের বসার দূরত্ব ২ মিটার থাকতে হবে কম করে।

সিনেমা হলের মালিকদের বক্তব্য, এই ফর্মুলাটি থিক নয়। হলে ২৫ শতাংশ ভর্তি করে সিনেমা চালানো সম্ভব নয়।

আরও পড়ুনঃ করোনার ভ্যাকসিন কবে আসতে পারে, জানিয়ে দিল হু

মানসিক অবসাদ বা বাড়তি ওজোন, সবকিছু থেকে মুক্তি পেতে খান আমলকী

Indian gooseberry eat for lose weight

সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে খান আমলকি বা আমলকির জুস। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তো বাড়বেই, সাথে শরীরের না না রোগ কমবে। এমনকি এতে বাড়তি ওজোন-ও কমবে।

আমলকি হজমে সাহায্য করে সেইজন্য শরীরের ফ্যাট দ্রুত বার্ন হয়। এর মধ্যে থাকা তন্তু পেট ভর্তি রাখে দীর্ঘক্ষণ। ওজোন কমাতে চাইলে সকালে উঠে খালি পেটে এক গ্লাস আমলকির জুস খান। নিয়মিত একমাস খেলে ওজোন কমতে শুরু করবে। তফাতটা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

আমলকিতে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। টক্সিন বার করে শরীরে মেকানিজম ভালো রাখে। এই করোনা আবহে সকালে খালি পেটে চিবিয়ে আমলকি খেতে পারলে খুবই ভালো।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

ডায়াবেটিস রোগীর জন্য আমলকির জুস খুব ভালো কাজ করে। হঠাৎ করে সুগার কমে যাওয়া প্রতিরোধ করে। ভালো রাখে এনার্জি লেভেল। এই জুস কম করে সপ্তাহে দু’দিন খান। দেখবেন নিয়ন্ত্রণে থাকবে সুগার।

আমলকি রক্ত সঞ্চালনকে সঠিক রাখতে সাহায্য করে। বৌদ্ধিক বিকাশ, স্মৃতি বৃদ্ধি, অ্যালঝাইমার্স রোধেও উপকারী এটি। এবং রক্ত সরবরাহ সঠিক থাকলে হার্টের নানা সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়।

আরও পড়ুনঃ চুলের সব সমস্যার সমাধান করতে এবার বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন ONION HAIR OIL

পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

papaya

কলকাতাঃ ফল খেলে ওজোন কমে। ফাইবার বেশি হওয়ার জন্য আপনার বেশি খাওয়ার ইচ্ছে নিয়ন্ত্রিত হয়, আর এতে স্বাস্থ্য ভালো হয়। এইরকমই একটি ফল হল পেঁপে। পাকা পেঁপে খেতে শুধু ভালো হয় তা নয়, এর পুষ্টিগুণও অনেক।

১৫২ গ্রামের পেঁপেয় ৫৯ ক্যালোরি থাকে। তার মধ্যে ৩ গ্রাম ফাইবার, ১ গ্রাম প্রোটিন এবং ১৫ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট থাকে। পেঁপেতে পাপাইন উৎসেচক থাকে যা ওজোন কমাতে সাহায্য করে। এই উৎসেচক প্রোটিন হজমে সাহায্য করে, এতে পেশি তৈরী হয় ও মেটাবলিক রেট বাড়ে। এছাড়া পেঁপে শরীরের জ্বালা, যন্ত্রণা কমাতে সাহায্য করে। এতে যে ফাইবার আছে তা শরীর থেকে টক্সিনকে বার করে।

আরও পড়ুনঃ সুস্থ থাকার এক মোক্ষম উপায় রোজ বাদাম খান

পেঁপে খাওয়ার আদর্শ সময় হল, সন্ধ্যেবেলা বা ব্রেকফাস্ট আর লাঞ্চের মাঝে। পেঁপে ওজোন কমাতে সাহায্য করে ঠিক কিন্তু শুধুমাত্র পেঁপের উপরেই ভরসা করবেন না। শরীরে জলের পরিমাণও ঠিক রাখতে হবে, আর কম ক্যালোরি ডায়েট খেলেই ওজোন কমে যাবে।

আরও পড়ুনঃ মেদ নিয়ে সমস্যায় ভুগছেন, সমাধান আপনার হাতের মুঠোয়

গোসাবার বিধায়কের বাড়িতে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার এক যুবকের!

Suicide

বাসন্তীঃ গোসাবার বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়িতে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার এক যুবকের আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকালে। এই মৃত যুবকের নাম লাবণ্য হালদার।

জানা গেছে যে, লাবণ্য হালদার নামে ওই যুবকটি গোসাবার বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়ির তিনতলায় বাস করতেন। এদিন সকালে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই যুবকের দেহ তিনতলার ছাদ থেকে উদ্ধার হয়। পুলিশের অনুমান, ওই যুবক আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যার কী কারণ হতে পারে, বা অন্যকিছু সেটা পুলিশ দেখে খতিয়ে।

আরও পড়ুনঃ সাইক্লিং করতে গিয়ে বিপত্তি, আহত হলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই যুবকের বাড়ি গোসাবাতেই। তৃণমূল বিধায়ক জয়ন্ত নস্করের বাড়িতে তিনি ১৫ বছর বয়স থেকে থাকতেন। তিনি আলাদা ঘরে থাকতেন। এদিন বাড়ির পরিচারক তাঁকে খাবার দিতে গিয়ে দেখেন গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে। তাঁকে উদ্ধার করে বাসন্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসক।

আরও পড়ুনঃ করোনার ভ্যাকসিন কবে আসতে পারে, জানিয়ে দিল হু

করোনার ভ্যাকসিন কবে আসতে পারে, জানিয়ে দিল হু

Corona Vaccine

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরী কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম পর্যায়ের পরীক্ষায় সাফল্যের পর গোটা বিশ্বে করোনার হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার একটি আশা জেগে উঠেছে। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা হু-ও এই ভ্যাকসিন তৈরীর প্রক্রিয়ায় খুশি।

এখন প্রশ্ন এই যে, কবে ভ্যাকসিন পেতে পারে বিশ্ববাসী! এ ক্ষেত্রে খুব তাড়াহুড়ো করতে রাজি নয় হু। এর কারণ, একাধিক পরীক্ষার পরে নিরাপদ ভ্যাকসিন দরকার। তাড়াহুড়ো করলে হিতে বিপরীতও হতে পারে।

হু জানাচ্ছে যে, ২০২১-এর আগে প্রথম ভ্যাকসিন আশা করা যাবে না। ২০২১ সালের শুরুর দিকে বিশ্ববাসী ভ্যাকসিন আশা করতে পারে।

আরও পড়ুনঃ সাইক্লিং করতে গিয়ে বিপত্তি, আহত হলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

WHO-এর এমার্জেন্সি প্রোগ্রামের এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর মাইক রায়ান জানিয়েছেন, ভ্যাকসিনের সুষম বন্টনের জন্য বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা কঠোর পরিশ্রম করছে। কিন্তু এই সময় করোনা ভাইরাস আক্রান্তকে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

রায়ানের কথায়, ‘ভ্যাকসিন তৈরীতে ভালো ভাবেই এগোচ্ছি আমরা। একাধিক ভ্যাকসিন এখন তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে আছে। বাস্তব বিষয়টি হল যে, ভ্যাকসিনের জন্য আগামী বছরের প্রথমার্ধ পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে।

আরও পড়ুনঃ দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পর রাস্তার মধ্যে তুমুল নাচ বোনের

দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পর রাস্তার মধ্যে তুমুল নাচ বোনের

dance

করোনাকে হারিয়ে কেউ যখন বাড়ি ফেরে তখন সেই রোগীর বাড়ির লোক ও প্রতিবেশীরা হাততালি দিয়ে স্বাগত জানায় তাকে। এই রকম একটি পরিবারের করোনাকে হারিয়ে দিদি বাড়ি ফেরার পর তার বোনের বাড়ির সামনে গান চালিয়ে তুমুল নাচ। এই ভিডিওটি অনেকেরই মন কেড়েছে।

এই ঘটনাটি ঘটেছে পুনের ধনবডি এলাকায়। এই পরিবারে ২০ দিন আগে করোনার লক্ষণ দেখা দিয়েছিল। পরিবারের ছোট মেয়ে সালোনিকে বাদ দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন সবাই।

আরও পড়ুনঃ জঙ্গলে মুখোমুখি হল বাঘ ও পাইথন, দেখুন তারপর কী ঘটলো

দু’দিন আগে সালোনির দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরে তখন সালোনি খুশিতে গান বাজিয়ে নাচ শুরু করে দেয়। তাঁর দিদিও সালোনির নাচ দেখে আনন্দে নাচ শুরু করে দেয়।

আরও পড়ুনঃ বাড়ির বাইরে থাকলে স্যানিটাইজার কিভাবে ব্যবহার করবেন! জেনে নিন

জঙ্গলে মুখোমুখি হল বাঘ ও পাইথন, দেখুন তারপর কী ঘটলো

tiger and python in the forest

অনেক কিছু শেখার আছে। বহু ক্ষেত্রে পশুরা যে আচরণ করে, সেটা অনেক সময় মানুষের মধ্যে দেখা যায় না। তাই পাশবিক বিশেষণটা সর্বাত্মক ভাবেই ত্যাগ করা উচিত। একটি বাঘ ও একটি বিশাল পাইথন সাপের সংঘর্ষ মুখোমুখি। সেই ভিডিও ভাইরাল হল ট্যুইটারে। আসলে এই বাঘ ও পাইথনের ভিডিওতে লুকিয়ে আছে একটি বার্তা, যা অবশ্যই শিক্ষণীয়।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, জঙ্গলের মধ্যে রাস্তায় একটি বাঘ হঠাৎ একটি পাইথনের মুখোমুখি। যতবার বাঘটি এগোতে যাচ্ছে, আক্রমণের জন্য তৈরী হচ্ছে পাইথনটি। এইরকম চলতে থাকে খানিকক্ষণ।

আরও পড়ুনঃ অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম পর্যায়েই দুর্দান্ত সাফল্য

বেশ কিছুক্ষণ পরে বুঝতে পারে বাঘটি যে, পাইথন তাকে পথ ছেড়ে দেবেনা। বরং লড়াই করতে চাইছে পাইথনটি। এরপর বাঘের পদক্ষেপটি শেখার মতো। এরপর বাঘটি কোনো লড়াইয়ে গেলো না বরং পাইথনটিকে রাস্তা ছেড়ে দিল। এই ভিডিওটি পোস্ট করেন সুশান্ত নাড্ডা নামে এক ব্যক্তি।

এটি পোস্ট করে লিখেছেন ওই ব্যক্তি, ‘ওই বাঘটি পাইথনটিকে পথ ছেড়ে দিয়ে অভিজ্ঞতা ও বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দেয়। খারাপ বিষয় এড়িয়ে গিয়ে জীবনে এগিয়ে যাও।’

আরও পড়ুনঃ হাতের চামড়া কি শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে! এগুলো মেনে চলুন