ওজন কমানোর সহজ পথের নাম গাজর

Carrots eat

স্যালাড তো খান, স্যালাডে শশা, গাজর, টমেটো, পেঁয়াজ তো থাকেই, দ্রুত ওজোন কমানোর জন্য স্যালাডে বাড়িয়ে দিন গাজর-এর পরিমাণ।

অনেকটা গাজর একসাথে কুঁচিয়ে তাতে লেবুর রস ও গোলমরিচ দিয়ে খান। তবে স্বাদ বাড়ানোর জন্য স্যালাডে আবার মাখন, মেয়োনিজ বা তেল দেবেন না।

গাজর সিদ্ধ করে নিন ও স্যুপ বানিয়ে ফেলুন। এই স্যুপ-এ হালকা গোলমরিচ ও অল্প মাখন দিয়ে দুপুর বা রাতে পেট ভরান।

আরও পড়ুনঃ পেঁপে খেয়ে কীভাবে ওজোন কমাবেন জানুন

এর সঙ্গে অন্য সবজিও যোগ করতে পারেন। সাধারণ উপায়ে যেভাবে গাজরের সুজি বা হালুয়া তৈরী করেন, সেভাবে না বানিয়ে, মাখন, চিনি, বাদাম না দিয়ে হালুয়া বানান।

চিনি ছাড়া হালুয়া খেতে না ভালো লাগলে এতে নুন ও মরিচ দিয়ে ঝাল সুজির নিয়মেও তৈরী করতে পারেন হালুয়া। এতে তেল দিতে পারেন তবে একেবারেই সামান্য।

আরও পড়ুনঃ সুস্থ থাকার এক মোক্ষম উপায় রোজ বাদাম খান

সাইক্লিং করতে গিয়ে বিপত্তি, আহত হলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত

Rituparna Sengupta

লকডাউনের কারনে বহু দিন ধরে দেশের বাইরে রয়েছেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। লকডাউন শুরুর আগে কলকাতা ছেড়ে ছিলেন। এমনিতেই বহু দিন কলকাতায় নেয়, তার মাঝেই নেমে এল এক গুরুতর বিপত্তি। সাইকেল চালাতে গিয়ে ডান হাতের কবজিতে বেকায়দাতে মোচড় লেগেছে।

বর্তমানে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত রয়েছেন সিঙ্গাপুরে। তিনি চলতি বছরের মার্চ মাসে দেশ ছেড়ে স্বামী সঞ্জয় ও রিসোনাকে নিয়ে ছুটি কাটানোর জন্য গিয়েছিলেন সিঙ্গাপুরে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে গোটা দেশ জুড়ে শুরু হয় লকডাউন। লকডাউনের ফলে পরিবারের সাথে একসঙ্গে ভালো সময় কাটাচ্ছেন। ফলে তার পর থেকে আর দেশে ফেরা হয়নি তাদের। কিন্তু তার মাঝেই ঘটে গেল অঘটন!

আগাগোড়াই অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা বেশ স্বাস্থ্য সচেতন। তাই বরাবরের মতো নিজেকে ফিট রাখতে নিয়মিত এক্সারসাইজ করে থাকেন। সেই সুবাদে সাইকেল চালাতে গিয়েই ঘটেছে এই ঘটনা।

আরও পড়ুনঃ দিদি করোনাকে হারিয়ে বাড়ি ফেরার পর রাস্তার মধ্যে তুমুল নাচ বোনের

জানা গেছে, সাইকেল চালানোর সময় ডান দিকে ইউ টার্ন নিতে গিয়েছিলেন। সেই সময় সামলাতে না পেরে পড়ে গিয়ে চোট লাগে ডান হাতের কবজিতে। তারপরই অবশ হয়ে পড়ে ডান হাত ও আঙুল।

লকডাউনের জন্য শুটিং বন্ধ হয়ে গেলেও নিজেকে সব সময় ব্যস্ত রাখতে ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে ভক্তদের উপহার দিয়েছেন বিভিন্ন বিষয়ের ভিডিও। তবে চোট পাওয়ার জন্য এখন সবকিছুই বন্ধ।

আরও পড়ুনঃ জঙ্গলে মুখোমুখি হল বাঘ ও পাইথন, দেখুন তারপর কী ঘটলো

এবার Instagram ব্যবহারকারীদের জন্য আসছে TikTok-এর মতো ফিচার!

Instagram Reels Feature

ফটো আর ভিডিও শেয়ার করার এক জনপ্রিয় অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম (Instagram)। গত বছর কোম্পানির তরফ থেকে একটি নতুন ফিরাচ রিলস (Reels) এর কথা বলা হয়ে ছিল। গত বছরের নভেম্বর মাসে লঞ্চ করা হয়েছিল এর নতুন ফিচারটি। তার পর থেকে এর টেস্টিং ফ্রান্স আর জার্মানিতে চলছে। তবে নতুন এক রিপোর্ট অনুযায়ী, কিছু সময়ের মধ্যেই এই নতুন ফিচারটি ভারতীয়দের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

তবে এতি মধ্যেই কিছু ভারতীয় এই ফিচারটি ব্যবহার করছে টেস্টার হিসেবে। বর্তমানে কোম্পানি যে দেশগুলিতে এই ফিচারটি রোলআউট করেছে সেই তালিকাতে ভারতের নাম নেই। দেখার বিষয় কবে ভারতীয়রা এই ফিচারটি ব্যবহার করতে পারে।

আরও পড়ুনঃ বদল হল শিয়ালদহ স্টেশনের নম্বর, জেনে নিন কি কি পরিবর্তন হল

এই Reels ফিচারটি কী?

এই রিলস ফিচারটির সাহায্যে ব্যবহারকারীরা ভিডিও বানাতে পরবে তবে টিকটকের মতো করে। যেভাবে টিকটকে ১৫ সেকেন্ডের ভিডিও রেকর্ড করা যায় ঠিক সেই ভাবে এখানেও করা যাবে। সেই ভিডিও এডিটও করতে পারবে ব্যবহারকারীরা। অডিও বা মিউজিক এডিটও করা যাবে এবং সেই এডিট করা ভিডিওটি ইনস্টাগ্রাম স্টোরিজ আর ডিরেক্ট মেসেজেও বন্ধুদের সাথে শেয়ার করা যাবে।

বর্তমানে ভারতে টিকটক সহ ৫৮ টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ। ফলে এই সময় ইনস্টাগ্রামের এই ফিলস ফিচারটি খুবই গুরুত্বপূর্ন হয়ে উঠতে পারে ভারতের বাজারে।

আরও পড়ুনঃ এক নজরে দেখে নিন কোন রাজ্যে রয়েছে সব থেকে বেশি সুস্থতার হার

আজ দুই বঙ্গেই রয়েছে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা

west bengal weather report

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শহরের আকাশ থাকবে মেঘে আচ্ছন্ন। বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে কলকাতার বিস্তির্ন এলাকে জুড়ে। বাতাসে প্রচুর পরিমান জলীয় বাষ্প থাকায় এই বৃষ্টির উদ্ভাবন। শুধু যে বৃষ্টি হতে পারে তা একে বারে নয়, সাথে বজ্রবিদ্যুৎ থাকছে। বিশেষ করে এই বৃষ্টি নিয়ে এসেছে প্রাক বর্ষার আবহাওয়া। সারা দিন ধরে কলকাতার আকাশে মেঘ দেখা যাবে। ফলে মাঝে মাঝে রোদ্দুরের দেখা যাবে। দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সাথে ঝড়ের পরিমান বেশি থাকবে।

তবে বর্ষা আগমনের যে আর বেশি বাকি নেই তার পুর্বাভাস হিসেবে রয়েছে এই বৃষ্টি। আর কিছু দিনের মধ্যেই বর্ষার আগমন হতে পারে। এতি মধ্যেই কেরলে বর্ষা ঢুকেছে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে। আবহাওয়া দফতরের রিপোর্ট অনুযায়ী উত্তরবঙ্গে ৭ ই জুন ও দক্ষিণবঙ্গে ১১ ই জুন বর্ষা প্রবেশ করতে পারে বলে ধারনা বিশেষজ্ঞদের।

বোল্ড অবতারে ঋতাভরী, ভিডিও আসতেই ভাইরাল হলো

Ritabhari Chakraborty

এক সময় বিনোদন জগতে পা রেখেছিল বাংলা টেলিভিসনের হাত ধরে। প্রধান ভুমিকাতে বেশ জনপ্রিয়তার স্বাদ পেয়েছিল সেই সময়। তার পর একেবারে বাংলা টিভি সিরিয়াল থেকে উধাও বহু বছর। সেই ‘ওগো বধু সুন্দরি’র ললিতা এখন বলিউডের তথা বাংলার সিনেমা জগতে বেশ জনপ্রিয়। জনপ্রিয়তার সাথে বেড়েছে ফ্যান। সোশাল মিডিয়ার মাধ্যমি তদেরকে উপহার দিয়ে থাকে বিভিন্ন ফটো ও ভিডিও।

এইবার ঋতাভরী নিয়ে এসেছে এক ভিডিও যেখানে তিনি ফটো স্যুটে ব্যস্ত। তারই কিছু অংশ তুলে ধরেছেন এই ভিডিওর মাধ্যমে। সেই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই রাতারাতি ভাইরাল হল। ছড়িয়ে পড়ল নেট দুনিয়ায়। যুবাদের মাঝে প্রশংশার ঝড় বয়েছে।

নেট দুনিয়ায় মায়াবী ও উষ্ণ অবতারে ভাইরাল উর্বশী রাওতেলা

hot bollywood celebs

বলিউডে পা রেখেছেন মাত্র কয়েক বছর আগে। এর মধ্যেই ভারতের যুব সমাজের মন জয় করে নিয়েছে তার অভিনয় ও মায়াবী অঙ্গি ভঙ্গিমায়। এই উর্বশী রাওতেলা বেশ কয়েকটি জনপ্র্অয় হিন্দি সিনেমাতে কাজ করে ফেলেছেন এতি মধ্যেই। তার মধ্যে রয়েছে হেট স্টোরি ৪, গ্রেট গ্রান্ড মস্তি, সানাম রে -এর মতো সিনেমা।

তিনি সব সময় সোশাল মিডিয়াতে চর্চার শিখরে থাকেন। সব সময় নেট জগতে তাকে নিয়ে আলোচনা চলতে থাকে। এই বারেও তার ব্যতিক্রম কিছু হল না। সোশাল মিডিয়াতে ছবি প্রকাশ করতে না করতেই ভাইরাল হয়ে গেল। ছড়িয়ে পড়ল সমাজের যুবাদের কাছে, তার ফ্যানদের কাছে। নিজেকে যেভাবে উন্মোচন করেন তিনি সেই মায়াতেই ভক্তদের চলখের মনি হয়ে থাকেন সব সময়।

আরও পড়ুনঃ জিও ৬,৫৯৮ কোটি টাকায় মার্কিন সংস্থ্যার কাছে শেয়ার বিক্রয় করতে চলেছে

২০১৩ সালে তিনি বলিউডে পা রেখেছিলেন সানি দেওলের হাত ধরে। ‘সিং সাব দি গ্রেট’ এটি ছিল তার জীবনের প্রথম সিনেমা। দেখতে দেখতে তিনি বলিউডে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছে গেছেন।

আরও পড়ুনঃ হাঁটুর বয়সী ইশানের সাথে রোম্যান্স করতে দেখা যাবে তাব্বুকে, জুনে মুক্তি

আগামী ১২ ঘন্টায় শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় রুপ ‘আমফান’ রাজ্যে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস

amphan in west bengal

আগামী ১২ ঘন্টার মধ্যে এক অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় রূপে আমফান আছড়ে পড়বে বাংলার উপর। এখন আমফানের অবস্থান দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরের মধ্যভাগে। আর কিছু সময়ের মধ্যেই বাংলায় ঢুকে পড়বে এই আমফান, এমনটাই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, এই আমফান ২০ তারিখ সন্ধ্যে বেলার দিকে এক অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের সমুদ্র উপকূল সংলগ্ন এলাকাগুলিতে আছড়ে পরার সম্ভবনা রয়েছে। তবে ১৯ তারিখ উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি এবং কলকাতা ও পার্শবর্তী এলাকাগুলিতে মাঝারি বৃষ্টি ও কিছু জায়গাগুলিতে ভারী বৃষ্টিরে সম্ভবনা রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ করোনার প্রকোপ এবার রাষ্ট্রপতি ভবনেও

আপাত দৃষ্টিতে এর আগেও বিভিন্ন ঘূর্ণিঝড় এই বাংলার বুকে এসেছে। তবে এই ঘড়ের গতিবেগ থাকবে প্রায় ১২০ থেকে ১৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। এই গতিবেগ সর্বচ্চ ১৫৫ কিলোমিটার পর্যন্ত বেড়ে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। তাই মৎস্যজীবিদের ১৮ তারিখ থেকে মৎস্যশিকার করতে যাওয়াতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ এক দেশ এক শিক্ষা ব্যবস্থার উপস্থাপনার কথা জানালেন অর্থমন্ত্রী

করোনা কাবু ভারতে, তবু জুলাইয়ের শেষ নিয়ে আশঙ্কা, জানালো WHO

India, but still worried about the end of July

নয়াদিল্লিঃ ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যাও কম ভারতে, বিশ্বের তুলনায়। তার কারণ ঠিক সময় দেশে লকডাউন চালু হয় এমনটাই জানালো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কোভিড-১৯ এর টিমের সদস্য ডেভিড নাবারো। তাঁর পূর্বাভাস, ভারতে করোনা কাবু লকডাউনেই। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়বে লকডাউন উঠলেই। তাও করোনা পরিস্থিতি ভারতে নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে। জুলাইয়ের শেষে ভারতে করোনার প্রকোপ শীর্ষে থাকবে। আতঙ্ক নয়, সতর্ক থাকতে হবে আগামী দিনে দেশবাসীকে।

আরও পড়ুনঃ দেশের ২১৬ টি জেলা থেকে আসেনি করোনা রোগীর খবর, জানালো স্বাস্থ্যমন্ত্রক

কিছু দেশ লকডাউন আস্তে আস্তে শিথিল করছে। সেই পথেই এগিয়ে যাচ্ছে ভারতও। এই পরিস্থিতিতে হু বারবার সতর্ক করছে, একেবারে লকডাউন তুলে দিলে বিপদ কাটবেনা উল্টে আরও বাড়বে। করোনার আক্রান্ত আরও তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পড়বে। মৃতের সংখ্যাও বাড়বে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফ থেকে লব আগরওয়াল জানিয়েছেন, সংক্রমণ এর থেকে ভারতে সুস্থ্য হওয়ার হার ২৯.৩৬ শতাংশ। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৬,৫৪০জন।

আরও পড়ুনঃ ঘুমিয়ে থাকা শ্রমিকদের উপর দিয়ে চলে গেলো ট্রেন

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী সেখ হাসিনা-র চার পরামর্শ

Sheikh Hasina

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী সেখ হাসিনা আজ করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় পরামর্শ ও আহব্বান সংকলিত চারটি বার্তা জনগনের কাছে পৌছে দিতে চান। প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার এবং সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই বার্তাগুলো প্রচারের জন্য অনুরোধ জানান।

প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বার্তাগুলো হচ্ছেঃ

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় আপনার করনীয়ঃ প্রয়োজন ছাড়া বাড়ি থেকে বের হবেন না। বাইরে থেকে বের হলে মানুষের ভিড় এড়িয়ে চলুন। যেখানে সেখানে থুতু ফেলবেন না, ঘন ঘন সাবান দিয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুতে হবে। হাঁচি, কাশির সময় রুমাল বা টিস্যু পেপার দিয়ে নাক-মুখ ঢেকে নিন। স্বাস্থ বিধি মেনে চলুন। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিরাপদ থাকুন।

করোনা ভাইরাসে ভীত হবেন নাঃ করোনা ভাইরাস দ্রুত ছড়ানোর ক্ষমতা রাখলেও ততটা প্রানঘাতী নয়। এই ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষই অনেকাংশেই কয়েকদিনের মধ্যে সুস্থ হয় ওঠে। নানা রোগে আক্রান্ত এবং বয়স্ক মানুষদের জন্য এই ভাইরাস বেশ প্রানসংহারী হয়ে উঠেছে। আতঙ্কিত হবেন না। আপনার পরিবারের সদস্য এবং প্রতিবেশীরা যাতে সংক্রামিত না হন, সে বিষয়ে সতর্ক থাকুন। আপনার সচেতনতা আপনাকে, আপনার পরিবারকে এবং সর্বোপরি দেশের মানুষকে সুরক্ষিত রাখবে।

সুরক্ষণ ও চিকিৎসা সামগ্রীর ঘাটতি নেইঃ স্বাস্থ কর্মীদের সুরক্ষার বিষয়ে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। পিপিই-সহ পর্যাপ্ত পরিমান সুরক্ষা সরঞ্জাম সংগ্রহ করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য পর্যাপ্ত কিট মজুত রয়েছে। ঢাকায় চারটি স্থানে এবং চট্টগ্রামে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কেউ গুজব ছড়াবেন না।, গুজব রটনাকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সহনশীল ও সংবেদনশীল হোনঃ করোনা ভাইরাসের কারনে শুধু বাংলাদেশ নয়, গোটা বিশ্ব এক সঙ্কটময় সময় অতিক্রম করছে। এ সময়ে আমাদের সহনশীল এবং সংবেদনশীল হতে হবে। বাজারে কোনো পন্যের ঘাটতি নেই, দেশের অভ্যন্তরের এবং বাইরের সঙ্গে সরবরাহ চেইন অটুট রয়েছে। অযৌক্তিকভাবে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি করবেন না। সীমিত আয়ের মানুষকে কেনার সুযোগ দিন।

জার্মানির প্রাদেশিক অর্থমন্ত্রির আত্মহত্যা

Thomas Schaefer attempted suicide

জার্মানিতে রেললাইনের পাস থেকে প্রাদেশিক এক মন্ত্রীর দেহ উদ্ধার হয়েছে। তিনি জার্মানির হেসে প্রদেশের অর্থমন্ত্রী থমাস শেফার। পুলিশের ধারণা তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

জার্মান সংবাদ মাধ্যম ডয়চে ভেলে এ কথা জানান। ডয়চে ভেলের প্রতিবেদনে বলা হয়, দ্রুতগতির রেলের পাশ থেকে মন্ত্রী শেফারের লাশ উদ্ধার করা হয়। তাঁর শরীর এত ক্ষতবিক্ষত ছিল যে শুরুতে তা শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়ে। স্থানিয় গনমাধ্যমের বরাত দিয়ে ডয়েচ ভেলের প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের কারনে সৃষ্টি অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কীভাবে সামাল দেবেন, সে দুশ্চিন্তা থেকে তিনি আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন।

হেসে প্রদেশের সরকার প্রধান ভলকার বুফারের বরাত দিয়ে ভারতের সংবাদ মাধ্যাম এনডিটিভি জানায়, রবিবার ৫৪ বছর বয়সি থমাস শেফারের মৃতদেহ একটি রেললাইনের উপর থেকে উদ্ধার করা হয়। ভলকার বুফার বলেন, আমরা হতবাক এই ঘটনা অবিশ্বাস্য এবং আমরা তার জন্য গভিরভাবে শোকাহত।